• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০

 

বাংলাদেশে প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৩.৮% : আইএমএফ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ০৬ জুন ২০২০

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

করোনাভাইরাস সঙ্কটের ধাক্কায় চলতি বছর বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনে প্রবৃদ্ধির হার ৩.৮ শতাংশে নেমে আসতে পারে বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-আইএমএফ।

কোভিড-১৯ সঙ্কট শুরুর আগে এই ঋণদাতা সংস্থা যে পূর্বাভাস দিয়েছিল, জিডিপি প্রবৃদ্ধির এই নতুন প্রাক্কলন তার ৩.৬ শতাংশ পয়েন্ট কম।

৩ জুন প্রকাশিত আইএমএফের কান্ট্রি রিপোর্টে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের অর্থনীতির ওপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব হবে মারাত্মক।

বিদেশি মুদ্রার সবচেয়ে বড় দুটো উৎস তৈরি পোশাক রপ্তানি ও রেমিটেন্স প্রবাহ ধারাবাহিকভাবে কমতে থাকায় বৈদেশিক লেনদেনের চলতি হিসাব ভারসাম্যে (ব্যালেন্স অব পেমেন্ট) ২.৯ বিলিয়ন ডলারের ঘাটতি তৈরি হবে বলেও মনে করছে আইএমএফ।

গত অর্থবছরে বাংলাদেশে ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছিল। এই অর্থবছরে তা ৮ দশমিক ২ শতাংশে নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ছিল।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে থাকায় বাংলাদেশে ২৬ মার্চ থেকে শাটডাউন শুরু হলেও এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে সরকারের অর্থমন্ত্রী প্রবৃদ্ধির হার ৮ শতাংশের কাছাকাছি হবে বলে আশার কথা শুনিয়েছিলেন।

এ সঙ্কট শুরুর আগে আইএমএফ বলেছিল, চলতি বছর বাংলাদেশ ৭.৪ শতাংশ বাড়তে পারে।

কিন্তু দুই মাসের লকডাউন তুলে সরকার যখন অর্থনীতির চাকা সচল করার চেষ্টায়, আইএমএফ এর প্রতিবেদনে তখন ৩.৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস এল।

তবে আগামী বছর ৫.৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধির যে পূর্বাভাস আইএমএফ দিয়েছিল, তাতে কোনো পরিবর্তন এখনও আনা হয়নি।

এর আগে এপ্রিলের মাঝামাঝি বিশ্ব ব্যাংকের পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার এ বছর ২-৩ শতাংশের মধ্যে নেমে আসতে পারে।

আর আগামী বছরে প্রবৃদ্ধির হার আরও কমে তা ১ দশমিক ২ শতাংশ থেকে ২ দশমিক ৯ শতাংশের মধ্যে হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়ে রেখেছে বিশ্ব ব্যাংক।

তাদের ওই পূর্বাভাস ‘সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়’ মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল তখন বলেছিলেন, মহামারীর প্রভাবে প্রবৃদ্ধি কমলেও তা ৬ শতাংশের ওপরে থাকবে।

মহামারীর অভিঘাত মোকাবেলায় সরকার আর্থিক প্রণোদনা আর সামাজিক নিরাপত্তায় যে তহবিল ঘোষণা করেছে, তার আকার ইতোমধ্যে এক লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। টাকার এই অংক বাংলাদেশের জিডিপির ৩ দশমিক ৭ শতাংশের মত।

ভাইরাসের ধাক্কা সামাল দিতে সরকারকে ১.৬৮ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিতে হচ্ছে, যার মধ্যে ৭৩২ মিলিয়ন ডলার আসবে আইএমএফের কাছ থেকে।

আইএমএফ বলছে, বছরের প্রথম প্রান্তিকে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির ধারা তাদের পূর্বাভাসের মতই এগোচ্ছিল। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড প্রায় স্থবির হয়ে যায়। ফলে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের শ্রমিকরা বড় ধরনের ঝুঁকিতে পড়ে।

এই সময়ে খাদ্য সরবরাহ ব্যবস্থা বিঘ্নিত হলেও মূল্যস্ফীতি মোটামুটি স্থিতিশীল আছে, যার পেছনে কৃষি খাতের ভালো ফলনের বড় ভূমিকা দেখছে আইএমএফ।

পাঁচ কোটি টাকায় ট্রেক বিক্রির সিদ্ধান্ত ডিএসই’র

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

পাঁচ কোটি টাকায় ট্রেক বা শেয়ারবাজারে লেনদেন মধ্যস্থতাকারী প্রতিষ্ঠান বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএসই। মাত্র ৬ লাখ টাকা দিয়েই ট্রেকের

পোশাক শ্রমিকদের কাজে যোগ না দেয়ার অভিযোগ মালিকপক্ষের

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শেষে নারায়ণগঞ্জে রপ্তানিমুখী বিভিন্ন তৈরি পোশাক কারখানা চালু হলেও

বিপিও শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রাইম ব্যাংক ও বাক্কোর সমঝোতা স্মারক সাক্ষর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্কো) করোনাভাইরাস

sangbad ad

বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষ সুবিধা বাংলাদেশ ব্যাংকের

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণে নীতিমালা সহজীকরণসহ বিশেষ সুবিধা

শেয়ারবাজারে বড় উত্থান সূচক-লেনদেন উভয় বেড়েছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

বুধবার (৮ জুলাই) বড় উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স...

জনপ্রিয় হচ্ছে এজেন্ট ব্যাংকিং ঋণ আমানত রেমিট্যান্স বাড়ছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

দেশে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে এজেন্ট ব্যাংকিং। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন এজেন্ট আউটলেট খোলা হচ্ছে এবং এই সব এজেন্ট আউটলেটে গ্রাহকের

১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খুলেই নগদ সহায়তা নেয়া যাবে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে যাদের মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব খোলা সম্ভব নয়, তারা ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খুলেও সরকারের নগদ অর্থ সহায়তা নিতে পারবে। ব্যাংকগুলো ১০ টাকায় আমানতসংবলিত হিসাবের মাধ্যমে এই অর্থ বিতরণ করতে পারবে। এর আগে শুধু বিকাশ, রকেট, নগদ ও শিওরক্যাশের মাধ্যমে অর্থ সহায়তা নেওয়ার সুযোগ ছিল। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

গত অর্থবছরে ৬৩০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি কমেছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি খাত হলো তৈরি পোশাক খাত। এই খাত থেকে রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশই আসে। কিন্তু করোনা

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেই শেয়ারবাজারে পতন

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

গত বৃহস্পতিবারের মতো রোববারও পতনে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। একইসঙ্গে কমেছে টাকার পরিমাণে লেনদেন।

sangbad ad