• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৭ মে ২০২০

 

বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির বরাদ্দ : এশিয়ার অন্য দেশগুলোর তুলনায় পিছিয়ে বাংলাদেশ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১০ জুন ২০১৯

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

সামাজিক নিরাপত্তায় এশিয়ার অন্য দেশগুলোর তুলনায় বাংলাদেশ অনেক পেছনে রয়েছে। প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইনেও বাংলাদেশের চেয়ে বেশি মানুষ সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় আছে। তবে বাংলাদেশে এর আওতা বাড়ছে ধীরে ধীরে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, আগামী বাজেটে এই সূচকে সুবিধাভোগীর সংখ্যা ১৩ লাখ বৃদ্ধি করা হতে পারে। এর ফলে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় আসবে ৮৭ লাখ মানুষ।

জাতিসংঘের ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কমিশন ফর এশিয়া অ্যান্ড দ্য প্যাসিফিকের (এসকাপ) অর্থনৈতিক ও সামাজিক জরিপের গত বছরের তথ্যানুযায়ী, দেশে কমপক্ষে একটি সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতাধীন রয়েছে মোট জনসংখ্যার ২৮ দশমিক ৪ শতাংশ। অস্ট্রেলিয়ায় এ হার ৮৫ শতাংশ। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইনসহ বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের চেয়ে বেশি হারে মানুষ সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় রয়েছে। তবে বাংলাদেশের পেছনে রয়েছে ভারত। শুধু সুবিধাভোগীর হার নয়, সামাজিক নিরাপত্তায় বরাদ্দের দিক থেকেও পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। এ খাতে সরকারের বরাদ্দ নেপাল ও ভুটানের তুলনায় কম।

এসকাপের প্রতিবেদনে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ১১টি দেশের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় থাকা জনসংখ্যার হার তুলে ধরা হয়েছে। এসব দেশের মধ্যে বাংলাদেশের পেছনে কেবল ভারত। পাকিস্তান, নেপাল ও ভুটানের তথ্য প্রতিবেদনে উল্লেখ নেই। অবশ্য বিভিন্ন দেশ তার মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) কত শতাংশ সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে ব্যয় করে, তার চিত্রে পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান ও ভারতের কথা উল্লেখ আছে। এতে দেখা যায়, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার আফগানিস্তান, ভুটান, ভারত, ইরান, মালদ্বীপ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও তুরস্কের চেয়ে বাংলাদেশের ব্যয় কম। অন্যদিকে পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশের ব্যয় বেশি।

সামাজিক নিরাপত্তায় বাংলাদেশ জিডিপির ১ দশমিক ৭ শতাংশ ব্যয় করে। অন্যদিকে পাকিস্তান ব্যয় করে মাত্র শূন্য দশমিক ২ শতাংশ। দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যয় করে তুরস্ক। তাদের ব্যয়ের পরিমাণ জিডিপির সাড়ে ১৩ শতাংশ। দেশে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটে সামাজিক সুরক্ষার বিভিন্ন কর্মসূচিতে বরাদ্দ ছিল ৫৪ হাজার ২০৬ কোটি টাকা।

বাংলাদেশে সামাজিক নিরাপত্তা

কর্মসূচির আওতা বাড়ছে

অর্থমন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা যায়, ২০০৫-০৬ অর্থবছরে এ খাতে বরাদ্দ ছিল মাত্র ৩৭৩ দশমিক ২ কোটি টাকা। এটি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৬৪ হাজার ৬৫৬ কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে। এর আওতায় সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় সাড়ে ৭৩ লাখ মানুষ বিভিন্ন ভাতা পাচ্ছেন। সুবিধাবঞ্চিত, হতদরিদ্র, বিধবা, অসচ্ছল মানুষ, প্রতিবন্ধী, মুক্তিযোদ্ধাসহ প্রায় সব ধরনের উপকারভোগীর সংখ্যা বাড়ানো হবে আগামী বাজেটে। কিছু ক্ষেত্রে ভাতার পরিমাণও বাড়বে। বাংলাদেশে বর্তমানে জাতীয় বাজেটের অধীনে একশ পঞ্চাশটি সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি রয়েছে। সরকারের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, মহিলা ও শিশু বিষয়ক এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বৃহৎ কর্মসূচিগুলো বাস্তবায়িত হচ্ছে। মুক্তিযোদ্ধা, বয়স্ক, প্রতিবন্ধী, দুস্থ নারী, চা বাগানের শ্রমিক, বিধবা ও তালাকপ্রাপ্ত নারী, হিজড়াসহ পিছিয়ে পড়া মানুষদের ভাতা দিচ্ছে সরকার। আগামী বাজেটে বয়স্ক ভাতার উপকারভোগী ৪ লাখ, বিধবা ভাতার উপকারভোগী ৩ লাখ, অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা সাড়ে ৫ লাখ, জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচিতে ১০ হাজার চা-শ্রমিক ও অন্যান্য সুবিধা আরও ১৫ হাজারভোগী যুক্ত করা হবে। এজন্য বরাদ্দ বাড়ানো হচ্ছে।

