• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯

 

বিদেশি ক্রেতাদের ক্রয়াদেশ বেশি এসএমই মেলায়

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ২০ মার্চ ২০১৯

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা নারী ক্যাটাগরিতে এসএমই ফাউন্ডেশনের পুরস্কার পাওয়া নূর নকশীর স্টলে ক্রেতারা

হাজারো ক্রেতা-দর্শনার্থীর সমাগমে জমে উঠেছে জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা-২০১৯। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১৬ মার্চ শনিবার মেলা শুরু হয়। ২০ মার্চ বুধবার ছিল ৫ম দিন। দিন যতই যাচ্ছে মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীর সংখ্যা ততই বাড়ছে। বুধবার বিকেলে মেলার সাজানো গোছানো পরিপাটি স্টলগুলো ছিল দর্শনার্থীতে পরিপূর্ণ। বিক্রেতারা জানিয়েছেন, দর্শনার্থী বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মেলার বিক্রি বেড়ে গেছে। পছন্দের পণ্য কম দামে কিনতে ভিড় জমিয়েছেন ক্রেতারা। মজার বিষয় হলো, এবারের মেলায় বিদেশি ক্রেতার অর্ডার বেড়েছে বলে জানিয়েছেন অনেক বিক্রেতা।

মেলায় পাওয়া যাচ্ছে শাড়ি, ব্লক ও বাটিকের থ্রিপিস, টুপিস, ওয়ানপিস, ম্যাট, টেবিলম্যাট, শো পিস, কুর্তি, ফতুয়া, শার্ট ইত্যাদি। এছাড়াও পুঁতি দিয়ে তৈরি গহনা, পাটের ব্যাগ, পুতুল, পাটের স্যান্ডেল, হাতে তৈরি কাঁথা, মাটির তৈজসপত্র, চামড়ার জুতা সেন্ডেল পাওয়া যাচ্ছে খুব কম দামে।

দেশের ঐহিত্যবাহী নকশী কাঁথার পসরা বসিয়েছে নকশী ঘর নামের একটি স্টল। স্টলটির কর্ণধার পারভিন আক্তার বলেন, মেলার আয়োজন এবার খুবই ভালো হয়েছে। মেলায় বেচাকেনা ভালো হচ্ছে। তবে বড় বিষয় হলো খুচরা বিক্রির চেয়ে আমাদের পাইকারি বিক্রির ওর্ডার পাচ্ছি বেশি। গাজীপুর থেকে এসএমই মেলা দেখতে এসেছেন রুবানা-হারুন দম্পতি। মেলা সম্পর্কে জানতে চাইলে রুবানা বলেন, আমরা বেশিরভাগ জামা-কাপড় বিভিন্ন অভিজাত শোরুম থেকে কিনি। কিন্তু এসএমই মেলায় এসে দেখলাম, যে থ্রিপিস আড়ং থেকে ৫ হাজার টাকায় কিনেছি, সেটি এখানে ২ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। আমার ধারণাই ছিল না, প্রত্যন্ত গ্রামের অল্প শিক্ষিত মেয়েরা এতো ভালো মানের পণ্য তৈরি করতে পারে। মেলা কেনাকাটা কেমন করলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আসলে আমরা কেনাকাটার প্রস্তুতি নিয়ে আসিনি; ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা কেমন পণ্য তৈরি করতে তা দেখতে এসেছিলাম। কিন্তু কিছু থ্রিপিস দেখে না কিনে পারলাম না। আমার আমার জন্য দুটি থ্রিপিস, হাজবেন্ডের জন্য একটি ফতুয়া ও ছেলের জন্য একটি পাঞ্জাবি কিনেছি। মেলার শেষদিন আবার আসবো।

মেলায় খাবারের স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন ধরনের আচার, মধু ও পিঠা ও বিভিন্ন অর্গানিক খাদ্য যেমন ঢেঁকি ছাঁটা চাল ইত্যাদি। সাদা বিন্নি, কালো বিন্নি, লাল বিন্নি, বাঁশফুলসহ কয়েক রকম অজানা চাল মেলায় পাওয়া যাচ্ছে। ভাত, পিঠাসহ হরেক রকমের খাবার তৈরি করা যায় এসব চাল থেকে। বিভিন্ন অর্গানিক খাবারের স্টলের কর্মী নিশি জানান, আমরা বিভিন্ন অঞ্চল থেকে খাবারগুলো সংগ্রহ করে ক্রেতার কাছে পাঠিয়ে দেই। আমাদের এমন কিছু চাল আছে যা আপনি কোনদিনও দেখেননি, হয়তো নাম শুনে থাকবেন। এক সময় এই দেশে এই সব ধান চাষাবাদ হতো। এখন আর হয় না। আমরা এগুলোকে খুঁজে খুঁজে ক্রেতার হাতের নাগালে এনে দিই। মেলার সার্বিক আয়োজন সুন্দর হয়েছে। প্রতি দুই স্টল পর পর একটি করে বড় ফ্যানের ব্যবস্থা করা হয়েছে যেন দর্শনাথীদের তাপ না লাগে। ছোট ছোট ব্লকে মেলার স্টলগুলো সাজানো হয়েছে। মনে হতে পারে, ছোট ছোট এই স্টলগুলোও প্রতি উদ্যোক্তার মনের কথা বলছে।

