• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

 

হাত বাড়ালেই হাই-ভোল্টেজ তার! আতঙ্কে শতাধিক পরিবার

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)
image

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া ও চাপালী কুঠিপাড়া গ্রামের উপর দিয়ে যাওয়া ৩৩ হাজারের ‘হাই-ভোল্টেজ’ তারের নিচে চরম ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করছে প্রায় শতাধিক পরিবারের লোকজন। এ বিভাগের নিয়ম অনুসারে ‘হাই-ভোল্টেজ’-এ তারের সঞ্চালন লাইনের নিচে কোন বসতবাড়ি বা স্থাপনা থাকার কথা না। পাশে কমপক্ষে ১০ ফুট ফাঁকা থাকতে হবে। কিন্তু বসতঘরের পাশ ঘেষেই ঝুলছে চরম ঝুঁকিপূর্ণ হাই ভোল্টেজের বিপজ্জনক তার। এ সমস্যা থেকে রেহাই পেতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত আবেদন করলেও সমাধানে কর্তৃপক্ষের কোন নজর নেই।

সরেজমিনে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার আড়পাড়ার মধূপট্টি, নদীপাড়া, মাঠপাড়া,দরগাপাড়া,চাপালী কুঠিপাড়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণভাবে ঝুলে আছে ৩৩ হাজার হাই-ভোল্টেজের সঞ্চালন বিদ্যুত লাইনের তার।

আড়পাড়া দরগাপাড়া গ্রামের ব্যাংকার মোজাম্মেল হক ও পল্লী চিকিৎসক আব্দুল জব্বার জানান, তাদের বসতঘরের একবারে নিকট দিয়ে চলে গেছে হাই ভোল্টেজের এ বিদ্যুৎ লাইন। যে কারণে সব সময় পরিবারের শিশুদের নিয়ে চিন্তায় থাকতে হয়।

এ এলাকার আরেক বাসিন্দা হাবিব ওসমান জানান, আজ থেকে ৪০ বছর আগে বিদ্যুতের লাইনটি টানা হয়। তখন এতো জনবসতি ছিলনা। এখন ঘনবসতি গড়ে উঠেছে। আবার উদাসীনতার কারণে অনেকে বিপদজনক তার ঘেষেই ঘর তুলেছেন। এ এলাকায় অহরোহ ঘটছে দুর্ঘটনা। এলাকার সচেতন মহল দীর্ঘদিন ধরে তাদের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার কথা সংশ্লিষ্ট বিভাগকে জানালেও কোন সুরাহা হয়নি। এ সমস্ত এলাকার বাসিন্দারা জানান, তাদের বাসাবাড়ির ছাদ বা ঘরের অল্প ওপর দিয়েই চলে গেছে লাইন। যে কারণে অনেকে ঘরও করতে নির্মাণ করতে পারছে না। বসত বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়া বিপদজনক এই তারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যদি কভার পরানো দিয়ে তাহলেও কিছুটা হলেও নিরাপদে বসবাস করতে পারত।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকোর) ভারপ্রাপ্ত আবাসিক প্রকৌশলী সাইদুল ইসলাম জানান, এটা অনেক আগে স্থাপিত হয়েছে। এ বিষয়ে ৩ মাস আগে ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আমি বিদ্যুৎ এলাকাটি সরেজমিনে পরিদর্শন করি। তিনি জানান, আসলেই পরিবারগুলো খুবই ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছে। বিষয়টি উপরের কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

প্রথম দিনে রাজধানীতে ৮৮টি মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নানা সমালোচনার পর মামলা ও জরিমানা আদায়ের মাধ্যমে কার্যকর শুরু হয়েছে নতুন সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮। ১৮ নভেম্বর

প্রভাবশালীল প্রভাবে হিন্দু পরিবারের জমিতে পুকুর-কারখানা !

প্রতিনিধি, বোয়ালমারী (ফরিদপুর)

image

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে অসহায় এক পরিবারের অর্ধকোটি টাকার সম্পত্তি দখল করার অভিযোগ পাওয়া গেছে

র‌্যাব’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলমকে তলব করেছেন হাইকোর্ট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মোবাইল কোর্টে সাজা দেয়ার পর কয়েক মাস অতিবাহিত হলেও সার্টিফায়েড কপি না দেয়ায় র‌্যাব’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলমকে

sangbad ad

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭

নিরুপম দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম ব্যুরো

image

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের পর দেয়াল ধসে নারী শিশুসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১০ জন। ১৭ নভেম্বর রোববার

অতিরিক্ত ফি প্রদানে ব্যর্থ ও অপমানিত এসএসসি প্রার্থীর স্ট্রোকে মৃত্যু!

প্রতিনিধি, বদলগাছী (নওগাঁ)

image

পত্নীতলায় এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়ে অভিভাবকরা

বুলবুলের পর সুন্দরবনে বইছে অনুপ্রবেশের প্রবাহ

শুভ্র শচীন, খুলনা

image

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে এবার রাসউৎসব বাতিল করা হলেও বনরক্ষীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাস উৎসবকালীন বিপুল সংখ্যক লোক ট্রলার

নুসরাত হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত ১৬ আসামির জেল আপিল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৬ আসামি জেল আপিল করেছে। আবেদনগুলো ফেনীর জেলা কারা

আবরার হত্যাকাণ্ডে ২৫ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা

দুই ট্রেনের সংঘর্ষ : নিহত ১৬

মো. সাদেকুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মন্দভাগে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হয়েছে। আহত

sangbad ad