• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯

 

এবারও কঠিন হবে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০১ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ :
  • রোকন মাহমুদ
image

বেসরকারি খাতে ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ করাও কঠিন হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, চলতি অর্থবছরের মুদ্রানীতিতে যে লক্ষ্য ধরা হয়েছে তা গত অর্থবছরের প্রকৃত প্রবৃদ্ধির চেয়ে বেশি। অর্থাৎ গত বছরের মুদ্রানীতির লক্ষ্য থেকে অনেক কম বিতরণ হয়েছে। এর মূল কারণ বাজারের ঋণের চাহিদা কম এবং ব্যাংকগুলোতে তারল্য সংকট। চলতি অর্থবছরের ঋণ বিতরণ লক্ষ্যও একই কারণে ব্যর্থ হবে। তবে মূল্যস্ফীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ হবে বলে মনে করছেন তারা। মুদ্রানীতি ঘোষণা বছরের একবার করার সিদ্ধান্তও মুদ্রাবাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য নয় বলে মনে করছেন অনেকে। তাদের মতে মুদ্রানীতি একটি প্রাক্কলন মাত্র। অর্থনীতির প্রাক্কলন যত অল্প সময়ের জন্য হয় ততই ভালো। এছাড়া বছরে একবার মুদ্রানীতি দেয়া হলে তা হয়ত বাজেটের মধ্যেই হারিয়ে যাবে এমন আশঙ্কাও রয়েছে তাদের। তবে যদি একবছরের জন্যও করা হয় তবে মধ্যবর্তী সময়ে পুনর্মূল্যায়ন (রিভিও) করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা।

বুুধবার ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এতোদিন বছরের দুই বার মুদ্রানীতি ঘোষণা হলেও চলতি মুদ্রানীতিটি করা হয়েছে পুরো বছরের জন্য। বছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণাতে বিশেষ কোন তাৎপর্য দেখছে না কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তাই বছরে একবারই মুদ্রানীতি ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গভর্নর ফজলে কবির। ঘোষিত মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ প্রাক্কলন করা হয়েছিল। কিন্তু অর্থবছর শেষে অর্জিত হয়েছে মাত্র ১১ দশমিক ৩০ শতাংশ। বেসরকারি খাতে কমলেও বাড়ানো হয়েছে সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য। ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ২৪ দশমিক ৩ শতাংশ। যদিও ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ১০ দশমিক ৯ শতাংশ ধরা হয়েছিল। কিন্তু অর্থবছরের শেষে অর্জিত হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ, তথা ২১ দশমিক ১ শতাংশ। তবে ঘোষিত মুদ্রানীতিতে রেপো ও রিভার্স রেপোর সুদহার যথাক্রমে ৬ ও ৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

এ বিষযে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ইব্রাহীম খালেদ বলেন, প্রাইভেট সেক্টরে ক্রেডিট গ্রোথের যে লক্ষ্য ধরা হয়েছে তা এবছরও ফেল করবে। কারণ এ খাতে ক্রেডিটের চাহিদা যেমন কম তেমন তারল্য সঙ্কটও রয়েছে। তবে চাহিদা কেন কম তা কেন্দ্রীয় ব্যাংককে গবেষণা করে বের করতে হবে। তবে মুদ্রাস্ফীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ হবে। কেননা মেগা প্রকল্পগুলোর বিনিয়োগও জিডিপিতে যোগ হয়। সুতরাং মেগা প্রজেক্টগুলো এবছরও চলমান রয়েছে।

বছরে একবার মুদ্রানীতি ঘোষণার বিষয়ে তিনি বলেন, এটি মনে হয় ঠিক হবে না। কারণ মুদ্রানীতি একটি প্রজেকশন মাত্র। আর প্রজেকশন যত কম সময়ের জন্য হয় ততই ভালো। তবে পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে নীতিগুলোকে সমন্বয় করা যায়। তবে যদি এক বছরের জন্যও করা হয় তবে মাঝখানে রিভিও করতে হবে। যাতে প্রকৃত চিত্র বোঝা যায়।

ড. সালেহ উদ্দিন গভর্নর থাকার সময় ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রথমবারের মতো অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণা করে। এর আগে বছরে একবারই মুদ্রানীতি ঘোষণা হত।

