• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

 

দুধকুমার নদী ভাঙনে বিলীন দেড় শতাধিক বাড়ি, শতশত বিঘা জমি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০

সংবাদ :
  • আসাদুজ্জামান খোকন, ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম)
image

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে নদী ভাঙনে দু’টি গ্রামের দেড় শতাধিক বসতবাড়ি, শতশত বিঘা ফসলি জমি ও ৩টি মসজিদ নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। আরও চার শতাধিক পরিবার, তিনটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি আশ্রয় কেন্দ্রসহ বিস্তীর্ণ জনপদ ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে। ভাঙন অব্যাহত থাকলে অচিরেই গ্রাম দু’টি পুরোপুরি বিলীন হয়ে যাবে। ভাঙন রোধে নিয়মিত নদী খনন ও বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছে ভাঙন কবলিত এলাকার মানুষ। পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে ভাঙন রোধে ৭১৪ কোটি টাকার প্রকল্প প্রনয়ণ করা হয়েছে।

উপজেলার দুধকুমার, ফুলকুমার, কালজানী, সংকোশ, গঙ্গাধরসহ সবকটি নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করায় নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। দুধকুমার ও কালজানী নদীর ভাঙনে শিলখুড়ী ইউনিয়নের উত্তর তিলাই, উত্তর ধলডাঙ্গা, দক্ষিণ ধলডাঙ্গা, শালঝোড়, তিলাই ইউনিয়নের খোঁচাবাড়ি, দক্ষিণ ছাট গোপালপুর, শালমারা, নলেয়া, ভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নের নলেয়া, চর ভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নের ইসলামপুর, পাইকেরছড়া ইউনিয়নের পাইকডাঙ্গা গ্রামে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। এতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে নদী তীরের মানুষজন।

দুধকুমার নদের ভাঙনে পাইকেরছড়া ইউনিয়নের পাইকডাঙ্গা ও চর ভূরুঙ্গামারীর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রাম ভাঙনে বিলীন হওয়ার পথে। গ্রাম দু’টির দেড় শতাধিক ঘরবাড়ি, কয়েক শ’ বিঘা ফসলি জমি, গাছ ও বাঁশ বাগান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় লোকজন তাদের ঘরবাড়ি অন্যত্র সড়িয়ে নিচ্ছে। হুমকির মুখে পড়েছে দক্ষিণ চর ভূরুঙ্গামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাইকডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আব্দুল করিম ১৫শ’ নামের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। ভাঙ্গন কবলিত এলাকার মানুষ আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।

ইসলামপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য নফছার আলী জানান, ‘দুধকুমার নদের ভাঙনে এ পর্যন্ত প্রায় ১০০ বাড়ি ও ৪০০ বিঘা জমি নদী গর্ভেবিলীন হয়ে গেছে। আরও ২০০ পরিবার হুমকির মুখে রয়েছে। ভাঙনে একটি ঈদ গাঁ মাঠ, একটি মসজিদ ও একটি কবরস্থান বিলীন হয়ে গেছে। অপর একটি ঈদ গাঁ মাঠ, তিনটি মসজিদ, একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি কবরস্থান ভাঙনের হুমকিতে আছে। ইসলামপুরের ভাঙ্গন রোধে একটি বাঁধ নির্মাণের দাবি জানান এলাকাবাসী।’

পাইকডাঙ্গা আব্দুল করিম ১৫শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার জানান, ‘নদী ভাঙ্গন অব্যাহত থাকলে বিদ্যালয় দু’টি অল্প সময়ের মধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে। ভাঙ্গন রোধে নদী ড্রেজিং ও বাঁধ নির্মাণের আবেদন জানান তিনি।’ অপরদিকে কালজানী নদীর ভাঙ্গনে শালঝোড় ঘাট সংলগ্ন বাজার, বসতভিটা, আবাদি জমি, গাছের বাগান ও বাঁশবাগান নদী গর্ভে তলিয়ে যাচ্ছে। হুমকির মুখে রয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। ভূরুঙ্গামারী ও তিলাই ইউপি চেয়ারম্যানগণ জানান, তাদের ইউনিয়নে ঘর-বাড়ি ভাঙ্গনে সংখ্যা কম হলেও শতশত জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে।

