• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯

 

সিলেটের প্রকল্পগুলোর পরিচালকদের ওপর অসন্তুষ্ট পরিকল্পনামন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

সিলেট বিভাগে বর্তমানে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প ৫৮টি। এর মধ্যে পাঁচটি প্রকল্পের গতি শূন্যের কোটায়। ৩০টি প্রকল্প ধীরগতিসম্পন্ন। বাকি প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি মোটামুটি। প্রকল্পের অগ্রগতি শূন্য ও ধীরগতিসম্পন্ন হওয়ায় এসব প্রকল্প পরিচালকদের ওপর অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। যাদের প্রকল্পের অগ্রগতি ভালো, তাদের সাধুবাদ জানিয়েছেন মন্ত্রী। শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে সিলেটের সার্কিট হাউজে বিভাগের বাস্তবায়নাধীন ৫৮টি উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করতে সভার আয়োজন করা হয়। শূন্য ও ধীরগতিসম্পন্ন প্রকল্পের পরিচালকরা সন্তোষজনক অগ্রগতি না হওয়ার যৌক্তিক কারণ সভায় ব্যাখ্যা করতে পারেননি।

তবে পর্যালোচনা সভার শুরুতেই এম এ মান্নান বলেন, আমরা দোষারোপ বা বকাঝকা করার জন্য এখানে আসিনি। কাউকে ছোট করাও আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমাদের উদ্দেশ্য প্রকল্পের গতি বৃদ্ধি করা এবং তা বাস্তবায়ন করা।

পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর সারা দেশে বাস্তবায়নাধীন সব প্রকল্প পরিচালকের সঙ্গে আলোচনা করার উদ্যোগ নেন এম এ মান্নান। এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি প্রথম সফর করেন খুলনায়। সেখানে বাস্তবায়নাধীন ৫৮টি প্রকল্পের বিষয়ে কথা বলেন। এর অংশ হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো সিলেট বিভাগে আসলেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কিছু অনুশাসন তুলে ধরে সভায় পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, প্রকল্প কাজে গতি বাড়াতে যথাসময়ে কাজ শেষ করতে হবে। এক ব্যক্তি একাধিক প্রকল্পের দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারবেন না। সেই সঙ্গে প্রকল্প পরিচালকদের প্রকল্পের এলাকায় অবস্থান করতে হবে। প্রকল্প বাস্তয়ান করে তার সুফল জনগণের মাঝে পৌঁছে দিতে প্রধানমন্ত্রীর এসব অনুশাসন অবশ্যই মানতে হবে।

পরিকল্পমন্ত্রী তাদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারেন, প্রকল্প পরিচালকদের কেউ কেউ প্রকল্প এলাকাতেই থাকেন না। এ সময় একজন ব্যক্তি পাঁচটি প্রকল্পের দায়িত্বে আছেন, এমন প্রকল্প পরিচালকও পাওয়া যায়।

মন্ত্রী বলেন, এখন উন্নয়নের যুগ। এখন সেই আগের ধারণা নাই। এখনকার রাষ্ট্রের মূল কাজটি হবে উন্নয়ন। উন্নয়নের মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে জনগণের কল্যাণ। পুরো দৃষ্টিভঙ্গিটা পাল্টে গেছে। বৃটিশদের দৃষ্টিভঙ্গি, পাকিস্তানের দৃষ্টিভঙ্গি অনেক ফারাক আছে। আপনারা বোঝেন এগুলো।

তিনি বলেন, উন্নয়ন এমন এক জিনিস, যদি এটা থেমে যায়, তাহলে এটা নিচে নেমে যাবে। কন্টিনিউয়াসলি ডেন্সে থাকতে হবে। আর স্পিড বাড়াতে হবে।

ডিসিসিআই’র ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্লিন টেকনোলজি ফেয়ার’

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

‘ইন্টারন্যাশনাল ক্লিন টেকনোলজি ফেয়ার’ শীর্ষক ২ দিনের মেলার আয়োজন করছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)।

প্রতিবছর ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদন হবে দেশে : শিল্প মন্ত্রণালয়

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

দেশে ২০২৭ সাল নাগাদ মোটরসাইকেলের বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ১০ লাখে উন্নীত করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন : বাণিজ্য ঘাটতি ১ লাখ কোটি টাকা ছাড়ালো

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি বাড়াচ্ছে। কিন্তু সেই তুলনায় রপ্তানি আয় বাড়াতে পারছে না। ফলে বহির্বিশ্বের সঙ্গে লেনদেনে

sangbad ad

সুতায় ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার চায় বিটিএমএ : বাজেট-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলন

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে দেশি সুতার ওপর ৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আরোপ করায় দেশের বস্ত্রখাত (কাপড় ও সুতা)

প্রতিবছর ৮ হাজার হেক্টর কৃষি জমি হারাচ্ছে বাংলাদেশ : সেমিনারে বক্তারা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

প্রতিবছর ৮ হাজার হেক্টর কৃষি জমি হারাচ্ছে বাংলাদেশ। গতকাল রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু নৌ-পরিষদ আয়োজিত এক সেমিনারে

যেভাবে এলো আজকের এই বাজেট

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

সরকারের যে কর্মকাণ্ডের ওপর সব মহলের তীক্ষ্ণ দৃষ্টি থাকে তা হলো জাতীয় বাজেট। নতুন কী থাকছে, কিসের দাম বাড়ছে, কিসের দাম

জাতীয় বাজেট ২০১৯-২০ : শেয়ারবাজারে ব্যক্তিগত করমুক্ত আয়সীমা ৫০ হাজার টাকা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

চলতি অর্থবছরের (২০১৯-২০) বাজেটে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারীদের জন্য সুখবর

প্রাণ ও ড্যানিশসহ ১৮ প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

প্রাণের লাচ্ছা সেমাই ও হলুদের গুঁড়া, ড্যানিশ এবং শবনম ভেজিটেবলসহ ১৮ প্রতিষ্ঠানের পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। ১১ জুন

খেলাপি ঋণের অর্ধেকের বেশি রাষ্ট্রায়ত্ত আট ব্যাংকের : আদায় করা যাচ্ছে না ঋণের ৩২ শতাংশই

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

মার্চ শেষে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ছয় ব্যাংকের মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৩ হাজার ৮৭৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকা,

sangbad ad