• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮

 

সারা শরিরে ক্ষত শিশুটি এক শিক্ষিত পরিবারের গৃহপরিচারিকা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৭

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

শিশুটির নাম সুরমা বয়স নয় বছর। স্কুলে পাঠানোর বয়সে অভাবের কারণে মা এক স্কুল শিক্ষকের বাড়িতে গৃহপরিচারিকার কাজ করতে পাঠান তাকে। এতটুকু মেয়ের কাজের বিনিময়ে ভালোবাসার বদলে কপালে জুটেছে নির্মম নির্যাতন। তার সারা শরীরে এখন গরম খুন্তির ছ্যাঁকার ক্ষত। কোনো কোনো ক্ষত দগদগে ঘা হয়ে গেছে। ভোলা সদর হাসপাতালে এখন চিকিৎসা চলছে তার।

অভিযোগ উঠেছে, ভোলার মনপুরা উপজেলার উত্তর সাকুচিয়ার ভকেশনাল স্কুলের সহকারী শিক্ষক সাইদুর রহমানের বাড়িতে কাজ করত সুরমা। সেখানেই সাইদুরের স্ত্রী মিনারা বেগম সুরমার ওপর এই নির্মম নির্যাতন চালান। এ ঘটনায় সুরমার মা আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে স্কুলশিক্ষক দম্পতির নামে মনপুরা থানায় মামলা করেছেন।

সুরমার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তাদের বাড়ি তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ কেয়ামুল্যাহ গ্রামে। সে মুনাফ আলী বাড়ির মৃত ফজলুল রহমানের মেয়ে। স্বামীর মৃত্যুর কয়েক মাস পর তার মা আনোয়ারা বেগম আবারও বিয়ে করেন। সে সময় মাত্র ৮০০ টাকা বেতনে সুরমাকে মনপুরা উপজেলার ওই শিক্ষকের বাড়িতে গৃহপরিচারিকার কাজ করতে পাঠান। শর্ত ছিল, সুরমাকে ওই শিক্ষক তিনবেলা খাবার ও পোশাক দেবেন। সঙ্গে তাকে পড়াশোনাও করাবেন।

সুরমার মা আনোয়ারা বলেন, পাশের বাড়ির হাজি দিলাওয়ার হোসেন তাঁর মেয়ে মিনারার বাড়িতে কাজ করার কথা বলে সুরমাকে নিয়ে যান। সুরমাকে নিয়ে যাওয়ার পর তার সঙ্গে আর দেখা হয়নি।

সুরমা জানায়, কারণে-অকারণে মিনারা তাকে শারীরিক নির্যাতন করতেন। গরম খুন্তি দিয়ে ছ্যাঁকা দিতেন। সে যন্ত্রণায় চিৎকার করত, কিন্তু তাকে কোনো ওষুধ দেওয়া হতো না। এ কারণে ছ্যাঁকার ক্ষতগুলো এখন ঘা হয়ে গেছে।

আনোয়ারা বেগম আরও বলেন, নির্যাতনে সুরমার অবস্থা খারাপ হলে মিনারার বাবা-ভাই গোপনে মনপুরা থেকে তাকে তজুমদ্দিন নিয়ে আসেন। সেখানে গোপনে চিকিৎসা করেন। খবরটি জানতে পেরে তিনি মিনারার বাবা দিলাওয়ারের বাড়িতে যান। সেখানে সুরমার মর্মান্তিক অবস্থা দেখে অচেতন হয়ে পরেন। এ সময় ঘটনাটি কাউকে জানাতে তাঁকে নিষেধ করা হয়। পরে স্থানীয় লোকদের সহযোগিতায় সুরমাকে গত বৃহস্পতিবার প্রথমে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ও পরে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ভোলা সদর হাসপাতালের নারী সার্জারি ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, পুষ্টিহীনতায় ভোগা ছোট্ট সুরমার সারা শরীরে জখমের চিহ্ন। কোথাও কোথাও দগদগে ঘা। চোখ দুটি ফুলে উঠেছে তার। থেকে থেকে কেবল কাঁদছে।

ভোলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) তৈয়বুর রহমান বলেন, ভর্তির সময় সুরমার অবস্থা গুরুতর ছিল। শিশুটিকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তার শরীরে অনেক ক্ষত। চিকিৎসা চলছে, তবে এখনো বিপদমুক্ত নয়।

মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিন খান বলেন, সুরমার মা আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে স্কুলশিক্ষক সাইদুর ও তাঁর স্ত্রী মিনারার নামে মামলা করেছেন। গতকাল থেকে তাঁরা দুজনই পলাতক।

জার্মান তরুণী কি ব্যাগটি ফিরে পাবেন?

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর ধানমন্ডিতে জার্মান তরুণীর ছিনতাই হওয়া ব্যাগ সাত দিনেও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। তবে

সাংসদ পরিবারের গাড়ি কেড়ে নিলো একটি প্রাণ!!!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর মহাখালী ফ্লাইওভারে মঙ্গলবার (১৯ জুন) রাতে এক সংসদ সদস্যের ছেলের গাড়ির ধাক্কায়

গভীর রাতে বিয়ে বাড়িতে লুটপাট

প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ

image

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় এক বিয়ে-বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের

sangbad ad

ধুনটে বালু উত্তোলন হুমকিতে জোড়া সেতু

প্রতিনিধি, বগুড়া

image

বগুড়ার ধুনট উপজেলার বাঙ্গালী নদীর বিলচাপড়ী এলাকায় ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলনে

নাটোরে মন্দিরে আগুন প্রতিমা ভাঙচুর

প্রতিনিধি, নাটোর

নাটোরের নলডাঙ্গায় মন্দিরে আগুন দিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করেছে দুবৃর্ত্তরা। মঙ্গলবার (১৯ জুন) রাত

কর্মস্থলমুখী জনস্রোত শুরু হলেও বরিশাল থেকে কোন বিশেষ স্টিমার থাকছে না

জেলা বার্তা পরিবেশক, বরিশাল

টানা ষোল ঘণ্টার চেষ্টায় দুর্ঘটনা কবলিত পিএস অস্ট্রিচ জাহাজটির মেরামত শেষে মঙ্গলবার (১৯ জুন)

দুস্থদের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ করলেন আলতামাশ কবির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবির নরসিংদীর পলাশ...

রেলওয়ে থানার বাথরুমে সন্তান প্রসব

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

ঢাকা রেলওয়ে থানার বাথরুমে সোমবার (১৮ জুন) রাতে এক ছেলে সন্তান প্রসব করেছে ভারতীয়

রাইজিং স্টিল মিলের এমডি ও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিলের অনুমোদন দুদকের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাউথ-ইস্ট ব্যাংকের ১৪৯ কোটি ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রাইজিং স্টিল মিলস

sangbad ad