• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯

 

মেয়ে হারনোর কষ্ট নিয়ে মর্গে তার মরদেহ কাটাছেড়া করতে দেখতে হয়েছে বাবকে!

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ০৬ জুলাই ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

ছুটির দিন পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটান আব্দুস সালাম। ছেলে-মেয়েদের নিয়ে সারা বাড়ি মাতিয়ে রাখেন। দুপুরে জুমার নামাজ শেষে একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়াও করেন। মাগরিবের নামাজ শেষে সবার জন্য আনেন সন্ধ্যার নাশতা। কিন্তু ৫ জুলাই শুক্রবার সন্ধ্যায় সবার জন্য নাশতা নিয়ে এসে জানতে পারেন আদরের ছোট্ট সায়মাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। প্রথমে স্বাভাবিক ভেবেই নাশতার প্যাকেট হাতে মেয়েকে খুঁজতে যান। আধাঘণ্টা ধরে খোঁজার পর ক্লান্ত হয়ে পড়েন বাবা আব্দুস সালাম। তবুও থেমে থাকেননি। আশপাশে খুঁজতে খুঁজতে ভবনের ৯ম তলায় গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে আছে ছোট্ট সায়মার নিথর দেহ। ততোক্ষণে সব আশা শেষ। খবর পেয়ে পুলিশ আসে, সিআইডির ফরেনসিক টিম আলামত সংগ্রহ করে, ঘটনা তদন্তে ডিবি টিম পরিদর্শনে আসে। কিন্তু বাকরুদ্ধ হয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকেন আব্দুস সালাম। নাশতার প্যাকেটটি তখনও ছিল তার হাতে। ৬ জুলাই শনিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গের সামনে সায়মার বাবা আব্দুস সালাম ও আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে শিশু সামিয়া আফরিন সায়মার খোঁজ পাচ্ছিল না পরিবার। আনুমানিক সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ওয়ারীর বনগ্রাম সড়কের ১৩৯ নং নবনির্মিত ভবনটির নবম তলার ফাঁকা ফ্ল্যাটের ভেতরে সায়মাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা। ভবনটির ছয়তলায় পরিবারের সঙ্গে থাকত সায়মা। বাবা আব্দুস সালাম নবাবপুরে মেশিনারিজের ব্যবসা করেন। দুই ছেলে ও দুই মেয়ের মধ্যে সবার ছোট সায়মা। পড়তো ওয়ারী সিলভারডেল স্কুলের নার্সারিতে। শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য সায়মার মরদেহ নেয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে। মেয়ের মরদেহ নিতে আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীদের সঙ্গে আসেন বাবা আব্দুস সালামও।

ঢামেক মর্গের সামনে সায়মার বাবা আব্দুস সালাম বলেন, বাবা হয়ে মেয়ের মরদেহ কাটাছেড়া করতে দেখতে হচ্ছে। বাবা হয়ে নিজের কাঁধে শিশুকন্যার মরদেহ উঠাতে হবে কখনোই ভাবিনি। এ ভার সইবার নয়। আব্দুস সালাম বলেন, আমার দুই মেয়ে ও দুই ছেলে। বড় ছেলে দেশের বাইরে থাকে। বড় মেয়ে ইউনিভার্সিটি থেকে বাড়িতে আসার পর সায়মাকে পড়তে বসায়। ঘটনার দিনও আসরের পর পড়াশোনা শেষ করে মাগরিবের নামাজের সময় খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয় সায়মা।

তিনি বলেন, এ হত্যাকান্ড কোনো বাবাই সহ্য করতে পারবেন না। আমারও খুব কষ্ট হচ্ছে। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে সব অভিভাবক ও গণমাধ্যমের ভূমিকা দরকার। আর কোনো শিশুর যেন এমন ঘটনার শিকার হতে না হয়।

এখন মশা মানেই চিৎকার-আতংক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মশা দেখলে ঘরে ঘরে চিৎকার আতংক। এমনকি কর্মস্থলেও এখন মশা নিয়ে আতংক বিরাজ করছে। মরণব্যাধি ডেঙ্গুজ্বর থামছে না। আক্রান্তদের

গ্রামবাসীরাই নিজেদের অর্থে কোনরকম রাস্তা সংস্কার করল

কামরুজ্জামান গেনু, নান্দাইল (ময়মনসিংহ)

image

ময়মনসিংহের নান্দাইলে জনদুর্ভোগে অতিষ্ঠ হয়ে গ্রামবাসী স্বউদ্যোগী হয়ে নিজেদের অর্থে রাস্তা সংস্কার করল। বুধবার (২১ আগস্ট) নান্দাইল উপজেলার

কুমিল্লা সদর হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ে পলেস্তারা খসে পড়ায় আতঙ্ক

প্রতিনিধি, কুমিল্লা

image

১৮৫ বছরের পুরনো কুমিল্লা জেনারেল (সদর) হাসপাতালের ভবনে অনেকটা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন চিকিৎসকসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

sangbad ad

বাসন্ডার ভাঙনে বিলীন সড়ক দুর্ভোগে পশ্চিম ঝালকাঠিবাসী

দিলীপ মণ্ডল, ঝালকাঠি

image

পৌরসভার অন্তর্গত পশ্চিম ঝালকাঠির ৬নং ওয়ার্ডে বাসন্ডা নদীর পশ্চিম পাড় বাদামতলী মোসলেম মাঝির খেয়া ঘাট থেকে বাসন্ডা ব্রিজ পর্যন্ত

গেট খোলেনি ক্লিনিক ফটকের সামনেই সন্তান প্রসব!

প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ

image

গোপালগঞ্জে ক্লিনিকের ফটকের সামনের রাস্তার ওপর সন্তান প্রসব করলেন গৃহবধূ রোজিনা বেগম (৩২) । ১৯ আগস্ট সোমবার রাত সাড়ে

শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় পুলিশ সদস্য ফারুকের শেষ বিদায়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সহকর্মীদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় চির বিদায় নিলেন জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা বাহিনীর মালি মিশনে মৃত্যুবরণকারী পুলিশ কনস্টেবল মো. উমর ফারুক।

আন্তঃক্যান্টনমেন্ট বির্তক প্রতিযোগিতায় মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ চ্যাম্পিয়ন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আন্তঃক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় স্কুল শাখায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এবং কলেজ শাখায়

গ্রেনেড হামলা মামলার আপিল শুনানী চলতি বছরেই শুরু হবে : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পেপারবুক তৈরী শেষে চলতি বছরেই একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার আপিল শুনানী হাইকোর্টে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী

এখনও পলাতক ১৬ আসামি

বাকী বিল্লাহ ও মাসুদ রানা

image

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশে পরিকল্পিতভাবে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। শেখ হাসিনাকে

sangbad ad