• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১

 

পাতাল ও উড়াল পথ সমন্বয়ে হবে ঢাকার বৃত্তাকার রেলপথ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১

সংবাদ :
  • ইবরাহীম মাহমুদ আকাশ

পাতাল ও উড়াল পথ সমন্বয় করে নির্মিত হবে ঢাকার বৃত্তাকার রেলপথ। ঢাকা শহরের ভিতরে প্রবেশ না করে নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরে দ্রুত যাতায়াতের জন্য প্রায় ৮০ দশমিক ৮৯ কিলোমিটার বৃত্তাকার রেলপথ নির্র্মাণ করা হবে। গাজীপুরের টঙ্গী থেকে শুরু হয়ে ঢাকার চারপাশ দিয়ে আবার টঙ্গী স্টেশনে এসে শেষ হবে এই বৃত্তাকার রেলপথ। এরমধ্যে প্রায় ১০ কিলোমিটার রেলপথ হবে পাতাল। বাকি ৭০ দশমিক ৮৯ কিলোমিটার রেলপথ হবে উড়াল। এই রেলপথের সঙ্গে ৮ পয়েন্টে মেট্রোরেলের সঙ্গে যুক্ত হবে। বৃত্তাকার এই রেলপথে স্টেশন থাকবে ২৪টি। ইতোমধ্যে প্রকল্পের প্রাক-সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শেষ করেছে চীন ও বাংলাদেশের যৌথ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান। বুধবার (২৭ জানুয়ারী) রেল ভবনে প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের চূড়ান্ত রিপোর্ট উপস্থাপন করে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানগুলো। এ সময় কেরানীগঞ্জের ঝিলমিল ও পূর্বাচলের পুরো অংশ যুক্ত করার প্রস্তাব দেয়া হয়। প্রকল্প বাস্তবায়নে ডিপিপি তৈরি করে খুব শীঘ্রই পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হবে বলে রেলওয়ে সূত্র জানায়।

বৃত্তাকার রেলপথ সম্পর্কে প্রকল্প পরিচালক মো. মনিরুল ইসলাম ফিরোজী সংবাদকে বলেন, যানজট নিরসনে ঢাকা শহরের চারপাশ দিয়ে এই সার্কুলার রেলপথটি নির্মাণ করা হবে। বৃত্তাকার রেলপথ নির্মাণে প্রাক-সম্ভাব্যতা যাচাই ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান খোঁজা হচ্ছে। বৃত্তাকার এই রেলপথ পরিকল্পনা অনেক আগের। আজ (বুধবার) প্রাক-সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের চূড়ান্ত রিপোর্ট উপস্থাপন করেছে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, বৃত্তাকার রেলপথের সম্ভাব্য ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৩২ হাজার কোটি টাকা। সময় ধরা হয়েছে ৩ বছর। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে জাইকা, বিশ্বব্যাংক, এডিবিসহ অন্য আরও কয়েকটি সংস্থা উন্নয়ন-সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে উন্নয়ন-সহযোগীদের কাছ থেকে সাড়া না পেলে নিজস্ব অর্থায়নেই প্রকল্পটির কাজ শুরু করার পরিকল্পনা করছে সরকার।

গাজীপুরের টঙ্গী থেকে শুরু হয়ে আবার টঙ্গী স্টেশনে এসে শেষ হবে এই বৃত্তাকার রেলপথ। এরমধ্যে টঙ্গী, বিশ্ব ইজতেমা, দৌর, উত্তরা, মিরপুর চিড়িয়াখানা, গাবতলী, মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ, রায়েরবাজার, কামরাঙ্গীরচর-১, কামরাঙ্গীরচর-২, সদরঘাট, পোস্তগোলা, পাগলা, ফতুল্লা, চাষাঢ়া, চিত্তরঞ্জন, আদমজী, সিদ্ধিরগঞ্জ, ডেমরা, ত্রিমুহনী, বেরায়েত, পূর্বাচল, পূর্বাচল উত্তর, তেরমুখ হয়ে পনুরায় টঙ্গী গিয়ে শেষ হবে। বৃত্তাকার এই রেল নেটওয়ার্ক হবে উচ্চতর বিদ্যুৎ এবং ডাবল লাইন স্ট্যান্ডার্ড গেজসম্পন্ন।

বৃত্তাকার রেলপথ নির্মাণের এই প্রকল্পের প্রাক-সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শুরু হয় ২০১৪ সালে। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে ২৭ কোটি টাকার ‘সমীক্ষা প্রকল্প’ অনুমোদন দিয়েছিল পরিকল্পনা কমিশন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৃহৎ এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ৩২ হাজার কোটি টাকার প্রয়োজন হবে। তবে ভবিষ্যতে এ ব্যয় আরও বাড়তে পারে। এজন্য বিদেশি কোন বিনিয়োগকারী পেলে সরকার তা সানন্দে গ্রহণ করবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানায়।

