• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০

 

করোনা আতঙ্কে রোগীশূন্য শেরেবাংলা নগরের ১০ হাসপাতাল

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

নভেল করোনাভাইরাস আতঙ্কে রোগীশূন্য হয়ে পড়েছে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের ১০টি হাসপাতাল। হাসপাতালগুলোতে হাঁচি, সর্দি ও কাশির জন্য আলাদা কাউন্টার থাকলেও কাউকে দেখা যাচ্ছে না। কোন কোন হাসপাতালের কিছু কিছু কাউন্টারে ঝুলছে তালাও। সেজন্য অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলায় নিয়োজিত কর্মীদের। অন্য সময়ে শেরেবাংলা নগরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল, জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (পঙ্গু হাসপাতাল), জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, ঢাকা শিশু হাসপাতাল, ২৫০ শয্যা টিবি হাসপাতাল, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজি, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং জাতীয় বাতজ্বর ও হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র রোগী ও তার স্বজনদের ভিড় থাকে।

কিন্তু ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর কমতে থাকে রোগীর সংখ্যা। সংক্রমণ রোধে সর্বশেষ ২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান ও সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হলে হাসপাতালগুলো খালি হতে থাকে। এসব হাসপাতালে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, প্রায় সবগুলো হাসপাতাল রোগী শূন্য হয়ে গেছে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের আনসার সদস্য সামাদ বলেন, হাসপাতালে প্রবেশের আগে থেকেই কড়াকড়ি রয়েছে। আগে প্রতিদিন সারাদেশ থেকে অনেক রোগী আসতেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে খুব কম রোগী আসছেন। আবার কারও মধ্যে করোনার কোন উপসর্গ বা লক্ষণ দেখা গেলে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। কারও যদি এ ধরনের উপসর্গ না থাকে তবেই হাসপাতালে ভর্তি হতে পারছেন।

পঙ্গু হাসপাতালের জরুরি বিভাগ ঘুরে দেখা যায়, জরুরি বিভাগে নতুন করে তেমন কোন রোগী ভর্তি হচ্ছেন না। বেড সব ফাঁকা পড়ে আছে। হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার নুরু বলেন, করোনার প্রভাব শুধু হাসপাতালে নয়, সারাদেশে পড়েছে। প্রতিদিন সারাদেশ থেকে হাজার হাজার রোগী আসতেন। কিন্তু এখন একেবারেই রোগী আসছেন না। জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল ঘুরে দেখা যায়, হাসপাতালের প্রধান ফটকে রোগী নেই। আছেন কয়েকজন আনসার সদস্য। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সারাদেশ লকডাউন, বৃহস্পতিবার কোন রোগী আসেননি।

পাশেই ২৫০ শয্যা টিবি হাসপাতাল, সেখানেও কোন নতুন রোগী ভর্তি হননি বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। ঢাকা শিশু হাসপাতালেও কোন নতুন রোগী তেমন আসছেন না বললেই চলে। হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রেজওয়ানুল জানান, করোনাভাইরাসের কারণে একেবারেই নতুন করে রোগী ভর্তি হচ্ছেন না। জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য হাসপাতালে কেবল নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার সদস্যদেরই দেখা যায়। কোন রোগী আসেননি বলে জানান তারাও।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজিতে দেখা যায়, পুরনো রোগীর স্বজনেরা ছাড়া কোন ভিড় নেই। হাসপাতাল সংশ্লিষ্টদের অনেককে অলস সময় কাটাতে দেখা যায়। জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল ঘুরে দেখা যায়, সারাদিনে ৫ জন রোগী এসেছেন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডা. মিজানুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার সারাদিনে পাঁচজন রোগী এসেছেন, এদের মধ্যে চারজন বলতে পারেন না তাদের কী সমস্যা হয়েছে। আরেকজনকে হার্টের সমস্যা আছে কি-না জানার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ঘুরে দেখা যায়, একজন কর্মকর্তা টিকিট কাউন্টারে বসে থাকলেও নেই রোগী বা তার স্বজনদের কোন ভিড়। হাঁচি, সর্দি ও কাশির জন্য আলাদা কাউন্টার থাকলেও সেখানে কাউকে পাওয়া যায়নি। বরং কাউন্টারে ঝুলছে তালা। জাতীয় বাতজ্বর ও হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে গেলে সেখানে কথা বলার জন্য কাউকে পাওয়া যায়নি। গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাস এখন বৈশ্বিক মহামারী। বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এ ভাইরাসটি। এখন পর্যন্ত এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় পাঁচ লাখ এবং মারা গেছেন ২২ হাজার ৫৮ জন মানুষ। অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ ১৭ হাজার ৬০৭ জন।

