• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ জুন ২০১৮

 

চিংড়ি ঘেরে ৫ বছরে উজাড় ১২৫ একর বনাঞ্চল!

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন ২০১৮

সংবাদ :
  • মো. দেলোয়ার হোসাইন খান, সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম)
image

সীতাকুণ্ড : বগাচতর এলাকায় বন সাবাড় করে এভাবেই চলছে চিংড়ি ঘেরের কাজ-সংবাদ

সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি বাঁশবাড়িযা থেকে সৈয়দপুর সমুদ্র উপকূলে মাত্র ৫ বছরে সাবাড় হলো ১২৫ একর বনাঞ্চল। চিংড়ি ঘের করার নামে প্রভাবশালীরা রাতের আঁধারে বনাঞ্চল কেটে উজাড় করে ফেলেছে। এলাকাবাসী মনে করেন, ওইসব গাছ কেটে নেয়ায় বেড়িবাঁধ যেমন বিপন্ন হচ্ছে তেমনি এলাকাবাসীও সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাসে মারাত্মক হুমকির মধ্যে পড়ছে।

উপকূলীয় বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, উপকূলীয় এলাকার লোকজনকে সামুদ্রিক বিপর্যয় থেকে রক্ষার জন্য বাঁশবাড়িয়া থেকে সৈয়দপুর বগাচতর সমুদ্র উপকূলে ১৯৯০ সালে প্রায় ২৫০ একর জায়গায় ব্যাপক বনায়ন করা হয়। কেওড়া, বাইন, ম্যানগ্রোভ, গেওয়া, ঝাউসহ বিভিন্ন জাতের গাছ লাগিয়ে রীতিমতো নতুন সুন্দরবন তৈরি করা হয়েছিল এসব উপকূলীয় এলাকায়। গাছগুলো যখন বড়সড় হয়ে মাথা তুলে দাঁড়ায় তখন চিংড়ি ঘের করার নামে প্রভাবশালীরা প্রাকৃতিক দেয়াল হিসেবে পরিচিত বনগুলো কেটে উজাড় প্রক্রিয়া শুরু করে।

সরজমিনে দেখা যায়, সৈয়দপুর থেকে বাঁশবাড়িয়া পর্যন্ত বেড়িবাঁধের পাশে প্রায় দুই শতাধিক চিংড়ি ঘের নির্মাণ করেছে প্রভাবশালীরা। চিংড়ি ঘেরগুলো তৈরি করতে গিয়ে হাজার হাজার গাছ কেটে ফেলতে হয়েছে। উপকূলীয় বন বিভাগ রেকর্ড সূত্রে জানা যায়, গত ১৯৯১ সালের প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড়ের পর তৈরি করা সমুদ্র উপকূলে ২৫০ একর বনাঞ্চল বিগত মাত্র পাঁচ বছরে সবটুকুও উজাড় হয়ে গেল। আর এ সময়ে নির্বিচারে বৃক্ষ নিধনের অভিযোগে সুনির্দিষ্ট অর্ধশতাধিক ব্যক্তিসহ কয়েকশ’ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে ১৫টি মামলা হলেও দুই শ্রমিক ছাড়া কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামিদের নির্দোষ উল্লেখ করে ওই ১৫টি মামলার দায়গোছের ফাইনাল রিপোর্টও প্রদান করে। সীতাকুণ্ড উপজেলা সৈয়দপুর ইউনিয়নের বগাচতর এলাকার সমুদ্র উপকলে চিংড়ি ঘের বানানোর জন্য হাজার হাজার চারাগাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপকলীয় বনবিভাগের বগাচতর বিট কর্মকর্তা বাদী হয়ে স্থানীয় ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে কয়েকদফা অভিযোগ করেন।

