• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০

 

দুরবস্থায়ও বেড়েছে অধিকাংশ ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ০১ জানুয়ারী ২০২০

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

বেসরকারি খাতে ব্যাংকগুলোর ঋণ প্রবৃদ্ধি গত ১০ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে। আমদানি-রপ্তানি কমে যাওয়ায় কমেছে ব্যাংকের কমিশন আয়। ২০১৯ সালে বিপুল পরিমাণের ঋণখেলাপি হয়ে যাওয়ায় তার বিপরীতে পরিচালন আয় দেখাতে পারেনি ব্যাংকগুলো। শেয়ারবাজারের পরিস্থিতিও বছরজুড়ে খারাপ ছিল। এর মধ্যে আবার সুদহার কমানো নিয়ে বছরজুড়ে চাপে ছিল। এত সংকটের মধ্যেও পরিচালন মুনাফা বেড়েছে অধিকাংশ ব্যাংকের। যদিও শেষ পর্যন্ত নিট বা প্রকৃত মুনাফা কোথায় নামবে তা নিয়ে সংশয়ে আছেন ব্যাংকাররা।

ব্যাংকাররা জানান, ঋণ বিতরণের স্থিতি বৃদ্ধির কারণে সুদ আয় থেকে পরিচালন মুনাফা বেড়েছে। সার্ভিস চার্জ থেকেও ভালো আয় এসেছে। তবে পরিচালন মুনাফা বেশি হলেও নিট মুনাফা হয়তো বাড়বে না। কেননা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯ মাসে রেকর্ড ৩১ হাজার ১৭৫ কোটি টাকার খেলাপি ঋণ পুনঃতফসিল করার পরও অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে খেলাপি ঋণ ২২ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা বেড়ে এক লাখ ১৬ হাজার ২৮৮ কোটি টাকায় ঠেকেছে। অবশ্য ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে বিশেষ নীতিমালায় শেষ তিন মাসে আরও অনেক খেলাপি ঋণ পুনঃতফসিল হয়েছে। তবে পুনঃতফসিল করা এসব ঋণের শুধু যে, অংশ আদায় হবে তার বিপরীতে আয় দেখাতে পারবে ব্যাংক। ফলে শেষ পর্যন্ত নিট মুনাফার চিত্রটা এতটা ভালো হবে না।

জানা গেছে, পরিচালন মুনাফা কোন ব্যাংকের প্রকৃত মুনাফা নয়। কারণ পরিচালন মুনাফা থেকে ঋণের বিপরীতে নির্ধারিত হারে নিরাপত্তা সঞ্চিতি (প্রভিশন) সংরক্ষণ এবং সাড়ে ৩৭ শতাংশ হারে করপোরেট কর পরিশোধ করতে হয়। তারপরে যে অর্থ থাকে তাকে ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফার হিসাব ধরা হয়। নিট মুনাফার ওপর ভিত্তি করে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলো সাধারণ শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ দিয়ে থাকে। ফলে এসব ব্যাংকের মুনাফা নিয়ে শেয়ারবাজারে ব্যাপক আগ্রহ থাকে। আর এই কারণে মূল্য সংবেদনশীল বিবেচনায় শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা আগেভাগে প্রকাশের ওপর বাংলাদেশ ব্যাংক ও পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ব্যাংকগুলো বিএসইসির কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এ তথ্য দেয়ার পর স্টক এক্সচেঞ্জের ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হয়।

তবে নির্ভরযোগ্য সূত্রে ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফার তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) বিভিন্ন ব্যাংক থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্যে দেখা গেছে, ২০১৯ সালের ব্যাংকিং কার্যদিবস শেষে রাষ্ট্রায়ত্ত রূপালী ব্যাংকের মোট পরিচালন মুনাফা হয়েছে ১ হাজার ৫০ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ১ হাজার ১০ কোটি টাকা। ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা হয়েছে ২ হাজার ৮৮০ কোটি টাকা। আগের বছর ছিল ২ হাজার ৭৭০ কোটি টাকা। পূবালী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ৪০ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ১ হাজার ২৫ কোটি টাকা। সাউথইস্ট ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৫ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ১ হাজার ১২ কোটি টাকা। ইস্টার্ন ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৯০০ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৭৮০ কোটি টাকা। সিটি ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৮২৫ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৬৮১ কোটি টাকা। অন্যদিকে আল আরাফা ব্যাংক মুনাফা করেছে ৮০১ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৬৪০ কোটি টাকা। এক্সিম ব্যাংক মুনাফা করেছে ৭৮০ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৭৫০ কোটি টাকা। মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা হয়েছে ৭৫৩ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৬৭৩ কোটি টাকা। যমুনা ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৭৩০ কোটি টাকা। আগের বছর ছিল ৬২০ কোটি টাকা। সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা হয়েছে ৬৮২ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৬৬৭ কোটি টাকা। আইএফআইসি ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা হয়েছে ৬৭৫ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৫০৪ কোটি টাকা। এছাড়াও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৬৫৩ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৪৭৫ কোটি টাকা।

