• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮

 

স্ত্রী হত্যা মামলায় আমরা কঠোর, খুবই কঠোর

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

স্ত্রী হত্যার এক মামলায় স্বামীর জামিনের শুনানিকালে হাইকোর্ট বলেছেন, ‘স্ত্রী হত্যা মামলায় আমরা কঠোর, খুবই কঠোর।’ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) স্ত্রী হত্যা মামলায় বিচারিক আদালতে যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত স্বামী মাসুদ ব্যাপারীর জামিনের শুনানিকালে তার আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এই মন্তব্য করেন।

আদালতে আসামি মাসুদ ব্যাপারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী গোপাল চন্দ্র। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ। জামিন শুনানিতে আইনজীবী গোপাল চন্দ্র আদালতকে বলেন, ‘মাসুদ ব্যাপারী তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে, এমন কোনও তথ্য-প্রমাণ বিচারিক আদালতে কেউ উপস্থাপন করেননি। তবুও বিচারিক আদালত তাকে দণ্ড দিয়েছেন। তিনি স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেননি। তাই এ মামলায় হাইকোর্টে আপিল শুনানিকালে তার অন্তর্বর্তী জামিন চাচ্ছি।’ এ সময় আদালত বলেন, ‘তিনি স্ত্রীকে হত্যা না করলে ওই সময় তিনি তার (স্ত্রীর) পাশে না থেকে পালিয়ে থেকেছেন কেন? এমনকি বিচারিক আদালতে মামলা চলাকালেও তিনি (আসামি মাসুদ) পালিয়ে ছিলেন। তাই পারিপার্শ্বিক বিবেচনায় আমরা তার জামিন দেব না। স্ত্রী হত্যা মামলায় আমরা কঠোর, খুবই কঠোর।’

পরে আইনজীবী গোপাল চন্দ্র সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিচারিক আদালতের রায় ঘোষণার পর মাসুদ ব্যাপারী আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। বর্তমানে তিনি কারাগারেই আছেন। আমরা তার সাজার বিরুদ্ধে আপিল ও অন্তর্বর্তী জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানাই। কিন্তু আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

আইনজীবী গোপাল চন্দ জানান, ২০১১ সালের ৬ মে ঢাকার দোহারের মধুরচর গ্রামে নুরুন্নাহার আক্তার মণি (২৬) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়। এই মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের বাবা আবদুল মালেক মোল্লা বাদী হয়ে নিহতের স্বামী মাসুদ ব্যাপারী, তার বাবা-মা, এক বোন ও তার তিন চাচাসহ মোট সাত জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার অভিযোগে বলা হয়, মণির শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। অভিযোগ অনুযায়ী বাদীপক্ষ বিচারিক আদালতে কোনও প্রতিবেদন উপস্থাপন করতে পারেনি। তবুও ঢাকার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-৫ এ মামলায় অভিযোগ গঠন করেন। এরপর মোট ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত। কিন্তু মামলা চলাবস্থায় বাদী (নিহতের বাবা আবদুল মালেক) মারা যাওয়ায় তিনি সাক্ষ্য দিতে পারেননি। এরপর গত ২২ ফেব্রুয়ারি আদালত এই মামলার রায় দেন। সেই রায়ে মাসুদ ব্যাপারীকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়ে মামলার অন্য আসামিদের খালাস দেয়া হয়।

নারী জঙ্গিবাদ ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জঙ্গি তৎপরতায় নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবি, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, আনসার আল-ইসলামসহ জঙ্গি গ্রুপগুলোতে

গ্রেফতার দুলাভাই শ্যালিকাকে হত্যা করে আত্মহত্যার নাটক দেখিয়েছিলেন!!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর মগবাজারে বৈকালী আবাসিক হোটেলে শ্যালিকা বৃষ্টিকে প্রথমে শ্বাসরোধে

চট্টগ্রামে অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকর্তা শ্রীঘরে

চট্টগ্রাম ব্যুরো

image

চট্টগ্রামে অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন একটি আদালত। মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) মহানগর স্পেশাল জজ ও মহানগর দায়রা

sangbad ad

মাদকসেবীকে পুলিশে দেয়ায় সেলুন কর্মচারীকে এসিড নিক্ষেপ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর মিরপুর-১১ নম্বর সেকশনে মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় এবং মাদকসেবীকে

খোকসায় নিম্নমানের খুঁটিতে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর!

সুমন কুমার মণ্ডল, খোকসা (কুষ্টিয়া)

image

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প’ ‘যার জমি আছে ঘর নাই, তার নিজ

‘মেয়ে তো ফিরে এলো কিন্তু লাশ হয়ে’

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মেয়ে তো ফিরে এলো, কিন্তু লাশ হয়ে। কত কষ্টে এই মেয়েকে মানুষ করেছি। একমাত্র আল্লাহ ছাড়া আর কেউ জানে না। ঈদের দিন বিকাল থেকে মেয়ে বন্যাকে

পিজিসিবির অপটিক্যাল ফাইবার লিজ নিল গ্রামীণফোন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

বিদ্যুতের জাতীয় গ্রিড লাইনের উপর স্থাপিত অপটিক্যাল ফাইবারের একাংশ গ্রামীণফোনকে লিজ

রাজধানীতে বাস-লেগুনা সংঘর্ষ শিশুসহ নিহত তিন, আহত ১২

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর রূপনগরে বাস-লেগুনা সংঘর্ষে শিশুসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- লেগুনা চালক হান্নান (১৮), লেগুনা যাত্রী শহিদুল সিকদার

শ্রীপুরে প্রতিবন্ধী শিশুকে ধর্ষণ গ্রেফতার ১

প্রতিনিধি, শ্রীপুর (গাজীপুর)

গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার শিরিশগুড়ি গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ

sangbad ad