• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০

 

শেয়ারবাজার টানা দরপতনে ডিএসইর সামনে বিনিয়োগকারীদের বিক্ষোভ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০১৯

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবশেক
image

বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে ডিএসই’র সামনে বিক্ষোভ করে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা

শেয়ারবাজারে টানা দরপতনের কারণে বিক্ষোভ করেছেন পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা। ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সামনে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা এ বিক্ষোভ করেন। বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে আয়োজিত এ বিক্ষোভ থেকে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবি জানান।

বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ সভাপতি মিজান উর রশিদ চৌধুরী বলেন, বিএসইসির এ চেয়ারম্যানকে দায়িত্বে রেখে শেয়ারবাজার ভালো করা যাবে না। আমরা বিএসইসি চেয়ারম্যানের পদত্যাগ চায়। দরপতনের প্রতিবাদে আমরা রোজার ঈদের আগেও মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও প্রতীকী গণঅশন করেছি। এছাড়া শেয়ারবাজারের জন্য বেশকিছু সুপারিশ তুলে ধরেছি। কিন্তু পতন ঠেকাতে কেউ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। আমরা যে দাবিগুলো জানিয়েছি, তা বাস্তবায়ন করতে হবে। না হলে লাগাতার কঠোর আন্দোলন করতে বাধ্য হব।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ২২২ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৫৭ পয়েন্টে নেমে গেছে। আর শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৯৪ পয়েন্টে। সব সূচকের পতনের পাশাপাশি বাজারে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ১০৮ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার বিপরীতে কমেছে ২১৯টি। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির। এদিকে মূল্য সূচকের পতন এবং বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার পাশাপাশি ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও কমেছে। ১১ কার্যদিবস পর বাজারে আবারও লেনদেনের পরিমাণ ৩০০ কোটি টাকার ঘরে নেমে এসেছে। দিনভর বাজারে ৩৫১ কোটি ৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪০৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। অর্থাৎ লেনদেন কমেছে ৫৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের। কোম্পানিটির ১৮ কোটি ৮৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ফেডারেল ইনস্যুরেন্সের ১০ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর ৮ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে গ্রামীণফোন। এছাড়া বাজারে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে রূপালী ইন্স্যুরেন্স, মুন্নু সিরামিক, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, এশিয়ার টাইগার সন্ধানী লাইফ গ্রোথ ফান্ড, রানার অটোমোবাইল, সিঙ্গার বাংলাদেশ ও ন্যাশনাল টিউবস। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৭২ পয়েন্টে। বাজারে হাতবদল হওয়া ২৬৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৬টির, কমেছে ১৭৩টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির। লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ২২ লাখ টাকা।

ব্যাংকে কর্মী ছাঁটাই ও বেতন কমানো বন্ধ করুন : বিডব্লিউএবি

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনার আতঙ্কের মধ্যেই দেশের বিভিন্ন ব্যাংকে শুরু হয়েছে কর্মী ছাটাই। সরকারের কাছে নানা সুযোগ-সুবিধা নেয়ার পরও ব্যাংক মালিকরা

আট নিত্যপণ্যের দাম কমেছে : টিসিবি

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

গত এক সপ্তাহে নিত্যপ্রয়োজনীয় আট পণ্যের দাম কমেছে। এরমধ্যে রয়েছে তেল, পিয়াজ, রসুন, পোল্ট্রি মুরগি, শুকনা মরিচ, ছোলা

ডিএসইর জন্য মাস্ক পাঠিয়েছে শেনঝেন স্টক এক্সচেঞ্জ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাস মহামারিতে ডিএসইর সদস্যদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কৌশলগত অংশীদার চীনের শেনঝেন স্টক এক্সচেঞ্জ। ডিএসই থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

sangbad ad

ডিএসইতে সূচকের পতন সিএসইতে উত্থান

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

রোববার উত্থান হলেও আজ কিছুটা পতনে শেষ হয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে বেড়েছে। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) উত্থান হয়েছে।

ঈদ উপলক্ষে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ১২ জুলাই রোববার থেকে সারাদেশে পণ্য বিক্রি শুরু করেছে সরকারি সংস্থা- ট্রেডিং করপোরেশন

অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে নানামুখী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের পরামর্শ রিসারজেন্ট বাংলাদেশের

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনা পরিস্থিতিতে বিনিয়োগ স্থবিরতা দূরীকরণে দ্রুত নতুন নীতিমালা প্রণয়নসহ প্রয়োজনীয় বাণিজ্য নীতিমালা সংস্কার করা করতে হবে। নতুন সম্ভাবনা খুঁজে বের করতে হবে, দেশের স্বাভাবিক উন্নয়ন কৌশলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নীতিমালা সংস্কার করতে হবে, ইউরোপ ও দক্ষিণ এশিয়া থেকে নতুন বিনিয়োগ আকর্ষণে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে ও দেশে বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নয়ন ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে যথাযথ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

সূচকের উত্থানে সপ্তাহ শুরু শেয়ারবাজারে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

গত বৃহস্পতিবারের মতো আজও উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন সামান্য কমেছে।

সংকটে পোশাক খাত বন্ধ হচ্ছে কারখানা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাস সংকটে সারাবিশ্বের অর্থনীতিতে ধস নেমেছে। এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের প্রধান আর্থিক খাত পোশাক শিল্পে। লকডাউনের....

দুই হাজারেরও বেশি ব্যাংক কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে করোনা সংক্রমণের হার দিন দিন বেড়েই চলেছে। এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এ ভাইরাস দুই হাজারেরও বেশি

sangbad ad