• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০

 

সুবর্ণচরে গণধর্ষণ মামলার সাক্ষী ছেলের কান্নায় ভারাক্রান্ত আদালত

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০৪ নভেম্বর ২০১৯

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, নোয়াখালী
image

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষে ভোট দেয়ায় আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমিনের নেতৃত্বে গৃহবধূকে গণধর্ষণের মামলায় বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সাক্ষী দেন ভিকটিম গৃহবধূর ছেলে আবদুল কুদ্দুছ।

সকাল ১১টায় নোয়াখালী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা জজ) শামছু উদ্দিন খালেদের আদালতে পিপি মামুনুর রশিদ লাবলু সাক্ষীর জবানবন্দি নেন। পিপি জানান, জবানবন্দি দিতে উঠে ভিকটিমের ছেলে আবদুল কুদ্দুছ আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন এবং ৩০ ডিসেম্বর ভয়াল কাহিনী বলতে গিয়ে তার চোখের পানি গড়িয়ে পড়ছিল। সে আদালতে জানায়, রাত সাড়ে আটটার দিকে মা-বাবা, ভাই-বোনসহ ঘুমিয়ে পড়ে। রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে আসামি সালাহ উদ্দিনের ডাকে ঘুম ভাঙ্গে। তার মা ঘরের দরজা খুলে দিলে হুড় মুড়িয়ে আসামি রুহুল আমিন, হানিফ, বেচু, ভুলু, জসিম ঘরে ডুকে পড়ে। তাকে, তার বাবা, বোন, ভাইকে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে বেঁধে ফেলে এবং তার মাকে জোর পূর্বক ঘরের বাইরে নিয়ে যায়। এর কয়েক ঘণ্টা পর তার বাবার হাতের বাঁধন খুলে যাওয়ার পর বাবা তাদের বাঁধন খুলে দেয়। তারা ঘরের বাহিরে পাক ঘরের পিছনে বাগানের পাশে গিয়ে তার মাকে রক্তাক্ত, অজ্ঞান ও বস্ত্রহীন অবস্থায় পায়। এ বলে কুদ্দুছ কাঁদতে থাকে। কান্না থামিয়ে আদালতে বলেন, পরদিন ভোরে একটি সিএনজি টেক্সি আনে মাকে হাসপাতালে নেয়ার জন্য। কিন্তু রুহুল আমিনের ধমকে সিএনজি চলে যায়। পরবর্তীতে মাইজদী থেকে অ্যাম্বুলেন্স এনে তার মাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। কান্নাজড়িত কণ্ঠে কুদ্দুস বলেন, আসামিরা তার মাকে ধর্ষণ করেছে, রক্তাক্ত করেছে এবং হত্যার চেষ্টা করেছে।

পিপি মামুনুর রশিদ লাবলুকে সহায়তা করেন সিনিয়র আইনজীবী মোল্লা হাবিবুর রসুল মামুন। এরপর আসামি পক্ষে জেরা করেন অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট হারুনুর রসিদ হাওলাদার।

উল্লেখ্য যে, ৩১ অক্টোবর বাদী পক্ষে দেয়া বাদীকে হুমকি দেয়া, বাদীকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে মামলাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করা আবেদনের প্রেক্ষিতে চরজব্বর থানাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য আদালত নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার পরবর্তী সাক্ষীর তারিখ ১৪-১১-১৯ইং বৃহস্পতিবার ধার্য করা হয়েছে।

সিলেটে বিভাগে আরও ৪১ জনের করোনা শনাক্ত

প্রতিনিধি, সিলেট

image

সিলেট বিভাগে আরও ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার ঢাকা, সিলেট ও ময়মনসিংহের তিনটি ল্যাবে পৃথক পরীক্ষায় ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১৯, সুনামগঞ্জে ৯, হবিগঞ্জে ৫ ও মৌলভীবাজারে ৮ জন রয়েছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা দাড়িয়েছে ৬৯৭ জনে। বিভাগের চার জেলার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আনিসুর রহমান।

চলে গেলেন ডেপুটি স্পিকারের স্ত্রী আনোয়ারা রাব্বী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সহধর্মিনী আনোয়ারা রাব্বী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)। আজ মঙ্গলবার ২৬ মে বেলা পৌনে ১১টায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৭ বছর।

মির্জাপুরে এক পুলিশ সদস্যসহ ৬ জনের করোনা শনাক্ত

প্রতিনিধি, মির্জাপর (টাঙ্গাইল )

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ঈদের দিনেএক পুলিশ সদস্যসহ ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম। গত ২০ মে

sangbad ad

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী করোনা আক্রান্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত অ্যান্টিজেন কিট দিয়ে

এ এক অন্যরকম ঈদ

ওয়ালিয়ার রহমান

image

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। আজ নেই আনন্দ, নেই হাসিমুখ, নেই আতরের গন্ধমাখা হাসিমুখের কোলাকুলি। এ যেন এক অন্যরকম ঈদ। করোনাভাইরাসের কারণে আতঙ্ক নিয়ে আজ আমরা এমন ঈদ উদযাপন করছি । যা আগে কেউ দেখেনি।

সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা : সংবাদ সম্পাদক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দৈনিক সংবাদের সকল পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা, শুভাকাঙ্খী ও শুভানুধ্যায়ীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা । ঈদ সবার জীবনের বয়ে আনুক অনাবিল সুখ আর আনন্দ-সম্পাদক

করোনায় মারা গেলেন আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুল হোসেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। ২৪ মে রোববার রাত ৯টার দিকে রাজধানীর একটি

এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম মাসুদের মা ও ছেলে করোনায় আক্রান্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়িক গোষ্ঠী এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম মাসুদের মা ও ছেলেরও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। শনিবার বিআইটিআইডির ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় সাইফুলের মা চেমন আরা বেগম (৮৫) এবং ছেলে ইউনিয়ন ব্যাংকের চেয়ারম্যান আহসানুল আলমের (২৬) করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে বলে তার ভাগ্নে আরিফ আহমেদ জানান।

চট্টগ্রামের ৭ উপজেলার অর্ধশত গ্রামে আজ ঈদ

প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম

image

সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতটি উপজেলার অর্ধশত গ্রামে আজ

sangbad ad