• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯

 

চিরনিদ্রায় শায়িত সৈয়দ আশরাফ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ০৬ জানুয়ারী ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। রোববার (৬ জানুয়ারি) বিকেল ৪টা ৪০ মিনিটে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়। শনিবার সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে থাইল্যান্ড থেকে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ দেশে ফেরে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা বিমানবন্দরে প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে মরদেহ গ্রহণ করেন।

সেখান থেকে মরদেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে রাজধানীর ২১, বেইলি রোডে সৈয়দ আশরাফের সরকারি বাসভবনে নেয়া হয়। সেখানে প্রিয় নেতাকে শেষবারের মতো দেখতে আসেন আত্মীয়-স্বজন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী, শুভাকাক্সক্ষী ও সাধারণ মানুষ। এরপর রাতেই মরদেহ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের হিমঘরে নেয়া হয়।

রোববার সকালে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাধারী ব্যক্তিরা। দেয়া হয় গার্ড অফ অনার। এ সময় বিউগলে বেজে ওঠে করুণ সুর।

জানাজার পর জাতীয় ও দলীয় পতাকায় মোড়া কফিনে ফুল দিয়ে এই আওয়ামী লীগ নেতার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেষ বিদায়ের আগে একাত্তরের রণাঙ্গনে মুজিব বাহিনীর এই যোদ্ধার প্রতি ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও জানানো হয় রাষ্ট্রীয় সম্মাননা। সততা, নির্লোভ মানসিকতা আর রাজনৈতিক বিচক্ষণতায় নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া আশরাফ শেষযাত্রায় শ্রদ্ধা পেয়েছেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কাছ থেকেও।

জানাজার আগে সৈয়দ আশরাফকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ। পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন আশরাফের ছোট ভাই সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম।

এসময় মন্ত্রিপরিষদ সদস্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সাবেক ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম উপস্থিত ছিলেন জানাজায়।

এসেছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ফারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সংসদ সদস্য আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, ইলিয়াস মোল্লাহ, আসলামুল হক ও সাদেক খান। মন্ত্রিসভার সদস্য ও সংসদ সদস্য ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, বেসামরিক-সামরিক কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ নেয় সৈয়দ আশরাফের জানাজায়।

সৈয়দ আশরাফের জানাজায় রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের উপস্থিতিতে সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা ছিল পরিপূর্ণ। দক্ষিণ প্লাজার ওপরের চত্বর পূর্ণ হয়ে সিঁড়ি এবং সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে জানাজায় অংশ নেন কয়েক হাজার মানুষ। মানুষের এই ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের।

এরপরই প্রিয় এই নেতার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে। সেখানে ঐতিহাসিক (শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে তার জানাজায় ঢল নামে সর্বস্তরের মানুষের। মাঠ ছাড়িয়ে পাশের রাস্তা, বাড়ির ছাদ ও সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে মানুষকে জানাজায় অংশ নিতে দেখা যায়।

জানাজা শুরুর আগে সৈয়দ আশরাফের ছোট ভাই সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম তার প্রয়াত ভাইয়ের জন্য দোয়া কামনাসহ কোন অপরাধ বা ভুলত্রুটি করে থাকলে মাফ করে দেয়ার আবেদন জানান। সৈয়দ আশরাফের কাছে কারও কোন দেনা থাকলে তারা তা পরিশোধ করবেন বলে জানান।

কিশোরগঞ্জ জানাজা শেষে হেলিকপ্টারে করে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ময়মনসিংহে। দুপুর আড়াইটার পর তার তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। প্রিয় নেতা ও প্রিয় এ মানুষটিকে শেষবার দেখতে ও শ্রদ্ধা জানাতে লাখো মানুষের ঢল নেমেছিল ঈদগাহ মাঠে। জানাজা শেষে অশ্রুসিক্ত চোখে তারা প্রিয় নেতাকে বিদায় জানান। সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের রাজনৈতিক জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সময় কাটে ময়মনসিংহ নগরে। নগরের কলেজ রোড এলাকায় তার বাড়ি। এরপর মরদেহ দাফনের জন্য ঢাকায় নিয়ে আসা হয় এবং বাদ আছর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

