• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯

 

অসাধু ব্যাংক কর্মকর্তাদের ছাড় নয় : অর্থমন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ১৩ মার্চ ২০১৯

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

অসাধু ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি অসাধু ব্যাংক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, খেলাপি ঋণ আর যেন না বাড়ে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। অসাধু ব্যবসায়ীদের তো ধরা হবেই, যেসব ব্যাংক কর্মকর্তা সাহায্য করবে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। ১৩ মার্চ বুধবার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জনতা ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ খেলার জায়গা নয়। যারা এ সম্পর্কে জানেন না, তাদের পর্ষদে রাখব না। তবুও কোনভাবে যেন ঋণখেলাপি না বাড়ে। একজন অসাধু অফিসার সাফল্য ম্লান করে দিতে পারেন। ১০টি ভালো কাজের পর একটি খারাপ করলেও সবাই বলবে ‘সব নিয়ে চলে গেছে’। যিনি অন্যায় করেন আর অন্যায়ে সহায়তা করেন- অপরাধ তো একই। পরিচালক নিয়োগে অনেক সুপারিশ সামলাতে হয় জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, অভিজ্ঞতা ছাড়া পরিচালক নিয়োগ দেয়া হবে না। তিনি জানান, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীন সব প্রতিষ্ঠান দুর্নীতিতে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে চলবে বলে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেছেন। এর জন্য ব্যাংক কর্মকর্তাদের দুর্নীতি না করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক শপথ করাতে চান তিনি। তিনি বলেন, হাত তুলে শপথ করতে হবে যে আপনারা দুর্নীতিকে ‘নো’ বলবেন। নিজে দুর্নীতি করবেন না, অন্য কাউকে দুর্নীতিতে সহায়তা করবেন না। অসৎ কাজ থেকে সবসময় দূরে থাকতে হবে। যারা অসাধু ব্যবসায়ী, তাদের সঙ্গে আমরাও থাকি। আমরা যারা আছি, তাদেরও কোনভাবে ছাড় দেয়া হবে না। যারা তাদের প্রশ্রয় দিয়েছেন, তাদের বের করা খুব কঠিন নয়। তবে অপরাধ স্বীকার করলে ক্ষমা করা হবে মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী বলেন, সবাইকে ঠিক পথে নিয়ে আসব। কেউ অপরাধ করে আসলে ভিন্ন পথে যদি টাকা নিয়ে থাকে- তা যদি ফেরত দিতে পারে, গোপনে আমাকে বললেও মাফ করে দেব।

লিজ ফাইন্যান্সিং প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিশেষ নিরীক্ষার আওতায় আনা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, দু’একটি বাদ দিলে কোন প্রতিষ্ঠানেই ফোন করে কাউকে পাওয়া যায় না। প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানে স্পেশাল অডিট করব। তবে কাউকে ছোট করার জন্য নয়, কাউকে জেলে পাঠানোর জন্য নয়। প্রমাণ না পাওয়া পর্যন্ত পদক্ষেপ নেব না। আর্থিক খাতে অপচয় কমাতে প্রযুক্তিগত পরিবর্তন নিয়ে আসার কথাও বলেন মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, ব্লকচেইন টেকনোলজি নিয়ে আসতে হবে। একটি কমপ্রিহেনসিভ টেকনোলজিতে আনতে হবে, যাতে সবাই একই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে। বিভিন্ন ধরনের টেকনোলজি ব্যবহারে অপচয় বাড়ে।

সৎ ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, যারা ব্যবসার পরিবেশ পরিস্থিতির কারণে ‘খারাপ অবস্থানে’ চলে গেছেন তাদের সহযোগিতা করতে হবে। একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শুরু করা অনেক কঠিন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার জন্য আসি নাই। যারা ভালো ব্যবসায়ী তাদের অনেক সহায়তা করব। আমরা যা করব, সততার মধ্যে করব। এমনভাবে পলিসি করব যাতে সবাই উপকৃত হয়।

