• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০

 

নগদ ও সঞ্চয়পত্রে টাকা পাবেন পাটকল শ্রমিকরা : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেছেন, পাটকল শ্রমিকদের ঠকানো হবে না। তাদের দুই ধাপে টাকা দেওয়া হবে। অর্ধেক দেওয়া হবে ক্যাশে, বাকি অর্ধেক দেওয়া হবে সঞ্চয়পত্রের মাধ্যমে। পাশাপাশি শ্রমিকদের পুনর্বাসন করা হবে।

শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। এ সময় শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান, বস্ত্র ও পাট সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, ¤্রম ও কর্মসংস্থান সচিব কে এম আব্দুস সালাম এবং পাটকল শ্রমিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

গোলাম দস্তগীর বলেন, দেশের স্বাধীনতার সঙ্গে জড়িয়ে আছে পাটকল শ্রমিকরা। তাদের ঠকানো হবে না। বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ এর ২৬ এর উপধারা (৩) অনুযায়ী নোটিশ মেয়াদের অর্থাৎ, ৬০ দিনের মজুরি, চাকরির পাপ্য অনুযায়ী গ্রাচ্যুইটি, পিএফ তহবিলের জমা সমুদয় অর্থ এবং নির্ধারিত হারে গোল্ডেন হ্যান্ডশেক সুবিধা পাবেন তারা। ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত অবসরে যাওয়া শ্রমিকদের (৮ হাজার ৯৫৬ জন) পাওনা একত্রে পরিশোধ করা হবে। কেবল তাই নয়, তাদের দুই ধাপে টাকা দেওয়া হবে। অর্ধেক দেওয়া হবে ক্যাশে, বাকি অর্ধেক দেওয়া হবে সঞ্চয়পত্রের মাধ্যমে। এতে তারা প্রতি তিনমাস পরপর এক প্রকার বাধ্যতামূলক সঞ্চয়ের সুযোগ পাবেন। এতে শ্রমিকদের বাড়তি আর্থিক সুরক্ষা তৈরি হবে। ২০২০ সালের জুন মাসের মজুরি আগামী সপ্তাহে দেওয়া হবে। নোটিশ মেয়াদ অর্থাৎ জুলাই-আগস্ট মাসের ৬০ দিনের মজুরিও উভয় মাসে যথারীতি পরিশোধ করা হবে। সব ক্ষেত্রে মজুরি কমিশন-২০১৫ এর ভিত্তিতে পাওনা হিসাব করা হবে।

পাটমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দেখ, আমাদের দেশে বাপেরা টাকা পেলে ছেলেরা গিয়ে বাপকে চাপ দেয় টাকা দাও। বাপের কাছ থেকে জোর করে টাকা নিয়ে চলে যায়। তখন ভাত না খেয়ে মরে। জামাই বলে টাকা দাও নইলে তোমার মেয়েকে নিয়ে যাও। এ ধরনের অনেক ইতিহাস আছে। এজন্য তিনি বলেছেন, অর্ধেক টাকা দিয়ে সঞ্চয় পত্র কিনে দেব যাতে কেউ টাকা না নিয়ে যেতে পারে। এটার লাভ দিয়ে ভাঙিয়ে ভাঙিয়ে খাবে। আমি শ্রমিক ভাইদের বলব, যেখানে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নিয়েছেন সেখানে ভাববার কোনো বিষয় নেই। আপনারা খুবই নিরাপদে আছেন, খুব শান্তিতে থাকবেন-এই আমার ধারণা।

কলাপাড়ার নদীর ভাঙন হুমকিতে বুড়াজালিয়া বাঁধ

প্রতিনিধি, কলাপাড়া (পটুয়াখালী)

image

রাবনাবাদ নদীর ভাঙ্গনে হুমকিতে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার লালুয়া ইউনিয়নের বুড়াজালিয়া গ্রাম। গত দুইদিন ধরে নদীর উত্তাল ঢেউয়ের তান্ডবে বুড়াজালিয়া বেড়িবাঁধের প্রায় তিনশ ফুট বাঁধ

কুষ্টিয়ার পৌর মেয়র করোনায় আক্রান্ত

প্রতিনিধি,কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার আলীর (৭৫) শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে পাওয়া নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে তিনি করোনা পজিটিভি হন।

ভান্ডারিয়ায় ছয় চিকিৎসকে চলছে ১০০ শয্যা হাসপাতাল

প্রতিনিধি, ভান্ডারিয়া (পিরোজপুর)

image

ভান্ডারিয়া উপজেলায় একটি হাসপাতাল, পাঁচটি পরিবার কলাণ কেন্দ্র, ১৫টি কমিউনিটি ক্লিনিক নিয়ে চলছে উপজেলার স্বাস্থ্য সেবা। উপজেলার প্রায় দেড়লক্ষাধিক লোকের চিকিৎসা সেবার জন্য একমাত্র

sangbad ad

বাগেরহাটে আরও ৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত

প্রতিনিধি, বাগেরহাট

image

বাগেরহাট জেলায় গত ২৪ ঘন্টার নমুনা পরিক্ষার রিপোর্টে করোনা পজেটিভ হয়েছেন আরও ৪৩ জন। এ সময়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও ৪০ জন। শুক্রবার বেলা ১১ টায় বাগেরহাট সিভিল

বান্দরবানে লেবুজাতীয় ফলের আবাদ বাড়ছে

মো. শাফায়েত হোসেন, বান্দরবান

image

মাটি, জলবায়ু লেবুজাতীয় ফসলের আবাদের জন্য খুবই উপযোগি হওয়ায় বান্দরবানে লেবুজাতীয় ফসলের আবাদ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। জেলার রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, নাইক্ষ্যংছড়ি,

সংস্কারের অভাবে ভেঙ্গে পড়ছে ঘর

প্রতিনিধি, দশমিনা (পটুয়াখালী)

image

নানা সমস্যায় মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে পাঁচটি ইউনিয়নে নির্মিত ১৫টি আশ্রয়ণ প্রকল্পে সহস্রাধিক পরিবার। উপজেলায় আদর্শ গ্রাম,

ধর্ষণের ঘটনা ধাপাচাপা দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে তিন মাতব্বর গ্রেফতার

প্রতিনিধি, শেরপুর (বগুড়া)

image

শেরপুর উপজেলায় এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেবার চেষ্টার অভিযোগে তিন মাতব্বরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৬ আগষ্ট) রাত ১০টার দিকে

করোনায় চবি শিক্ষকের মৃত্যু

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও এক শিক্ষকের মৃত্যু হল। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) রাত পৌনে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) গণিত বিভাগের অধ্যাপক সফিউল আলম তরফদার (৫৪) মারা গেছেন।

করোনায় ওষুধ শিল্পে ধস

ফারুক আলম

image

করোনা মহামারীতে অন্যান্য শিল্পের মতোই ওষুধ শিল্পেও নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। দেশ-বিদেশে ওষুধের চাহিদা কমে যাওয়ায় ওষুধ কোম্পানিগুলো