মেলার সার্বিক বিষয় নিয়ে এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন কে এম হাবিব উল্লাহ বলেন, প্রতিবছরই মেলার আয়োজনটা আমরা খুবই সুন্দর করে করি। এবার অন্যবারের আয়োজনকেও ছাড়িয়ে গেছে। বিভিন্ন জেলা থেকে আসা উদ্যোক্তারা যেন কোন সমস্যায় না পড়ে সেজন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। মেলায় উদ্যোক্তাদের বেচাকেনা কেমন চলছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেলার যতদিন যাচ্ছে ততই জাগরন হচ্ছে। বিক্রি থেকেই তার প্রমাণ পাওয়া যায়। গতবারের পুরো মেলায় মোট ৭ থেকে ৮ কোটি টাকা বিক্রি ও ১০ কোটি টাকার অর্ডার হয়েছিল। এবার শুনছি অর্ধেক সময় যেতেই ৭ থেকে ৮ কোটি টাকার বেচাকেনা ও সমপরিমাণ অর্ডার ছাড়িয়ে গেছে। আমরা আশা করছি, এবারের মেলায় গতবারের চেয়ে দ্বিগুণ বেচাকেনা হবে।

মেলা উপলক্ষে প্রায় প্রতিটি স্টলে বিভিন্ন রকমের ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। প্রতিটি স্টলে প্রায় ১০ থেকে ৩০ শতাংশ ছাড়ে পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও এক সঙ্গে কয়েকটি পণ্য কিনলে একটি কম মূল্যমানের পণ্য ফ্রি দেয়া হচ্ছে। হাতে তৈরি চামড়ার জুতা ও ব্যাগের স্টলে দেখা যায়, যেসব জুতা ও ব্যাগের প্রকৃত দাম ২ হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা মেলায় তা বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার থেকে ২ হাজার টাকায়। এছাড়াও মেয়েদের সালোয়ার কামিজ, শাড়ি, থ্রিপিস, টুপিস ওয়ানপিস সব পণ্যেই কিছু না কিছু ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

প্রথা বুটিকসের আঞ্জুমান আরা রিতা বলেন, মেলায় পণ্য বিক্রি করলে কিছু না কিছু ছাড় দিতেই হয়। ছাড় দিলে আমাদের লাভ কম হয়। কিন্তু পণ্য যেহেতু বেশি বিক্রি করি তাকে সেটা পুষিয়ে যায়। আমরা প্রতিটি থ্রিপিস, টুপিস ও ওয়ানপিসে ৩০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছি। এটা দিচ্ছি আমাদের ক্রেতাদের খুশি করতে।

সাতদিনের এসএমই পণ্য মেলার-২০১৯ একদিন বাড়িয়ে আট দিন করা হয়েছে। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলছে। বিনামূল্যে প্রবেশের ব্যবস্থা রয়েছে মেলায়। এবারের মেলায় ২৮০টি এসএমই উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছে। এদের মধ্যে ১৮৮ জন নারী ও ৯২ জন পুরুষ। মেলায় দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য, আইটি পণ্য, প্লাস্টিক ও অন্য সিনথেটিক, হস্তশিল্প, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যারসহ অন্যান্য মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের স্বদেশি পণ্য প্রদর্শিত ও বিক্রয় হচ্ছে।

পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে দাঁড় করাতে চান অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

পুঁজিবাজারের চলমান দুরবস্থায় বিনিয়োগকারীরা যখন রাস্তায় তখন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানালেন, পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে

২০২১ সাল থেকে সকল স্কুল-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশে প্রতি বছর ২২ লাখ লোক শ্রমবাজারে প্রবেশ করে, কিন্তু কর্মসংস্থানের জন্য যে পরিমান দক্ষতা দরকার তা তাদের নাই। ফলে অধিকাংশই

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, দেশে উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি

sangbad ad

শেয়ারবাজার টানা দরপতনে ডিএসইর সামনে বিনিয়োগকারীদের বিক্ষোভ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবশেক

image

শেয়ারবাজারে টানা দরপতনের কারণে বিক্ষোভ করেছেন পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা। ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই)

আসবাবপত্র রপ্তানিতে ভালো অবস্থানে বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

দেশের বাইরে ক্রমান্বয়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠছে বাংলাদেশে তৈরি আসবাবপত্র বা গৃহস্থলী পণ্য। গত এক দশক ধরে ক্রমান্বয়ে বাড়ছে এখাতে রপ্তানি

সচেতনতা বাড়ানোই বীমা খাতের প্রধান চ্যালেঞ্জ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

সময়ের সঙ্গে বাড়ছে দেশের অর্থনীতির আকার। সেই সঙ্গে বেড়েছে বীমা খাতের পরিধি। এরপরও অর্থনীতিতে বাড়েনি বীমা খাতের অবদান

এনবিআরে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

প্রস্তাবিত বাজেটের বৈষম্যমূলক শুল্কনীতির প্রতিবাদ ও ভারতের ন্যায় প্রতি হাজার বিড়িতে ১৪ টাকা করারোপসহ ৬ দফা দাবিতে জাতীয় রাজস্ব

ডিসিসিআই’র ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্লিন টেকনোলজি ফেয়ার’

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

‘ইন্টারন্যাশনাল ক্লিন টেকনোলজি ফেয়ার’ শীর্ষক ২ দিনের মেলার আয়োজন করছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)।

প্রতিবছর ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদন হবে দেশে : শিল্প মন্ত্রণালয়

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

দেশে ২০২৭ সাল নাগাদ মোটরসাইকেলের বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ১০ লাখে উন্নীত করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি

sangbad ad