• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯

 

রাসেলকে ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিনলাইন আরও সময় চাওয়ায় আদালতের ক্ষোভ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ১৫ মে ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

এক মাস সময় দেয়া সত্ত্বেও গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটচালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণের পূর্ণ অর্থ পরিশোধ না করায় পরিবহন প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষের প্রতি হুশিয়ারি প্রদান করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, ‘ক্ষতিপূরণের টাকা পরিশোধ করতেই হবে। টাকা না দিলে কী করতে হবে, তা আমরা জানি।’ ক্ষতিপূরণের টাকা পরিশোধ করতে পুনরায় সময় চাওয়া হলে ১৫ মে বুধবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

আদালতে পরিবহন কর্তৃপক্ষের পক্ষে সময় আবেদন করেন আইনজীবী মো. ওজি উল্লাহ। আর রিটের শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার শামসুল হক রেজা। এর আগে হাইকোর্টের বেঁধে দেয়া সময়ের পর আবারও সময় চাওয়া হলে আদালত বলেন, ‘টাকা না দিয়েই সময় চাচ্ছেন? তা কি হয়। আপনাদের ব্যবসা কি বন্ধ আছে? আমরা কি রিসিভার নিয়োগ দেব? ঈদের ছুটির আগেই ১৮-১৯ মের মধ্যে কিছু টাকা পরিশোধ করে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করুন। আমরা আপনাদের সমস্যা বিবেচনা করছি। অন্যথায় কী করতে হবে, তা আমরা জানি।’ এরপর আদালত রাসেলকে ক্ষতিপূরণ দিতে আদেশ দিয়ে এ মামলার পরবর্তী আদেশের জন্য ২২ মে দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ১২ মার্চ রাসেল সরকারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে রাসেলের চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় খরচ গ্রিন লাইন পরিবহন কর্তৃপক্ষকে বহন করতে এবং তার কৃত্রিম পা লাগানোর ব্যবস্থা করতে বলা হয়। এরপর রাসেলকে ৫ লাখ টাকার চেক ও তার কৃত্রিম পা সংযোজন করে পরিবহন কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে কথা কাটাকাটির জেরে গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেট কারচালক রাসেল সরকারের (২৩) ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তা বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পা হারানো রাসেলের বাবা শফিকুল ইসলাম। গ্রামের বাড়ি গাইবান্ধার জেলার পলাশবাড়ীতে। ঢাকার আদাবর এলাকার সুনিবিড় হাউজিং এলাকায় তার বসবাস। এ ঘটনায় সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য উম্মে কুলসুম স্মৃতি হাইকোর্টে রাসেলের ঘটনায় ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট করেন। পরে আদালত ওই রিটের শুনানি নিয়ে রুল জারিসহ রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দেন।

বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে

সংবাদ ডেস্ক

image

বিভিন্ন নদীতে অব্যাহত পানি বৃদ্ধি এবং কোন কোন নদীতে পানি কমলেও সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। এর মধ্যে কুড়িগ্রাম, জামালপুর,

বেড়েছে পাসের হার, জিপিএ-৫

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ এর সংখ্যা বেড়েছে। এ পরীক্ষায় ১০টি শিক্ষা

নবীনগরে ড্রেজারে বালি উত্তোলন ঝুঁকিতে বেড়িবাঁধসহ কয়েক গ্রাম

প্রতিনিধি, নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নে লোড ড্রেজারের বালু উত্তোলনের ফলে বেড়িবাঁধসহ কয়েকটি গ্রাম মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ

sangbad ad

ফেঁসে যাচ্ছেন শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অসাধু কর্মকর্তারা এবং নিয়োগ ও ভর্তি বানিজ্যের সিন্ডিকেট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নিয়োগসহ বিভিন্ন ইস্যুতে জারি করা বিতর্কিত আদেশে ফেঁসে যাচ্ছেন শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অসাধু কর্মকর্তারা। ওই

বধ্যভূমি থেকে শহীদদের নামফলক উধাও

প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ধর্মতীর্থ এলাকার বধ্যভূমি থেকে শহীদদের নামফলক কে বা কারা নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের

মানুষ মানুষের জন্য : আব্দুল্লাহর হৃৎপিণ্ডের ফুটো সারবে হাত বাড়ালে সবাই

প্রতিনিধি, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)

image

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে আড়াই বছরের শিশু আব্দুল্লাহকে বাঁচাতে সহযোগিতার

সাত গ্রামের ভরসা ভাঙা কাঠের পুল

গনেশ পাল, মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট)

image

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে জিউধরা ইউনিয়নের কুরুপের ধাইড় ডেউয়াতলা পদ্মপুকুর পাড়ের খালের সংযোগের পারাপারের ভাঙ্গা কাঠের পুলটি

কিশোরগঞ্জে একাধিক সর. কার্যালয় জলাবদ্ধ

জেলা বার্তা পরিবেশক, কিশোরগঞ্জ

image

কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় কয়েকদিনের বৃষ্টিতে ভয়াবহ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। পুরাতন কালেক্টরেট এলাকার কয়েকটি

ডিজিটাল বাংলাদেশের গ্রামীণ চিত্র : বাগেরহাটের সাইনবোর্ড-কচুয়া সড়ক চষাক্ষেত! ভোগান্তি

আজাদুল হক, বাগেরহাট

image

সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্তব্য কাজে উদাসীনতার কারণে বাগেরহাটের সাইনবোর্ড-কচুয়া উপজেলা সদরের আঞ্চলিক মহাসড়কটি

sangbad ad