ভাঙ্গন কবলিত শিলখুড়ী, চর ভূরুঙ্গামারী ও পাইকেরছড়া ইউপি চেয়ারম্যানগণ জানান, ‘পানিতে তলিয়ে যাওয়া নিম্নাঞ্চল জাগতে শুরু করার সাথে সাথে নদীতে ভাঙন শুরু হয়েছে। নদী ভাঙ্গনের শিকার মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে কাজ করে যাচ্ছি। ভাঙন কবলিত মানুুষের জন্য দ্রুত সরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন।’

উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও দুধকুমার নদ ভাঙন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি শাহানারা বেগম মীরা জানান, ‘জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। নাগেশ্বরী উপজেলার নুন খাওয়া থেকে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার শিলখুড়ী ইউনিয়ন পর্যন্ত একটি প্রকল্প প্রস্তুত করা হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরুজুল ইসলাম জানান, ‘নদী ভাঙ্গন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড ঢাকায় একটি প্রস্তাবনা প্রেরণ করেছে।’

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম জানান, ‘ভাঙ্গন রোধ ও নদী শাসনের জন্য প্রায় ৭শ’ ১৪ কোটি টাকার ‘দুধকুমার নদী ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়ন প্রকল্প’ নামের একটি প্রকল্প পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। প্রকল্পটি একনেকে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। প্রকল্পটি অনুমোদন হলে নদী তীরবর্তী মানুষ ভাঙনের কবল থেকে মুক্তি পাবে।’

সাবেক ওসি প্রদীপ ও স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ

চট্টগ্রাম ব্যুরো

image

কক্সবাজারের টেকনাফ থানার সাবেক ওসি (সাময়িক বরখাস্ত) প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রীর সব স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

ঢাকাসহ সারাদেশে কয়েক দিন ধরে ভ্যাপসা গরমে চরম অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। বাতাসের উষ্ণতাও অত্যধিক হওয়ায় অসহ্য গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা বিরাজ করছে। তীব্র গরমে দুর্বিষহ হয়ে

খালেদাকে ফের কারাগারে পাঠানোর দাবি উঠতে পারে : তথ্যমন্ত্রী

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘হত্যার রাজনীতির মাধ্যমে বিএনপির উন্মেষ। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান হত্যার রাজনীতির

sangbad ad

নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন : হুমকির মুখে শত শত গ্রাম

প্রতিনিধি, নরসিংদী

image

নরসিংদীর রায়পুরার চরাঞ্চলে মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে শত শত ঘর-বাড়ি, হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে বিভিন্ন

নারায়ণগঞ্জে মহিলা পরিষদের সাংগঠনিক পক্ষ শুরু

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

image

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ৫০ বছর ‘সংগঠন বিস্তৃত ও সংহত করে বৃহত্তর নারী

পরিবেশের ডিজি ও সিলেটের ডিসিসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে হাইকাের্টের রুল

বিশেষ প্রতিনিধি, সিলেট

image

আদালত অবমাননার অভিযােগে কেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না-

বঙ্গোপসাগর থেকে ৫ লাখ ইয়াবাসহ আটক ৭

প্রতিনিধি, কক্সবাজার

image

কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্টমার্টিনের বঙ্গোপসাগরে অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ ইয়াবাসহ ৭ মাদক পাচারকারীকে

করেনা সন্দেহে কেউ কাছে আসেনি সিলেটে রাস্তায় পড়ে থেকে মৃত্যু হলাে মুয়াজ্জিনের

প্রতিনিধি, সিলেট

image

শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে রাস্তায় তিনি দীর্ঘক্ষণ পড়ে থেকে

থানায় আটক রেখে টাকা দাবি, শায়েস্তাগঞ্জের ওসি মোজাম্মেলসহ ৫ পুলিশ ক্লোজড

প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ

image

অবৈধ লেনদেনের অভিযোগে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হোসেনসহ ৫