বুধবার মুদ্রানীতি ঘোষণা অনুষ্ঠানের লিখিত বক্তব্যে বছরে একবার মুদ্রানীতি ঘোষণার পক্ষে যুক্তি দিয়ে বর্তমান গভর্নর ফজলে কবির বলেন, প্রথাগতভাবে অর্থবছরের শুরুতে সমগ্র বছরের জন্য মুদ্রানীতি কার্যক্রম প্রণয়ন করা হয় এবং মধ্যবর্তীকালে যেকোন সময়ে নীতি সুদহার ও নগদ জমার/তারল্যের বিধিবদ্ধ হারসমূহকে প্রয়োজনসাপেক্ষে তাৎক্ষণিকভাবে পরিবর্তন করে প্রকাশ করা হয়। সুতরাং অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য আলাদাভাবে মুদ্রানীতি ঘোষণা বিশেষ কোন তাৎপর্য বহন করে না।

এ বিষয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলামও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বর্তমান অবস্থানের সঙ্গে একমত নন। তিনি বলেন, মুদ্রানীতি একটা স্বল্পমেয়াদি পলিসি টুল। এটা বছরে দু’বার হওয়া ভালো। বাংলাদেশে এমনিতে মুদ্রানীতি তেমন কাজ করে না, মুদ্রানীতির লক্ষ্যগুলো অর্জিত হয় না। কিন্তু মুদ্রানীতির কিছু সিগন্যালিং ইফেক্ট আছে। বছরে একবার হলে সেটাও আর থাকবে না।

ব্রাজিলে রপ্তানি বাড়াতে এফটিএ চুক্তির বিষয়ে আশাবাদী বাণিজ্যমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

ব্রাজিলে তৈরি পোশাকসহ অন্যসব পণ্য রপ্তানি বৃদ্ধিতে নানা উদ্যোগ হাতে নিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এর একটি হচ্ছে ফ্রি ট্রেড এগ্রিমেন্ট (এফটিএ)।

পুঁজিবাজারে চার ডজন কোম্পানির পরিচালকের নেই ন্যূনতম শেয়ার

এস এম জাকির হোসাইন

image

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির উদ্যোক্তাদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ এবং পরিচালকের ব্যক্তিগতভাবে ২ শতাংশ শেয়ার থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৩১৭ কোম্পানির মধ্যে ৪৮

কর ফাঁকি রোধে অ্যাপ তৈরি করবে এনবিআর

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

রাজস্ব ও কর ফাঁকি রোধে সফটওয়্যার এবং মোবাইল অ্যাপ তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সফটওয়্যারের মাধ্যমে আয়কর বিভাগের ৬৪৯টি কর অঞ্চলকে মোবাইল অ্যাপের সঙ্গে যুক্ত

sangbad ad

ঋণ প্রবাহ বাড়ানোর সঙ্গে কমাতে হবে সুদহার : এফবিসিসিআই

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ৫৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহজলভ্য

ব্যাংকারদের আইসিটিতে দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) ‘ইউজ অব

বেসকারি ঋণে অর্জন হয়নি মুদ্রানীতির লক্ষ্য

রোকন মাহমুদ

image

বেসরকারি খাতে ব্যাংকের ঋণপ্রবাহ কমছেই। এমনকি গত ছয় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন ঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। গত জুন পর্যন্ত বার্ষিক

রুগ্ণ পুঁজিবাজারে পতন হচ্ছে আরও

রোকন মাহমুদ

image

রুগ্ণ পুঁজিবাজার দিন দিন আরও জীর্ণশীর্ণ হচ্ছে। নানা অনিয়মে প্রাইমারি বাজারে বন্ধ হয়েছে নতুন কোম্পানির আবেদন গ্রহণ। আর সেকেন্ডারি

পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে দাঁড় করাতে চান অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

পুঁজিবাজারের চলমান দুরবস্থায় বিনিয়োগকারীরা যখন রাস্তায় তখন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানালেন, পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে

২০২১ সাল থেকে সকল স্কুল-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশে প্রতি বছর ২২ লাখ লোক শ্রমবাজারে প্রবেশ করে, কিন্তু কর্মসংস্থানের জন্য যে পরিমান দক্ষতা দরকার তা তাদের নাই। ফলে অধিকাংশই

sangbad ad