• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০

 

এবারও কঠিন হবে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০১ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ :
  • রোকন মাহমুদ
image

বেসরকারি খাতে ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ করাও কঠিন হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, চলতি অর্থবছরের মুদ্রানীতিতে যে লক্ষ্য ধরা হয়েছে তা গত অর্থবছরের প্রকৃত প্রবৃদ্ধির চেয়ে বেশি। অর্থাৎ গত বছরের মুদ্রানীতির লক্ষ্য থেকে অনেক কম বিতরণ হয়েছে। এর মূল কারণ বাজারের ঋণের চাহিদা কম এবং ব্যাংকগুলোতে তারল্য সংকট। চলতি অর্থবছরের ঋণ বিতরণ লক্ষ্যও একই কারণে ব্যর্থ হবে। তবে মূল্যস্ফীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ হবে বলে মনে করছেন তারা। মুদ্রানীতি ঘোষণা বছরের একবার করার সিদ্ধান্তও মুদ্রাবাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য নয় বলে মনে করছেন অনেকে। তাদের মতে মুদ্রানীতি একটি প্রাক্কলন মাত্র। অর্থনীতির প্রাক্কলন যত অল্প সময়ের জন্য হয় ততই ভালো। এছাড়া বছরে একবার মুদ্রানীতি দেয়া হলে তা হয়ত বাজেটের মধ্যেই হারিয়ে যাবে এমন আশঙ্কাও রয়েছে তাদের। তবে যদি একবছরের জন্যও করা হয় তবে মধ্যবর্তী সময়ে পুনর্মূল্যায়ন (রিভিও) করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা।

বুুধবার ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এতোদিন বছরের দুই বার মুদ্রানীতি ঘোষণা হলেও চলতি মুদ্রানীতিটি করা হয়েছে পুরো বছরের জন্য। বছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণাতে বিশেষ কোন তাৎপর্য দেখছে না কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তাই বছরে একবারই মুদ্রানীতি ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গভর্নর ফজলে কবির। ঘোষিত মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ প্রাক্কলন করা হয়েছিল। কিন্তু অর্থবছর শেষে অর্জিত হয়েছে মাত্র ১১ দশমিক ৩০ শতাংশ। বেসরকারি খাতে কমলেও বাড়ানো হয়েছে সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য। ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ২৪ দশমিক ৩ শতাংশ। যদিও ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ১০ দশমিক ৯ শতাংশ ধরা হয়েছিল। কিন্তু অর্থবছরের শেষে অর্জিত হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ, তথা ২১ দশমিক ১ শতাংশ। তবে ঘোষিত মুদ্রানীতিতে রেপো ও রিভার্স রেপোর সুদহার যথাক্রমে ৬ ও ৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

এ বিষযে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ইব্রাহীম খালেদ বলেন, প্রাইভেট সেক্টরে ক্রেডিট গ্রোথের যে লক্ষ্য ধরা হয়েছে তা এবছরও ফেল করবে। কারণ এ খাতে ক্রেডিটের চাহিদা যেমন কম তেমন তারল্য সঙ্কটও রয়েছে। তবে চাহিদা কেন কম তা কেন্দ্রীয় ব্যাংককে গবেষণা করে বের করতে হবে। তবে মুদ্রাস্ফীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ হবে। কেননা মেগা প্রকল্পগুলোর বিনিয়োগও জিডিপিতে যোগ হয়। সুতরাং মেগা প্রজেক্টগুলো এবছরও চলমান রয়েছে।

বছরে একবার মুদ্রানীতি ঘোষণার বিষয়ে তিনি বলেন, এটি মনে হয় ঠিক হবে না। কারণ মুদ্রানীতি একটি প্রজেকশন মাত্র। আর প্রজেকশন যত কম সময়ের জন্য হয় ততই ভালো। তবে পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে নীতিগুলোকে সমন্বয় করা যায়। তবে যদি এক বছরের জন্যও করা হয় তবে মাঝখানে রিভিও করতে হবে। যাতে প্রকৃত চিত্র বোঝা যায়।

ড. সালেহ উদ্দিন গভর্নর থাকার সময় ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রথমবারের মতো অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণা করে। এর আগে বছরে একবারই মুদ্রানীতি ঘোষণা হত।

