• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

 

শতবর্ষী গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয় জরাজীর্ণ : সেবা ব্যাহত

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

সংবাদ :
  • দেলোয়ার হোসেন, রাজবাড়ী
download
image

জনগণের মাঝে বিনামূল্যে হোমিও চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ব্রিটিশ আমলে নির্মিত রাজবাড়ীর গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়টি মূল ভবন পরিত্যক্ত হয়ে পড়ায় বর্তমানে চিকিৎসা কার্যক্রম চরমভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অত্র এলাকাসহ আশপাশের গ্রামের ২ লক্ষ মানুষ। আজ থেকে প্রায় ১২০-১২৫ বছর পূর্বে রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলার গোপালপুরে এলাকাবাসীর বিনামূল্যে হোমিও সেবা দিতে প্রতিষ্ঠিত হয় গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসায়লটি। ছোট একটি চিকিৎসা ভবন নির্মাণের মাধ্যমে শুরু হয় চিকিৎসালয়ের চিকিৎসা কার্যক্রম।

চিকিৎসালয় চালুর শুরু থেকেই এর সুনাম ছড়িয়ে পরে চারিদিকে। বাড়তে থাকে রোগীর সংখ্যা। রাজবাড়ী জেলার চন্দনী, খানগঞ্জ, ইসলামপুর, মদাপুর মাঝবাড়ী ও রতনদিয়া ইউনিয়নের প্রায় ২ লাখ লোক বসবাস করে। এদের মধ্যে অধিকাংশ সাধারণ জনগণ প্রতিনিয়ত গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয় থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করে থাকে। শুধু ওই এলাকারই নয়, জেলার বিভিন্ন অঞ্চল এবং আশপাশের জেলা থেকেও এখানে রোগীরা চিকিৎসা সেবা নিতে আসে।

৫৪ শতাংশ জমির ওপর নির্মিত গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়টি শুরু থেকে ফরিদপুর ডিস্ট্রিক বোর্ডের অধীনে পরিচালিত হতো। সঠিক রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ভবনটি জীর্ণ হতে শুরু করলে ৩০-৩৪ বছর আগে সেটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে ১৯৮৮ সালে এটি রাজবাড়ী জেলা পরিষদের অধীনে চলে আসে। রাজবাড়ী জেলা পরিষদ ঐতিহ্যবাহী এ প্রতিষ্ঠানটিকে টিকিয়ে রাখতে এবং এলাকার জনসাধারণ যাতে স্বাস্থ্যসেবা পায় সে লক্ষ্যে মূল ভবনের পাশের ডাক্তারের বাসার একটি রুম মেরামত করে সেখানে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম শুরু করে। এরপর থেকেই ডাক্তারের বাস ভবনেই চিকিৎসা সেবা চলে আসছে। প্রতিদিন গড়ে ১শ থেকে ১১০জন রোগী এখান থেকে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে থাকেন।

গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়ে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগী সাহিদা বেগম জানান, বিয়ের দীর্ঘদিন তার কোন সন্তান হয়নি। এ নিয়ে সংসারে অশান্তি শুরু হয়। তিনি বিভিন্নস্থানে চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন কিন্তু কোন কাজ হয়নি। পরে তিনি তার পরিচিত একজনের পরামর্শ অনুযায়ী এখানে এসে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। বর্তমানে আবারো তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন। রাহেলা বেগম ও অর্পিতা নামে আরও দুই নারী জানান, কানের সমস্যা নিয়ে দুই সপ্তাহ আগে তারা এখানে চিকিৎসা নিতে আসেন। এখানকার ওষুধ খেয়ে কানের রোগ উন্নতি হওয়ায় পুনরায় তারা ওষুধ নিতে এসেছেন।