গত বছরের জুলাই মাসে ফুসফুসে ক্যানসারের কারণে তাকে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলেন ৬৭ বছর বয়সী এই নেতা। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তিনি বিজয়ী হন। কিন্তু সাংসদ হিসেবে শপথের আগেই বৃহস্পতিবার (৩ জানুয়ারি) রাত ১০টার দিকে মারা যান সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ১৯৫২ সালের ১ জানুয়ারি ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ছিলেন। আশরাফুল ইসলাম ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার যুদ্ধে অংশ নেন। তিনি মুক্তিবাহিনীর একজন সদস্য ছিলেন। ভারতের দেরাদুনে প্রশিক্ষণ নেন তিনি। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। পারিবারিক ঐতিহ্যের সূত্র ধরে তিনি ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। ১৯৭০ বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর কারাগারে পিতা সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ জাতীয় চার নেতার নির্মম হত্যাকা-ের পর তিনি যুক্তরাজ্য চলে যান। প্রবাস জীবনে তিনি যুক্তরাজ্যে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করার ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

আশরাফুল ইসলাম ১৯৯৬ সালে দেশে ফিরে আসেন এবং কিশোরগঞ্জ সদর আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে প্রথমবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এ সময় তিনি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১ সালের ১ অক্টোবরে অনুষ্ঠিত অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পুনরায় তিনি নির্বাচিত হন এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮ সালের নির্বাচনেও তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন এবং স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৫ সালের ১৬ জুলাই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন। তিনি এক কন্যার জনক। তার স্ত্রী শিলা ইসলাম ২০১৭ সালের অক্টোবরে মারা যান।

ময়মনসিংহে তৃতীয় জানাজা
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের তৃতীয় জানাজা রোববার ময়মনসিংহ আঞ্জুমানে ঈদগাহ মাঠে বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজা শেষে হেলিকপ্টারে করে মরদেহবাহী কফিন ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে।

কসবা সীমান্ত : রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের জম্মু-কাশ্মীরের হেলথ ও শরণার্থী কার্ড

মো. সাদেকুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার কাজিয়াতলী এলাকার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২০২৯

ইংরেজী ভাষায় লেখা সাইনবোর্ডের বিরুদ্ধে ডিএনসিসির অভিযান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাইনবোর্ডে বাংলায় লেখা নিশ্চিত করতে অভিযান চালিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের

৫ কোম্পানির পানি মানহীন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আদালতের নির্দেশে বাজারে বোতলজাত ১৫টি কোম্পানির খাবার পানি পরীক্ষা করে পাঁচটি

sangbad ad

চর অঞ্চল উন্নয়নে আলাদা কর্তপক্ষের দাবি : ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশের চর এলাকায় বসবাসরত মানুষের উন্নয়নে আলাদা কর্তৃপক্ষ গঠনের দাবি জানিয়েছে ন্যাশনাল

রাজধানীতে নিরাপত্তাকর্মী খুন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর বারিধারার জে ব্লকে যমুনা ব্যাংকের এটিএম বুথে শামীম (২০) নামে এক নিরাপত্তাকর্মী

ঢাকাসহ ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক অনুপস্থিত ৪০ শতাংশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীসহ দেশের ৮জেলার ১১টি সরকারি হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে হাসপাতালগুলোতে

ঠাকুরগাঁও রামরায় দীঘি অতিথি পাখির স্বর্গরাজ্য

আখতার হোসেন রাজা, ঠাকুরগাঁও

image

রং-বেরঙের অতিথি পাখির কলকাকলীতে মুখরিত হয়ে উঠেছে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল

বিএসএমএমইউতে জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে মাসব্যাপী কর্মসূচি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার সংক্রান্ত সেবার পরিধি ও মান উন্নয়ন এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির

হলি আর্টিজান হামলার অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী রিপন গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রায় ৩ বছর আগে রাজধানীর গুলশানে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার অস্ত্র

sangbad ad