সূত্র জানায়, আসন্ন বাজেটে বয়স্ক ভাতা বাড়ানো হচ্ছে না। তবে ভাতাভোগীর সংখ্যা ৪০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৪৪ লাখ এবং বরাদ্দ ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ হাজার ৪৬০ কোটি টাকা করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রতি মাসে ৫০০ টাকা হারে এ ভাতা দেয়া হয়। আগামী বাজেটে অসচ্ছল প্রতিবন্ধীদের ভাতার আওতা বাড়িয়ে ১৫ লাখ ৪৫ হাজারে উন্নীত করা হচ্ছে। এছাড়া, বর্তমানে ৯০ হাজার অসচ্ছল প্রতিবন্ধী পরিবারের ছেলেমেয়ে শিক্ষার বিভিন্ন স্তরে সর্বনিম্ন মাসিক ৭০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১ হাজার ২০০ টাকা করে বৃত্তি দেয়া হচ্ছে। আসছে বাজেটে প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত এই ভাতার পরিমাণ কিছুটা বাড়ানো হতে পারে।

ক্যান্সার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোক ও প্যারালাইসিসে আক্রান্ত গরিব রোগীদের এককালীন নগদ সহায়তা দেয় সরকার। বাজেটে গরিব রোগীদের জন্য নগদ সহায়তা বাড়ানো হবে। বর্তমানে ১৫ হাজার রোগী আর্থিক সুবিধা পাচ্ছেন। আসন্ন বাজেটে এই সংখ্যা দ্বিগুণ করা হচ্ছে। এছাড়া বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠী এবং তাদের ছেলেমেয়েরা মাসিক ভাতাসহ নানা সুবিধা পাচ্ছে। বর্তমানে ৬৪ হাজার জন এই সুবিধা ভোগ করছে। নতুন বাজেটে এই সংখ্যা ৮১ হাজারে উন্নীত করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। সূত্র জানায়, গত চলতি বাজেটের আওতায় বর্তমানে ৭ লাখ দরিদ্র মায়েদের মাতৃত্বকালীন ভাতা দেয়া হচ্ছে। নতুন অর্থবছরে এ সুবিধা দেয়া হবে ৭ লাখ ৭০ হাজার জনকে। এজন্য বরাদ্দ রাখা হচ্ছে ৭৩৯ কোটি ২০ লাখ টাকা।

এনভয় গ্রুপের চেয়ারম্যান কুতুবুদ্দিন আহমেদ করোনায় আক্রান্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এনভয় গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী কুতুবুদ্দিন আহমেদ। এখন তিনি রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন । গত সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন এনভয় গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সালাম মুর্শেদী। তিনি জানান, শারীরিকভাবে কিছুটা অসুস্থ অনুভব করায় তার করোনার পরীক্ষা করানো হয়। গত ২৩ মে টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এলে তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে বেক্সিমকোর ৬৫ লাখ পিপিই গাউন রপ্তানি

মোহাম্মদ কাওছার উদ্দীন

image

বিশ্বমানের ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পারসোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট বা পিপিই) উৎপাদনকারী দেশের কাতারে যোগ দিলো বাংলাদেশ।

৩১ মে লেনদেন চালুর প্রস্তুতি নিচ্ছে ডিএসই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঈদের পর ৩১ মে লেনদেন চালুর প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। এজন্য ডিএসইর সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে ৩১ মে অফিসে যোগদান করার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। রবিবার (২৪ মে) ডিএসইর চেয়ারম্যানের নির্দেশনার আলোকে মানব সম্পদ বিভাগ থেকে ডিএসইর সকল বিভাগের প্রধানের কাছে এ চিঠি পাঠানো হয়েছে।

sangbad ad

কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের দাবিতে ১৬ লাখ ৩৯৯৪৮ কোটি টাকার জাতীয় স্বপ্নবাজেট প্রস্তাবনা পেশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ২০ নং অনুচ্ছেদে অধিকার ও কর্তব্যরুপে কর্ম শীর্ষক (ক) অধ্যায়ে বলা হয়েছে: “কর্ম হইতেছে কর্মক্ষম প্রত্যেক নাগরিকের পক্ষে অধিকার, কর্তব্য ও সম্মানের বিষয়, এবং “প্রত্যেকের নিকট হইতে যোগ্যতানুসারে ও প্রত্যেককে কর্মানুযায়ী”-এই নীতির ভিত্তিতে প্রত্যেকে স্বীয় কর্মে জন্য পারিশ্রমিক লাভ করিবেন।

বহুজাতিক কোম্পানি পুঁজিবাজারে নিয়ে আসবো

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নব নিযুক্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল

এসএমই ব্যবসায়ীদের বিশেষ ঋণ পেতে সহায়তা করবে এফবিসিসিআই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাস চলাকালে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের ব্যবসায়ীদের সাথে

পরিবর্তিত বিশ্ববাণিজ্যের সুযোগ গ্রহণের সুযোগ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, কোভিড-১৯ পরবর্তী পরিবর্তিত বিশ্ববাণিজ্যের সুযোগ গ্রহণের সুযোগ এসেছে।

বিএসইসি চেয়ারম্যানকে বিএমবিএ-স্টেকহোল্ডার সোসাইটির অভিনন্দন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে

ভ্যাট রিটার্ন অর্ধেকে নেমেছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনার প্রভাবে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাট রিটার্ন জমা অর্ধেকে নেমে এসেছে। করোনার সংক্রমন ঠেকাতে প্রায় দুই মাস ধরে সাধারণ ছুটি চলছে। এই ছুটির মধ্যে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোর যেমন বেচাকেনা নেই, তেমনি মাসিক ভ্যাট রিটার্ন জমায় আগ্রহও নেই। নতুন ভ্যাট আইন অনুযায়ী, প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে আগের মাসের ভ্যাট রিটার্ন জমা দিতে হয়। গত শুক্রবার চলতি মাসের সময়সীমা শেষ হয়েছে। ওই দিন সারা দেশের ২৫২ টি সার্কেল অফিস বিশেষ ব্যবস্থায় খোলা রাখা হয়

sangbad ad