প্রকল্প সূত্র জানায়, পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি) ভিত্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়নে আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাইকা। এই নিয়ে জাইকার সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়েছে। বর্তমানে প্রকল্পের ফিজিবিলিটি স্টাডি ও ডিটেইল ডিজাইনের কাজ শেষ পর্যায়ে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে ঢাকা আশপাশের জেলার মানুষ সহজে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাতায়াত করতে পাবরে। কেউ যদি নারায়ণগঞ্জ থেকে উত্তরা যেতে চায় তাহলে রাজধানী ভিতরে প্রবেশ না করেই বৃত্তাকার এই রেলপথ ব্যবহার করে সহজেই যাতায়াত করতে পারবেন।

এছাড়া বৃত্তাকার এই রেলপথের সঙ্গে ৮ পয়েন্টে মেট্রোরেলের সঙ্গে যুক্ত হবে। এগুলো হলো- গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশনে, আশুলিয়া বেড়িবাঁধে দৌর ব্রিজের কাছে, গাবতলী, শ্যামপুর, চাষাঢ়া, বিরায়েত, পূর্বাচল ও তেরমুখ স্টেশনে মেট্রোরেলের সঙ্গে যুক্ত হবে এই বৃত্তাকার রেলপথটি। বৃত্তাকার এই রেলপথের মধ্যে প্রায় ১০ কিলোমিটার অংশ মাটির নিচ দিয়ে যাবে। এরমধ্যে কেরানীগঞ্জের-২ স্টেশন থেকে পোস্তগোলা পর্যন্ত ৬ কিলোমিটার পাতাল রেলপথ হবে। এছাড়া মিরপুর চিড়িয়াখানা-গাবতলী পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার রেলপথ মাটির নিচ দিয়ে নির্মাণ করা হবে বলে রেলওয়ে সূত্র জানায়।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী মালিকানাধীন প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

ওয়াশিংটন ডিসি সংলগ্ন ভার্জিনিয়ায় বাংলাদেশী ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিপের মালিকানাধীন ‘ইনোভেটিভ গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি’র আনুষ্ঠানিক

নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে ৩ লাখ টাকা ছিনতাই

জসিম সিদ্দিকী কক্সবাজার

image

কক্সবাজারে বসতবাড়িতে ঢুকে এক নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সাদা পোশাক পরা তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে।

বগুড়ার ধুনটে বরই চাষে চাষীর মুখে হাসি

প্রতিনিধি, বগুড়া

image

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় বরই চাষে ফলন বেশি ও দাম ভালো পাওয়ায় চাষীর মুখে হাসি ফুটেছে।

sangbad ad

রংপুর নগরীর জামাল মার্কেটে আগুন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক রংপুর

image

রংপুর নগরীর ষ্টেশন রোড এলাকায় জামাল মার্কেটের নীচ তলায় ভয়াবহ আগুনে অন্তত ৩০টি দোকান পুড়ে গেছে।

চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচ তারকা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে রাজধানীতে ম্রো’দের সমাবেশ

প্রতিনিধি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

image

বান্দরবানের নাইতং পাহাড়ে পাঁচ তারকা হোটেল ও বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে রাজধানীতে সংহতি সমাবেশ করেছে চিম্বুক পাহাড়ে বসবাসরত ম্রো আদিবাসীসহ বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠন।

রংপুর বিভাগে টিকা গ্রহন কারীর সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়েছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক রংপুর

image

করোনার টিকা নেবার তেইশতম দিন মঙ্গলবার রংপুর অন্যদিকে রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় টিকা গ্রহন কারীর সংখ্যা তিন লাখ ছাড়িয়েছে।

ভোলার দুটি পৌরসভা নির্বাচনে যারা কাউন্সিলর হলেন

প্রতিনিধি, ভোলা

image

ভোলায় অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীরা মঙ্গলবার (২ মার্চ) জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর পাশপাশি মতবিনিময় করেন।

প্রতিবন্ধী শিশুদের মধ্যে স্কুল ব্যাগ ও উপকরণ বিতরণ করেছে রোটারী ক্লাব

প্রতিনিধি, ভোলা

image

ভোলায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী স্কুলে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মধ্যে স্কুল ব্যাগ ও শিক্ষার উপকরণ বিতরণ করেছে রোটারী ক্লাব স্কাইলাইন ঢাকা।

আটক ৩ পুলিশ সদস্য ২ দিনের রিমান্ডে

প্রতিনিধি, কক্সবাজার

image

কক্সবাজারে এক নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে ৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় গ্রেফতার পুলিশের ৩ সদস্যের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।