• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮

 

নাগরিক শোকসভায় বক্তারা

শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে আজীবন কাজ করে গেছেন কমরেড মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ১৩ জানুয়ারী ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে আজীবন কাজ করে গেছেন কমরেড মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ। জীবনের নানা ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যেও আমৃত্যু আস্থাবান একজন মানুষ ছিলেন কমরেড মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ। কিশোর বয়সে তিনি সমাজতন্ত্রের আদর্শের প্রতি আকৃষ্ট হন। প্রচারবিমুখ, সৎ, আদর্শ, নিষ্ঠা ও মানবিক গুণের এক অসাধারণ মানুষ ছিলেন তিনি। ভাষা আন্দোলনের প্রথমসারির নেতা ছিলেন এই ভাষা সৈনিক। জ্ঞানতাপস ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ও মরগুবা খাতুনের ষষ্ঠ সন্তান আবুল জামাল মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ। তিনি তার পিতা ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ সূচিত ও বাংলা একাডেমি প্রবর্তিত বাংলা বর্ষপঞ্জির সংস্কার করেছেন। এই অসাধারণ বড় মাপের মানুষ চিরদিন আমাদের মাঝে বেঁচে থাকে কর্মের মাধ্যমে। তাই ভাষা সৈনিক কমরেড মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ নামের একটি সড়কের নামকরণ ও একুশে পদক দেয়ার দাবি জানান বক্তারা।

গতকাল রাজধানীর পুরানা পল্টনে মুক্তি ভবনের মৈত্রী মিলনায়তনে সিপিবি’র ঢাকা জেলা কমিটির প্রকাশ্য টিমের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ভাষা সংগ্রামী কমরেড মহাম্মদ তকীয়ূল্লাহর এক নাগরিক শোকসভায় বক্তারা এই কথা বলেন। সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে শোকসভায় আরও বক্তব্য রাখেন সিপিবির কেন্দ্র্রীয় নেতা আহসান হাবিব লাবলু, কবি রাজু আলাউদ্দীন, সাংবাদিক দিল মনোয়ারা মনু, তকীয়ূল্লাহর সন্তান আহমেদ ইউসূফ আব্বাস ও সাংবাদিক শান্তা মারিয়া প্রমুখ।

শোকসভায় বক্তারা বলেন, তকীয়ূল্লাহর বড় ভাই মুহম্মদ সফিয়ূল্লাহ প্রগতিশীল ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। সেই সূত্র ধরেই কমিউনিস্ট পার্টির কর্মীদের সংস্পর্শে আসেন তিনি। ১৯৪৮ সালে মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ ছাত্র ফেডারেশনের ঢাকা জেলা কমিটির সেক্রেটারি হন। কমরেড নেপাল নাগ, কমরেড মণি সিংহ, কমরেড রণেশ দাশগুপ্ত, কমরেড অনিল মুখার্জি ছিলেন তার নেতা। ১৯৪৮ সালের ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক ছিলেন তকীয়ূল্লাহ। ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ ভাষা আন্দোলনের যে চারটি মাত্র আলোকচিত্র পাওয়া যায় সেগুলো তারই তোলা। ভাষা আন্দোলনে জড়িত থাকার জন্য তিনি গ্রেফতার হয়েছিলেন। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের ইউনিয়ন, জেল পুলিশ ইউনিয়ন, সচিবালয় কর্মচারী ইউনিয়ন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে বলে বক্তারা জানান।

বক্তারা বলেন, রাজনৈতিক জীবনে তিনি দীর্ঘদিন আত্মগোপনে ছিলেন। আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় তিনি বিভিন্ন কারখানা ও প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক ইউনিয়ন ও কর্মচারী ইউনিয়ন গড়ে তোলার কাজ করছেন। ভাষা আন্দোলন ও অন্যান্য গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে প্রগতিশীল ছাত্র ও যুব সমাজকে সংগঠিত করার জন্য ১৯৫১ সালে যুবলীগ প্রতিষ্ঠায় তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। ১৯৫৬-৫৮ সালে যুবলীগ কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যমত সদস্য ছিলেন তকীয়ূল্লাহ। রাজনৈতিক জীবনে তিনি একাধিকবার কারাবরণ করেন। ১৯৬২ সালে ৬ ফেব্রুয়ারি স্বৈরাচারবিরোধী গণআন্দোলনের নেতাদের সঙ্গে গ্রেফতার হয়েছিলেন তিনি। তখন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া ও তাজউদ্দীন আহমদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় কারাগারের ২৬ নম্বর সেলে বন্দী ছিলেন। প্রচারবিমুখ অসাধারণ বড় মাপের এই মানুষটি ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর ঢাকার স্কায়ার হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাষ ত্যাগ করেন। তাই ভাষা সৈনিক কমরেড মুহম্মদ তকীয়ূল্লাহ নামের একটি সড়কের নামকরণ ও একুশে পদক দেয়ার দাবি জানান বক্তারা।

পরীক্ষামূলক সম্প্রচার

ওপেক বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সম্প্রসারণে আগ্রহী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

ওপেক ফান্ড ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ওএফআইডি)-এর মহাপরিচালক ও সিইও সুলেইমান জাসির আল হারবিশ বলেছেন, ওপেক বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতা

পটুয়াখালীর ৩৫২ সর. প্রা. স্কুল প্রধান শিক্ষক শূন্য!

স্বপন ব্যানার্জী, পটুয়াখালী

পটুয়াখালী জেলায় সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয় (সাবেক) ও নতুন জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক বিদ্যালযসহ

শ্রেণীকক্ষের অভাবে মাঠে পাঠদান!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, চাঁদপুর

image

শ্রেণীকক্ষ সংকটের কারণে খোলা আকাশের নিচে স্কুল মাঠে ক্লাস করতে হচ্ছে কচুয়া

sangbad ad

না.গঞ্জে সংঘর্ষের ফুটেজ দেখে অস্ত্রধারীদের ধরার চেষ্টা চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নারায়ণগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে অস্ত্রধারীদের ধরার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান

বাংলাদেশ পূর্ব জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী ঘোষণার অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করেছে : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ ১৯৬৭ সালের পূর্বের সীমারেখা অনুযায়ী পূর্ব জেরুজালেমকে

কক্সবাজার সীমান্ত দিয়ে থামছে না ইয়াবা পাচার

জসিম উদ্দিন সিদ্দিকী, কক্সবাজার

মিয়ানমার আর ভারতের বিভিন্ন স্থান দিয়ে প্রতিনিয়ত দেশে ঢুকছে ইয়াবা। বিভিন্ন সময় পাচার বন্ধে নানা উদ্যোগের কথা বলা হলেও সীমানার দু’পারের

ঢাবিতে ‘হামলাকারী’ ছাত্রলীগ নেতাদের বহিষ্কারের দাবি: ঘেরাও- ভাঙচুর

image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজধানীর সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে করা আন্দোলনে ছাত্রলীগের হামলা

কক্সবাজারে একই পরিবারের ৪ জনের লাশ উদ্ধার

image

কক্সবাজার সদরের গোল দিঘির পাড় এলাকার এক বাড়ি থেকে একই পরিবারের ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন ইবতেদায়ি শিক্ষকরা

image

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা। মঙ্গলবার

sangbad ad