• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

 

সরকারের প্রথম ১০০ দিন উদ্যোগহীন উচ্ছ্বাসহীন : সিপিডি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

‘নতুন সরকারের প্রথম ১০০ দিন উদ্যমহীন, উচ্ছ্বাসহীন ও উদ্যোগহীন’- আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রথম ১০০ দিনের কার্যক্রমকে এভাবেই মূল্যায়ন করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। সংস্থাটির মতে, দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে এক ধরনের নেতিবাচক চাপ সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ করা আগামীর চ্যালেঞ্জ বলেও মনে করছে সংস্থাটি। ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সিপিডি আয়োজিত ‘বর্তমান সরকারের প্রথম ১০০ দিন : বাংলাদেশের উন্নয়নে স্বাধীন পর্যালোচনা’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানের সম্মানিত ফেলো ও অর্থনীতিবিদ ড. দেবপ্রিয় ভট্টচার্য এসব মন্তব্য করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সিপিডির গবেষণা পরিচারক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম, সম্মানিত ফেলো অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান, সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌফিদুল ইসলাম খান প্রমুখ। এ সময় সিপিডির জ্যেষ্ঠ গবেষণা সহযোগী মুনতাসি কামাল, গবেষণা সহযোগী সিরজুম মুনিরা, গবেষণা শিক্ষানবিস ফারাহ তাসনিমসহ প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, আমরা আশা করেছিলাম, সরকারের প্রথম ১০০ দিনে বড় কোনো পদক্ষেপ নেয়া হবে। কিন্তু আমরা দেখলাম একটি গতানুগতিকতা। নতুনভাবে কোনো উদ্যাগ নিতে আমরা দেখতে পেলাম না, বরং এই ১০০ দিনে একটি মিশ্র ইঙ্গিত দেখা গেছে। সুদের হার ছাড় দেয়াসহ নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এতে বিনিয়োগ বাড়বে না। তিনি বলেন, একটি গোষ্ঠী সরকারকে করায়ত্ত করে নীতিনির্ধারণ করছে। বর্তমানে সামগ্রিক অর্থনীতিতে এক ধরনের নেতিবাচক চাপ সৃষ্টি হয়েছে। বেশিরভাগ সূচকই নিম্নমুখী। বিশেষ করে বৈদেশিক লেনদেনে যে ঘাটতি সৃষ্টি হয়েছে, তা আমাদের সোনার সংসারে (দেশের অর্থনীতিতে) আগুন লাগিয়ে দিতে পারে।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, অর্থনীতিতে সংস্কার করতে হবে। এটি করা না হলে সুলিখিত ইশতেহার কাল্পনিক দলিলে পরিণত হবে। তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বেশকিছু ভালো উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। যেসব বিদেশি এখানে কাজ করেন, জরিপের মাধ্যমে তাদের করের আওতায় আনাসহ বেশ কয়েকটি উদ্যোগ প্রশংসাযোগ্য। তবে পুঁজিবাজারে সুশাসনে ছাড় দেয়ার প্রবণতাও রয়েছে। বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ সামনের চ্যালেঞ্জ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, বাংলাদেশে এখনো শেয়ারবাজার সংস্কারের জন্য একটি বড় জায়গা হিসেবে রয়েছে। আগামী দিনে সংস্কারের জায়গা হিসেবে এ পুঁজিবাজারকে সবচেয়ে গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি বলেন, শেয়ারবাজারে বিভিন্ন অনিয়মের ক্ষেত্রে বিএসইসির যতটা জোরালো অবস্থান রাখা দরকার, ততটা রাখে না। কিছু ক্ষেত্রে নেয় বটে। তবে যতটা দরকার, ততটা নয়। এমনও অভিযোগ আছে, একজন যে পরিমাণ অনিয়ম করে থাকেন, তাকে তুলনামূলক কম শাস্তি দেয়া হয়। এতে অনিয়মকারীরা আরও উৎসাহিত হয়। নির্বাচনের আগে থেকে শেয়ারবাজারের উল্লম্ফন শুরু হয়। ঠিক এক মাস পর আবার পতন শুরু হয়। এখানে কৃত্রিভাবে শেয়ারবাজারের উল্লম্ফন করা হয়েছিল কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায় এবং বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি মিডিয়ায় রিপোর্ট এসেছেÑ যেখানে এক ধরনের নিয়ন্ত্রিত ওঠানো-নামানো হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। শেয়ারবাজারে এ ধরনের ওঠা-নামা হওয়ার কথা নয়। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় ওঠা-নামা হওয়ার কথা।

খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, কেউ যদি বলে থাকেন সূচক বেশি ওঠেনি বা নামেনি, তাহলে এটি কারও মূল্যায়ন থেকে আসার কথা নয়। বাজারে চাহিদার সঙ্গে ওঠা-নামার বিষয়টি থাকা উচিত। সিপিডির এই গবেষণা পরিচালক বলেন, সম্প্রতি শেয়ারবাজারে কিছু সমস্যার কথা শোনা যাচ্ছে। এর মধ্যে একটি বড় সমস্যা প্লেসমেন্ট শেয়ার। এ নিয়ে গণমাধ্যমে নিউজ এসেছেÑ যেখানে ইনফরমাল মার্কেট গড়ে ওঠার অভিযোগ রয়েছে এবং সরকার বিষয়টি সংস্কারে কাজ করছে। দ্বিতীয়ত. যে কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে আনা হচ্ছে এবং এক্ষেত্রে যে রিপোর্টি জমা দেয়া হচ্ছে, তা নিয়ে অভিযোগ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সিপিডির সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌহিদুল ইসলাম খান বলেন, শেয়ারবাজারে সুশাসনের অভাব রয়েছে। এই সুশাসনের অভাব থাকার কারণে নির্বাচনের আগে সূচক কিছুটা বাড়লেও নির্বাচনের পর তা আবার নিম্নমুখী ধারায় দেখা যাচ্ছে। সুশাসন প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত বাজারের গতি আসবে না। তাই শেয়ারবাজারের উন্নয়নের স্বার্থে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা খুবই জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭

নিরুপম দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম ব্যুরো

image

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের পর দেয়াল ধসে নারী শিশুসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১০ জন। ১৭ নভেম্বর রোববার

অতিরিক্ত ফি প্রদানে ব্যর্থ ও অপমানিত এসএসসি প্রার্থীর স্ট্রোকে মৃত্যু!

প্রতিনিধি, বদলগাছী (নওগাঁ)

image

পত্নীতলায় এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়ে অভিভাবকরা

বুলবুলের পর সুন্দরবনে বইছে অনুপ্রবেশের প্রবাহ

শুভ্র শচীন, খুলনা

image

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে এবার রাসউৎসব বাতিল করা হলেও বনরক্ষীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাস উৎসবকালীন বিপুল সংখ্যক লোক ট্রলার

sangbad ad

নুসরাত হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত ১৬ আসামির জেল আপিল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৬ আসামি জেল আপিল করেছে। আবেদনগুলো ফেনীর জেলা কারা

আবরার হত্যাকাণ্ডে ২৫ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা

দুই ট্রেনের সংঘর্ষ : নিহত ১৬

মো. সাদেকুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মন্দভাগে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হয়েছে। আহত

সম্রাট জুয়া ও চাঁদাবাজি থেকে যা পেতেন করতেন পাচার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ক্যাসিনো ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ, টেন্ডার বাজি এবং চাঁদাবাজির মাধ্যমে যে অর্থ পেতেন

লক্ষাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত তিন লাখ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে সারাদেশে অন্তত ১৩ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে ১২ জনই গাছ ও ঘরচাপায় মারা গেছেন

তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত: আইনমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে সদ্য অপসারিত ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তথ্য প্রমাণের

sangbad ad