আনছার আলী নামে এক রোগী জানান, দীর্ঘদিন তিনি পাইলস রোগে ভুগছেন। অনেক ডাক্তার এবং ওষুধ খেয়েছেন কিন্তু ভাল হননি। তাই এখানে এসে হোমিও চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে আগের চেয়ে অনেক ভাল হওয়ায় তিনি ডাক্তারের কাছে পরামর্শ এবং ওষুধ নিতে এসেছেন। গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়ের কর্তব্যরত ডাক্তার মো. আলমগীর হোসেন জানান, এ চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রতিদিন এক শ’র বেশি রোগী চিকিৎসা নিতে আসে। ছোট্ট একটি কক্ষের মধ্যে গাদাগাদি করে রোগী দেখতে হয়। যা নিয়ম বহির্ভূত। জেলা পরিষদ থেকে যা ওষুধ বরাদ্দ পাওয়া যায় তা প্রয়োজনের তুলনায় একদম অপ্রতুল। এখানে আরও ডাক্তার প্রয়োজন। একজন কম্পাউন্ডারের প্রয়োজন। প্রয়োজন রোগীদের একটি বসার কক্ষ ও ডাক্তারের বাসভবন। তাহলে এখান থেকে আরও উন্নত চিকিৎসা সেবা দেয়া সম্ভব। এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবক অধ্যাপক জাহিদুল ইসলাম জানান, এই হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়টি অত্র এলাকার গরিব অসহায় মানুষের স্বাস্থ্য সেবা পাওয়ার একমাত্র স্থান। ব্রিটিশ আমলে স্থাপিত ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিষ্ঠানটি সংস্কারের অভাবে আজ বিলুপ্তির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার হোমিও চিকিৎসার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছে। তাই এলাকাবাসীর দাবি পুরাতন ভবন ভেঙ্গে এখানে একটি দ্বিতল ভবন নির্মাণ করা হলে এর ঐতিহ্য ফিরিয়ে আসবে এবং সেই সঙ্গে এলাকার গরিব দুঃখী মানুষের সাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হবে।

এ ব্যাপারে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার বলেন, গোপালপুর হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয়টি যখন বন্ধের পথে তখন জেলা পরিষদ ডাক্তারের বাসভবনের ১টি কক্ষ মেরামত করে জেলা পরিষদ থেকে ১জন চিকিৎসক ও ওষুধ সরবরাহ করে চিকিৎসালয়টি পরিচালনা করে আসছে। এটি যাতে পূর্ণাঙ্গ হাসপাতালে পরিণত করা যায় তার জন্য দেড় কোটি টাকার প্রকল্প তৈরি করে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে ওসমান অনুসারীদের বিষোদগার

সৌরভ হোসেন সিয়াম, নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী জিউস পুকুরকে ইস্যু করে সিটি করপোরেশনের মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

প্রস্তাবিত কমিটিতে বিতর্কিত নিষ্ক্রিয় ও প্রবাসীদের নাম

বিশেষ প্রতিনিধি

পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে সিলেট আওয়ামী লীগে নিজেরাই এখন একে অন্যের প্রতিপক্ষ হয়ে কাজ করছেন।

পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্পের জন্য চালু হলো আধুনিক স্লিপার কারখানা

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্পে আধুনিক স্লিপার তৈরি জন্য ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ১ দশমিক ৮১ একর জাগায় আধুনিক স্লিপার কারখানা তৈরি করা হয়েছে।

sangbad ad

পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২৩ বছর পালন

প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পার্বত্যচুক্তির ২৩তম বর্ষপূর্তি উদযাপন করেছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ।

শিশু ভ্যানচালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রতিনিধি, জামালপুর

image

জামালপুরে ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী ভ্যানচালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দ্বিতীয় ধাপে ৬১ পৌরসভা নির্বাচন ১৬ জানুয়ারি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

দ্বিতীয় ধাপের ৬১টি পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের অনলাইনে গণশুনানি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. রফিকুল মতিন মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টা থেকে ৪৫ মিনিটব্যাপী বিটিসিএল-এর ফেসবুক পেইজে অনলাইনে গণশুনানি করেছেন।

উগ্র-সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান স্বাশিপ নেতাদের

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের (স্বাশিপ) সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু বলেছেন, ‘যার যার ধর্ম সেই সেই পালন করবে।

সেদিনের বিজয়ের আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করা যায় না

সফিউল আহমেদ বাবুল

১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর, কুমিল্লা মুক্তদিবসে যে কয়জন মুক্তিযোদ্ধা শহরে বীরবেশে প্রবেশ করেছিলেন তাদের অন্যতম একজন সদস্য হলেন কুমিল্লা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সফিউল আহমেদ বাবুল।