বাংলাদেশে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে গত ৮ মার্চ। এরপর দিন দিন এ ভাইরাসে সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েছে। সর্বশেষ হিসাবে দেশে এখন পর্যন্ত ৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন পাঁচজন। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ১১ জন। করোনার বিস্তার রোধে দেশের সব স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় এবং সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর। চীন ও যুক্তরাজ্য ছাড়া সব দেশ থেকেই যাত্রী আসা বন্ধ হয়ে গেছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সব বিপণিবিতান। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে আদালতও। এমনকি একাধিক এলাকাকে লকডাউনও ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন। এ কার্যক্রমে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তার জন্য দেশের সব জেলায় মোতায়েন রয়েছে সশস্ত্র বাহিনী।

ওয়ারী : স্বাস্থ্যবিধি মানার আগ্রহ কম স্থানীয়দের

ইবরাহীম মাহমুদ আকাশ

image

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ৫ জুলাই রোববার দ্বিতীয় দিনের লকডাউন অতিক্রম করেছে রাজধানীর ওয়ারীর বিভিন্ন এলাকায়। তবে

স্বাস্থ্যবিধি মেনেই উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে যাওয়ার আহবান স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সারাদেশে কোটি কোটি খেটে খাওয়া মানুষ রয়েছে তাদের জীবিকা নির্বাহের জন্য বিভিন্ন অর্থনৈতিক কর্মকা- চালু রাখা প্রয়োজন। তাই প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বাঁধা অতিক্রম করে দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে যেতে হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম। স্বাস্থ্যবিধি মেনে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সরকারের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা অনুসরণ করে দেশের উন্নয়ন কর্মকা- অব্যাহত রাখার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

চিরুনী অভিযানের ২য় দিনে প্রায় ৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ডিএনসিসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে (ডিএনসিসি) চিরুনি অভিযানের ২য় দিনে ২ লাখ ৯৭ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

sangbad ad

ওয়ারীতে লকডাউনে কড়াকড়ি মাস্ক না পড়লে জরিমানা

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

রাজধানীর দ্বিতীয় রেডজোন ওয়ারীতে বিশেষ লকডাউন বাস্তবায়স্তন করতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা

করোনাকালে চাকরি হারানোর হতাশায় আত্মহত্যা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাকালে চাকরি হারিয়ে অভাব-অনটনে পড়ে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছেন রাজধানীর পল্লবীর এক বাসিন্দা। তার নাম আনোয়ার হোসেন মান্নান (৪৫)। তিনি গার্মেন্টস কর্মী ছিলেন। অন্যদিকে চকবাজারে আসিয়া আক্তার শান্তা (২১) নামে এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।

ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান : প্রথম দিনে ১ লাখ ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান (চিরুনি অভিযান) শুরু করেছে। অভিযানের প্রথম দিনে শনিবার ১২ হাজার ৬১৯ টি বাড়ি, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করে মোট ৯১ টিতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। এছাড়া ৮ হাজার ৭৬৪ টি বাড়ি/স্থাপনায় এডিস মশা বংশবিস্তার উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যায়।

কাল থেকে শুরু হচ্ছে চিরুনী অভিযান মশক নিধনে নগরবাসীর প্রতি মেয়রের আহবান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মশক নিধনে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

দাম বেড়েছে সবজির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর বাজারগুলোতে সব ধরনের সবজির দাম বেড়েছে। প্রকারভেদে কেজিপ্রতি সবজি ১০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বাড়তি দামে বিক্রি করতে দেখা গেছে।

ঘনবসতি এলাকায় কোরবানির হাট নয় : আতিকুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় কোরবানির পশুর হাট না বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

sangbad ad