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা হয়েছে ৫৯১ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৫২৫ কোটি টাকা। অন্যদিকে পরিচালন মুনাফা কমেছে ন্যাশনাল ব্যাংকের। ২০১৯ সালে ব্যাংকটি পরিচালন মুনাফা করেছে ৯৪৮ কোটি টাকা, ২০১৮ সালে যা ছিল ১ হাজার ২২৯ কোটি টাকা। এদিকে বছরের ব্যাংকিং কার্যদিবস শেষে নতুন ব্যাংকগুলোর মধ্যে সাউথ বাংলা ব্যাংক মুনাফা করেছে ২২৮ কোটি টাকা, আগের বছর যা ছিল ২০৩ কোটি টাকা। একইভাবে এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক মুনাফা করেছে ২৬২ কোটি টাকা, যা আগের বছর ছিল ২০১ কোটি টাকা। মেঘনা ব্যাংক ২০১৯ সালে মুনাফা করেছে ১২৪ কোটি টাকা, ২০১৮ সালে ছিল ৯৩ কোটি টাকা।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ব্যাংকগুলো ২৬ হাজার ৬৩৯ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছিল।

অথচ নিট মুনাফা নেমেছিল ৪ হাজার ৩৯ কোটি টাকায়। এর আগের বছর ২০১৭ সালে ব্যাংকগুলো পরিচালন মুনাফা হয়েছিল ২৪ হাজার ৬৫০ কোটি টাকা। নিট মুনাফা হয়েছিল ৯ হাজার ৫১০ কোটি টাকা। এর মানে পরিচালন মুনাফা এক হাজার ৯৯০ কোটি টাকা বাড়লেও নিট মুনাফা কমেছিল ৫ হাজার ৪৭০ কোটি টাকা। গত বছর ব্যাংক খাতে নিট মুনাফা কমার অন্যতম কারণ হিসেবে খেলাপি ঋণ বৃদ্ধিকে চিহ্নিত করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এবার পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়েছে।

২৫ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে শোকজ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

২৫ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে কারণ দর্শনোর নোটিশ পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর

ঋণের কিস্তি শোধের সময় আরেক দফা বাড়লো

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাসের কারণে ব্যাংকের ঋণগ্রহীতাদের জন্য বিশেষ সুবিধার সময় আরেক দফা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কোনো ঋণগ্রহীতা ঋণ শোধ না করলেও খেলাপির তালিকায় দেখানো যাবে না। এ সুবিধা আগে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছিল।

পেশা বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চায় বিড়ি শ্রমিকরা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

পেশা বাঁচাতে বিড়ি শিল্পে নিয়োজিত অসহায়, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা, নদীভাঙন কবলিত মানুষ ও শারীরিক বিকলঙ্গ শ্রমিকরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

sangbad ad

বঙ্গবন্ধুর বিশ্ব রাজনীতির প্রতিষ্ঠানের কৃতী শিক্ষার্থী শেখ হাসিনা : শিল্পমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বিশ্ব রাজনীতির একটি প্রতিষ্ঠান আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হচ্ছেন সে প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে কৃতী শিক্ষার্থী।

ভার্চুয়াল ও শারীরিক উপস্থিতি দু’ভাবেই হতে পারে আগামী বাণিজ্য মেলা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাসের কারণে আগামী ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা অনলাইনে হতে পারে বলে প্রস্তাব করা হয়েছে।

২ পেট্রল পাম্পকে বিএসটিআই’র জরিমানা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

ওজন ও পরিমাপে কম দেয়ার অপরাধে ২ পেট্রল পাম্পসহ ৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পণ্যের মান প্রণয়ন এবং নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)।

করোনায় বাড়ছে পণ্যমূল্য ভোক্তাদের নাভিশ্বাস

নাজমুল হুদা

image

করোনা মহামারী সংকটে রয়েছে দেশের প্রায় সব পেশার মানুষ।

চিনিকল বন্ধ কিংবা শ্রমিক ছাঁটাইয়ের কোন পরিকল্পনা নেই :শিল্পমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকল বন্ধ কিংবা শ্রমিক ছাঁটাইয়ের কোন পরিকল্পনা শিল্প মন্ত্রণালয়ের নেই।

ছোট উদ্যোক্তাদের গুরুত্ব দিচ্ছে না রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকও

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

প্রণোদনা প্যাকেজের ঋণ বিতরণে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলো বড় উদ্যোক্তাদের যতটা গুরুত্ব দিচ্ছে ততটা গুরুত্ব দিচ্ছে না ছোট উদ্যোক্তাদের প্রতি।