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা উন্নত হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, চলতি অর্থবছরে জিডিপির লক্ষ্যমাত্রা ৮ দশমিক ১৫ থেকে ৮ দশমিক ২৫ শতাংশ। ইতোমধ্যেই যেটুকু তথ্য এসেছে তাতে লক্ষ্যমাত্রার কাছাকাছি চলে এসেছি। আর কয়েকটি মাস বাকি আছে। আশা করি তা পূরণ করতে সক্ষম হব।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ব্যাংক খাতে মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ৯৯ হাজার ৩৭১ কোটি টাকা। খেলাপি হওয়া ঋণের পরিমাণ কম দেখাতে গত ফেব্রুয়ারি মাসে ঋণ অবলোপন (রাইট অফ) নীতিমালা শিথিল করে বাংলাদেশ ব্যাংক। খেলাপি ঋণের পরিমাণ ২০১৮ সালে উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে স্বীকার করে জনতা ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে উপস্থিত গভর্নর ফজলে কবির বলেন, খেলাপি ঋণ বেড়েছে, যদিও এটি জনতা ব্যাংকের একার বিষয় না, পুরো ব্যাংকিং খাতে এটা বড় একটা চ্যালেঞ্জ। এ টাকা যেন আর বৃদ্ধি না হয়। শীর্ষ খেলাপিদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে, খেলাপি ঋণের পরিমাণ কমিয়ে আনতে পলিসি গ্রহণ করতে হবে। খেলাপি ঋণের মামলা না করে আদায়ের চেষ্টা করবেন। মামলা করবেন অবশ্যই, তবে কুইক ডিসপোজেবলের জন্য নয়। ঋণ দেয়ার সময়ই সতর্ক হয়ে দিতে হবে।

জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান লুনা সামসুদ্দোহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অর্থ সচিব আবদুুর রউফ তালুকদার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম প্রমুখ।

পুঁজিবাজারে চার ডজন কোম্পানির পরিচালকের নেই ন্যূনতম শেয়ার

এস এম জাকির হোসাইন

image

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির উদ্যোক্তাদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ এবং পরিচালকের ব্যক্তিগতভাবে ২ শতাংশ শেয়ার থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৩১৭ কোম্পানির মধ্যে ৪৮

কর ফাঁকি রোধে অ্যাপ তৈরি করবে এনবিআর

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

রাজস্ব ও কর ফাঁকি রোধে সফটওয়্যার এবং মোবাইল অ্যাপ তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সফটওয়্যারের মাধ্যমে আয়কর বিভাগের ৬৪৯টি কর অঞ্চলকে মোবাইল অ্যাপের সঙ্গে যুক্ত

ঋণ প্রবাহ বাড়ানোর সঙ্গে কমাতে হবে সুদহার : এফবিসিসিআই

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ৫৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে সরকার। এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহজলভ্য

sangbad ad

এবারও কঠিন হবে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ

রোকন মাহমুদ

image

বেসরকারি খাতে ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যপূরণ করাও কঠিন হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, চলতি

ব্যাংকারদের আইসিটিতে দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) ‘ইউজ অব

বেসকারি ঋণে অর্জন হয়নি মুদ্রানীতির লক্ষ্য

রোকন মাহমুদ

image

বেসরকারি খাতে ব্যাংকের ঋণপ্রবাহ কমছেই। এমনকি গত ছয় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন ঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। গত জুন পর্যন্ত বার্ষিক

রুগ্ণ পুঁজিবাজারে পতন হচ্ছে আরও

রোকন মাহমুদ

image

রুগ্ণ পুঁজিবাজার দিন দিন আরও জীর্ণশীর্ণ হচ্ছে। নানা অনিয়মে প্রাইমারি বাজারে বন্ধ হয়েছে নতুন কোম্পানির আবেদন গ্রহণ। আর সেকেন্ডারি

পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে দাঁড় করাতে চান অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

পুঁজিবাজারের চলমান দুরবস্থায় বিনিয়োগকারীরা যখন রাস্তায় তখন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানালেন, পুঁজিবাজারকে শক্ত ভিত্তিতে

২০২১ সাল থেকে সকল স্কুল-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশে প্রতি বছর ২২ লাখ লোক শ্রমবাজারে প্রবেশ করে, কিন্তু কর্মসংস্থানের জন্য যে পরিমান দক্ষতা দরকার তা তাদের নাই। ফলে অধিকাংশই

sangbad ad