সৈয়দপুর ইউনিয়নের বগাচতর সমুদ্র উপকলের ৪৫ একর জায়গা ২০০৮ সালের জানুয়ারিতে সীতাকুণ্ড উপকূলীয় বন বিভাগ ১৫টি ভূমিহীন পরিবারকে সামাজিক বনায়ন করার জন্য ২১ বছরের জন্য ইজারা প্রদান করে। ইজারায় শর্ত থাকে যে, ওই বনায়ন মেয়াদ শেষে সরকার ও ভূমিহীনরা অর্ধেক হারে লভ্যাংশ পাবে। জায়গাটি ইজারা পেয়ে উপকারভোগী প্রত্যেকে সেখানে ২ হাজার ৫০০টি করে মোট ৩৭ হাজার ৫০০টি আকাশ মনি, অর্জুন, বাবলা, ঝাউসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপন করেন। কিন্তু সেখানে চিংড়ি ঘের করার জন্য নজর পড়ে স্থানীয় প্রভাবশালীদের। সেখানে তারা প্রভাব খাটিয়ে চিংড়ি ঘের করার লক্ষ্যে বিভিন্ন সমযে দলবল নিয়ে কয়েক দফায় গাছ কেটে উজাড় করতে থাকে। উপকূলের বিভিন্ন স্থানে হাজার হাজার চারাগাছ কেটে সেখানে চিংড়ি ঘের তৈরি করার জন্য বাঁধ দেয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, বিভিন্ন সময়ে প্রভাবশালীরা শ্রমিকদিয়ে মাটি কেটে বাঁধ দেয়ার কাজ করেছে। উপকার ভোগী ভূমিহীন মো. শহীদুলাহ জানান, প্রভাবশালীরা চিহিৃত ভূমিদস্যু। তারা জায়গাটি দখল করে চিংড়ি ঘের তৈরি করে দেয়ার জন্য বিরাট অংকের অর্থ দিয়েছেন। ফলে ভূমিহীনদের লাগানো প্রায় দেড় বছর বয়সী গাছ দফায় দফায় কেটে ফেলে সেখানে চিংড়ি ঘের তৈরি করে।

উপকূল রক্ষার সবুজ বন উজাড় করে চিংড়ি ঘের তৈরি প্রসঙ্গে সৈয়দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম নিজামী জানান, ওইসব গাছ বেড়ে উঠলে একদিকে ভূমিহীন ও সরকার উভয়ে লাভবান হতো, অন্যদিকে প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেত এলাকাবাসী। তিনি এ ধরনের দুর্বৃত্তদের হাত থেকে সরকারি সম্পদসহ প্রাকৃতিক পরিবেশকে রক্ষা করতে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

বনবিভাগের উপকলীয় রেঞ্জ কর্মকর্তা এস এম কামাল উদ্দিন জানান, আমি এখানে যোগদান করার পূর্বে অনেকে বনাঞ্চল কেটে চিংড়ি ঘের তৈরি করেছে। তৎসময়ে তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। অন্যদিকে আমাদের লোকবল সংকট রয়েছে। যার কারণে বনাঞ্চল রক্ষা করা যাচ্ছে না।

পাঁচ টাকার বাসভাড়া চাওয়ায় কিশোরকে চড়-থাপ্পড়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাদা পোশাকের দুই পুলিশ সদস্যের কাছে ৫ টাকা গাড়ি ভাড়া চাওয়ায় গাড়ির ভেতরে কিশোর

এডিস মশার প্রজনন নির্মূলে সাড়ে ৫ হাজার বাড়িতে অভিযান চালাবে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

এডিস মশার প্রজনন নির্মূল করতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৫ হাজার ৭শ’ বাড়িতে

গৃহকর্মী নির্যাতনকারী দম্পতির বিরুদ্ধে পুলিশের চার্জশিট

জেলা বার্তা পরিবেশক, বরিশাল

গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে বরিশাল নগরীর বাজার রোড এলাকার ব্যবসায়ী আবদুস সালাম

sangbad ad

শ্যামলী পরিবহনে ইয়াবা পাচারে চালক-হেলপার গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ইয়াবাসহ শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তারা হলো- চালক

রাজধানীতে জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাজধানীর জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে ডুবে তানজিল (৫) নামে এক শিশু মারা গেছে। সোমবার

নিরাপদ পানির অভাবে জেনে-বুঝে আর্সেনিক বিষ পান করছে মানুষ!

রফিকুল আলম, মেহেরপুর

image

আর্সেনিক আতঙ্কে ভুগছে মেহেরপুর জেলার মানুষ। নিরাপদ পানির ব্যবস্থার অভাবে মানুষ জেনে

আষাঢ়ে বৈশাখী হালখাতা

কাজী কামাল হোসেন, নওগাঁ

image

বাংলাদেশে বাংলা সন প্রবর্তনের পর থেকে সর্বজনীন উৎসব হিসেবে হালখাতার প্রচলন শুরু হয়। এখন পয়লা

কারখানার বর্জ্যে অনাবাদি হাজার হাজার একর জমি

রণজিত ধর, মীরসরাই (চট্টগ্রাম)

image

মীরসরাই উপজেলার কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিষাক্ত বর্জ্যে কয়েক গ্রামের হাজার হাজার একর

বিশ লক্ষ টাকায় মামলা প্রত্যাহারে রাজি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর মহাখালী ফ্লাইওভারে গাড়িচাপায় সেলিম ব্যাপারী নিহত হওয়ার ঘটনায় নোয়াখালী-৪ আসনের

sangbad ad