বুধবার মুদ্রানীতি ঘোষণা অনুষ্ঠানের লিখিত বক্তব্যে বছরে একবার মুদ্রানীতি ঘোষণার পক্ষে যুক্তি দিয়ে বর্তমান গভর্নর ফজলে কবির বলেন, প্রথাগতভাবে অর্থবছরের শুরুতে সমগ্র বছরের জন্য মুদ্রানীতি কার্যক্রম প্রণয়ন করা হয় এবং মধ্যবর্তীকালে যেকোন সময়ে নীতি সুদহার ও নগদ জমার/তারল্যের বিধিবদ্ধ হারসমূহকে প্রয়োজনসাপেক্ষে তাৎক্ষণিকভাবে পরিবর্তন করে প্রকাশ করা হয়। সুতরাং অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য আলাদাভাবে মুদ্রানীতি ঘোষণা বিশেষ কোন তাৎপর্য বহন করে না।

এ বিষয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলামও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বর্তমান অবস্থানের সঙ্গে একমত নন। তিনি বলেন, মুদ্রানীতি একটা স্বল্পমেয়াদি পলিসি টুল। এটা বছরে দু’বার হওয়া ভালো। বাংলাদেশে এমনিতে মুদ্রানীতি তেমন কাজ করে না, মুদ্রানীতির লক্ষ্যগুলো অর্জিত হয় না। কিন্তু মুদ্রানীতির কিছু সিগন্যালিং ইফেক্ট আছে। বছরে একবার হলে সেটাও আর থাকবে না।

বিএমডব্লিউ’র সাথে আইপিডিসি’র অটো লোন

image

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড ও জার্মান অটোমোবাইল, মোটরসাইকেল ও ইঞ্জিন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বিএমডব্লিউ যৌথভাবে একটি

ভরিতে সাড়ে ৩ হাজার টাকা কমল স্বর্ণের দাম

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বিশ্ববাজারে অস্বাভাবিক দরপতন হওয়ায় দেশের বাজারে কমল সব ধরনের স্বর্ণের দাম। প্রতি

মার্চে বেতন পাননি ১ লাখ ৪৭ হাজার পোশাক শ্রমিক

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

শ্রম অধিকার রক্ষা সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সংগঠন ক্লিন ক্লথ ক্যাম্পেইন (সিসিসি) সম্প্রতি একটি জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে। সেই ফলাফলে

sangbad ad

মধ্যপ্রাচ্যের সাত দেশ থেকে ১৪৮ কোটি ডলার রেমিট্যান্স

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

রেমিট্যান্স আহরণের দিক দিয়ে মধ্যপ্রাচ্য বাংলাদেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলয়। বাংলাদেশ সারাবিশ্ব থেকে যে পরিমাণ রেমিট্যান্স আহরণ

নারী-উদ্যোক্তা সহায়ক ডিরেক্টরি প্রকাশ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

এসএমই ফাউন্ডেশনের সহায়তায় প্রথমবারের মতো দেশের নারী-উদ্যোক্তাদের জন্য সহায়ক ১৪টি সংস্থার একটি ডিরেক্টরি প্রকাশ করেছে

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণ পুনর্গঠনের সময় বাড়লো

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকদের ঋণ পুনর্গঠনের সময় বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে ঋণ পুনর্গঠনে আগের চেয়ে দ্বিগুণ সময় বেশি পাবেন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের খেলাপিরা। রবিবার (৯ আগস্ট) বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

ডিএসই’র প্রধান সূচকের ব্যাপক উত্থান লেনদেন ছাড়ালো হাজার কোটি টাকা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

সংকট কাটিয়ে ঘুড়ে দাঁড়াচ্ছে দেশের শেয়ারবাজার। ৮ আগস্ট রোববার বৃহৎ শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক

করোনায় ব্যাংকিং লেনদেন কমেছে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

করোনাভাইরাসের প্রভাবে সারাবিশ্বে স্থবিরতা নেমে এসেছে। আমদানি-রপ্তানি থেকে শুরু করে অর্থনীতির সব সূচকের অবস্থা নেতিবাচক

লবণযুক্ত চামড়ার ন্যায্যমূল্যে নিশ্চিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

কোরবানির পশুর লবণযুক্ত চামড়ার সরকার নির্ধারিত ন্যায্যমূল্যে নিশ্চিতে তদারকি করতে অভিযান পরিচালনা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার