• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯

 

সরকারের প্রথম ১০০ দিন উদ্যোগহীন উচ্ছ্বাসহীন : সিপিডি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

‘নতুন সরকারের প্রথম ১০০ দিন উদ্যমহীন, উচ্ছ্বাসহীন ও উদ্যোগহীন’- আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রথম ১০০ দিনের কার্যক্রমকে এভাবেই মূল্যায়ন করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। সংস্থাটির মতে, দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে এক ধরনের নেতিবাচক চাপ সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ করা আগামীর চ্যালেঞ্জ বলেও মনে করছে সংস্থাটি। ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সিপিডি আয়োজিত ‘বর্তমান সরকারের প্রথম ১০০ দিন : বাংলাদেশের উন্নয়নে স্বাধীন পর্যালোচনা’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানের সম্মানিত ফেলো ও অর্থনীতিবিদ ড. দেবপ্রিয় ভট্টচার্য এসব মন্তব্য করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সিপিডির গবেষণা পরিচারক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম, সম্মানিত ফেলো অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান, সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌফিদুল ইসলাম খান প্রমুখ। এ সময় সিপিডির জ্যেষ্ঠ গবেষণা সহযোগী মুনতাসি কামাল, গবেষণা সহযোগী সিরজুম মুনিরা, গবেষণা শিক্ষানবিস ফারাহ তাসনিমসহ প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, আমরা আশা করেছিলাম, সরকারের প্রথম ১০০ দিনে বড় কোনো পদক্ষেপ নেয়া হবে। কিন্তু আমরা দেখলাম একটি গতানুগতিকতা। নতুনভাবে কোনো উদ্যাগ নিতে আমরা দেখতে পেলাম না, বরং এই ১০০ দিনে একটি মিশ্র ইঙ্গিত দেখা গেছে। সুদের হার ছাড় দেয়াসহ নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এতে বিনিয়োগ বাড়বে না। তিনি বলেন, একটি গোষ্ঠী সরকারকে করায়ত্ত করে নীতিনির্ধারণ করছে। বর্তমানে সামগ্রিক অর্থনীতিতে এক ধরনের নেতিবাচক চাপ সৃষ্টি হয়েছে। বেশিরভাগ সূচকই নিম্নমুখী। বিশেষ করে বৈদেশিক লেনদেনে যে ঘাটতি সৃষ্টি হয়েছে, তা আমাদের সোনার সংসারে (দেশের অর্থনীতিতে) আগুন লাগিয়ে দিতে পারে।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, অর্থনীতিতে সংস্কার করতে হবে। এটি করা না হলে সুলিখিত ইশতেহার কাল্পনিক দলিলে পরিণত হবে। তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বেশকিছু ভালো উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। যেসব বিদেশি এখানে কাজ করেন, জরিপের মাধ্যমে তাদের করের আওতায় আনাসহ বেশ কয়েকটি উদ্যোগ প্রশংসাযোগ্য। তবে পুঁজিবাজারে সুশাসনে ছাড় দেয়ার প্রবণতাও রয়েছে। বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ সামনের চ্যালেঞ্জ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, বাংলাদেশে এখনো শেয়ারবাজার সংস্কারের জন্য একটি বড় জায়গা হিসেবে রয়েছে। আগামী দিনে সংস্কারের জায়গা হিসেবে এ পুঁজিবাজারকে সবচেয়ে গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি বলেন, শেয়ারবাজারে বিভিন্ন অনিয়মের ক্ষেত্রে বিএসইসির যতটা জোরালো অবস্থান রাখা দরকার, ততটা রাখে না। কিছু ক্ষেত্রে নেয় বটে। তবে যতটা দরকার, ততটা নয়। এমনও অভিযোগ আছে, একজন যে পরিমাণ অনিয়ম করে থাকেন, তাকে তুলনামূলক কম শাস্তি দেয়া হয়। এতে অনিয়মকারীরা আরও উৎসাহিত হয়। নির্বাচনের আগে থেকে শেয়ারবাজারের উল্লম্ফন শুরু হয়। ঠিক এক মাস পর আবার পতন শুরু হয়। এখানে কৃত্রিভাবে শেয়ারবাজারের উল্লম্ফন করা হয়েছিল কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায় এবং বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি মিডিয়ায় রিপোর্ট এসেছেÑ যেখানে এক ধরনের নিয়ন্ত্রিত ওঠানো-নামানো হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। শেয়ারবাজারে এ ধরনের ওঠা-নামা হওয়ার কথা নয়। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় ওঠা-নামা হওয়ার কথা।

খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, কেউ যদি বলে থাকেন সূচক বেশি ওঠেনি বা নামেনি, তাহলে এটি কারও মূল্যায়ন থেকে আসার কথা নয়। বাজারে চাহিদার সঙ্গে ওঠা-নামার বিষয়টি থাকা উচিত। সিপিডির এই গবেষণা পরিচালক বলেন, সম্প্রতি শেয়ারবাজারে কিছু সমস্যার কথা শোনা যাচ্ছে। এর মধ্যে একটি বড় সমস্যা প্লেসমেন্ট শেয়ার। এ নিয়ে গণমাধ্যমে নিউজ এসেছেÑ যেখানে ইনফরমাল মার্কেট গড়ে ওঠার অভিযোগ রয়েছে এবং সরকার বিষয়টি সংস্কারে কাজ করছে। দ্বিতীয়ত. যে কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে আনা হচ্ছে এবং এক্ষেত্রে যে রিপোর্টি জমা দেয়া হচ্ছে, তা নিয়ে অভিযোগ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সিপিডির সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌহিদুল ইসলাম খান বলেন, শেয়ারবাজারে সুশাসনের অভাব রয়েছে। এই সুশাসনের অভাব থাকার কারণে নির্বাচনের আগে সূচক কিছুটা বাড়লেও নির্বাচনের পর তা আবার নিম্নমুখী ধারায় দেখা যাচ্ছে। সুশাসন প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত বাজারের গতি আসবে না। তাই শেয়ারবাজারের উন্নয়নের স্বার্থে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা খুবই জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এখন মশা মানেই চিৎকার-আতংক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মশা দেখলে ঘরে ঘরে চিৎকার আতংক। এমনকি কর্মস্থলেও এখন মশা নিয়ে আতংক বিরাজ করছে। মরণব্যাধি ডেঙ্গুজ্বর থামছে না। আক্রান্তদের

গ্রামবাসীরাই নিজেদের অর্থে কোনরকম রাস্তা সংস্কার করল

কামরুজ্জামান গেনু, নান্দাইল (ময়মনসিংহ)

image

ময়মনসিংহের নান্দাইলে জনদুর্ভোগে অতিষ্ঠ হয়ে গ্রামবাসী স্বউদ্যোগী হয়ে নিজেদের অর্থে রাস্তা সংস্কার করল। বুধবার (২১ আগস্ট) নান্দাইল উপজেলার

কুমিল্লা সদর হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ে পলেস্তারা খসে পড়ায় আতঙ্ক

প্রতিনিধি, কুমিল্লা

image

১৮৫ বছরের পুরনো কুমিল্লা জেনারেল (সদর) হাসপাতালের ভবনে অনেকটা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন চিকিৎসকসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

sangbad ad

বাসন্ডার ভাঙনে বিলীন সড়ক দুর্ভোগে পশ্চিম ঝালকাঠিবাসী

দিলীপ মণ্ডল, ঝালকাঠি

image

পৌরসভার অন্তর্গত পশ্চিম ঝালকাঠির ৬নং ওয়ার্ডে বাসন্ডা নদীর পশ্চিম পাড় বাদামতলী মোসলেম মাঝির খেয়া ঘাট থেকে বাসন্ডা ব্রিজ পর্যন্ত

গেট খোলেনি ক্লিনিক ফটকের সামনেই সন্তান প্রসব!

প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ

image

গোপালগঞ্জে ক্লিনিকের ফটকের সামনের রাস্তার ওপর সন্তান প্রসব করলেন গৃহবধূ রোজিনা বেগম (৩২) । ১৯ আগস্ট সোমবার রাত সাড়ে

শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় পুলিশ সদস্য ফারুকের শেষ বিদায়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সহকর্মীদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় চির বিদায় নিলেন জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা বাহিনীর মালি মিশনে মৃত্যুবরণকারী পুলিশ কনস্টেবল মো. উমর ফারুক।

আন্তঃক্যান্টনমেন্ট বির্তক প্রতিযোগিতায় মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ চ্যাম্পিয়ন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আন্তঃক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় স্কুল শাখায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এবং কলেজ শাখায়

গ্রেনেড হামলা মামলার আপিল শুনানী চলতি বছরেই শুরু হবে : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পেপারবুক তৈরী শেষে চলতি বছরেই একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার আপিল শুনানী হাইকোর্টে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী

এখনও পলাতক ১৬ আসামি

বাকী বিল্লাহ ও মাসুদ রানা

image

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশে পরিকল্পিতভাবে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। শেখ হাসিনাকে

sangbad ad