• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

 

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

সংবাদ :
  • নিরুপম দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম ব্যুরো
image

চট্টগ্রাম : গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে ভবনের ধসে পড়া দেয়ালের ধ্বংসস্তূপ (পাশে স্বজন হারানোর আহাজারি)-সংবাদ

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের পর দেয়াল ধসে নারী শিশুসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১০ জন। ১৭ নভেম্বর রোববার সকাল ৯টা ৪ মিনিটে চট্টগ্রাম মহানগরীর পাথরঘাটা ব্রিকফিল্ড এলাকায় একটি ভবনের নিচতলায় এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের পর দুটি ভবনের দেয়ালের একাংশ ধসে হতাহতরা চাপা পড়েন। এ সময় পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে।

নিহতরা হলেন, কক্সবাজারের উখিয়ার নুরুল ইসলাম (৩১), পটিয়ার মেহেরআটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা অ্যানি বড়ুয়া (৪০), রাঙ্গুনিয়ার কাজল নাথের মেয়ে কৃষ্ণকুমারী স্কুলের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অর্পিতা নাথ (১৫), নতুন ব্রিজ এলাকার শ্রমিক নুরুল ইসলাম (৩০), পাথরঘাটার জুলেখা খানম ফরজানা (৩০), তার ছেলে আতিকুর রহমান (৮) ও টেম্পো চালক আবদুল হামিদ (৩৫)।

আহতদের চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। বিস্ফোরণের ঘটনায় দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যা ৭টায় চমেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম বলেন, তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক; তাদের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। তাছাড়া ৩৭ শতাংশ বার্ন ইনজুরি নিয়ে ভর্তি হওয়া এক নারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র জানান, বিস্ফোরণে নড়বড়ে হয়ে গেছে দুটি ভবন। আহতদের সরকার ফ্রি চিকিৎসা দেবে বলে ঘোষণা দেন জেলা প্রশাসন। এছাড়া শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের এবং চসিকের পক্ষ থেকে টাকা দেয়া হবে বলে ঘোষণা দেয়া হয়। কোতোয়ালি থানার ওসি মো. মহসীন বলেন, পাঁচতলা বড়ুয়া ভবনের নিচতলায় গ্যাসের লাইনে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ওই ভবনের দুটি দেয়াল ধসে পড়ে। জনতা ফার্মেসি ও বাদশা মিয়া ভবনের পাশে বড়ুয়া ভবনের বিস্ফোরণে ওই ভবনের সীমানাপ্রাচীর ধসে রাস্তার ওপর পড়লে পথচারী ও চলতিপথের যাত্রীরাও আহত হন। এ ভবনের পাশাপাশি উল্টো দিকের জসীম বিল্ডিংয়ের নিচতলার দোকানও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক জসীম উদ্দিন বলেন, ফায়ার সার্ভিসের তিনটি টিম উদ্ধার কাজ চালিয়েছে।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, পাথরঘাটায় বিস্ফোরণের পর আহত অবস্থায় প্রথমে ১৭ জনকে চমেকে নিয়ে আসা হয়। এর মধ্যে ৭ জনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের মধ্যে ৪ জন পুরুষ, দু’জন নারী ও এক শিশু রয়েছে। নিহত সাতজনের অধিকাংশ মাথায় আঘাত পেয়েছেন। এ কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

বাদশা মিয়া ভবনের পাশের বড়ুয়া ভবন আহমদ মনজিলের বাসিন্দা জেসমিন আক্তার মলি বলেন, প্রথমে বিকট শব্দ শুনতে পাই। শব্দ শুনতে পেয়ে বাইরে বেরিয়ে আসি। নিচে এসে দেখি বড়ুয়া ভবনের নিচতলা বিধ্বস্ত হয়েছে। আশেপাশে ভাঙা আসবাবপত্র ও কাচের টুকরো ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল। সেখানে খোজাখুঁজির একপর্যায়ে আমার ভাই আ. হানিফকে দেখতে পাই। মলি জানান, তার ভাই আ. হানিফ টেম্পো চালক। রাতে টেম্পো চালিয়ে বাসায় ঢোকার পথে তার ভাই দেয়ালচাপা পড়ে মারা যান।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের উপপরিচালক হাসান শাহারিয়ার কবির জানিয়েছেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১০ জন। ক্যাজুয়ালিটি বিভাগে পাঁচজন, বার্ন ইউনিটে দু’জন, নিউরোলজিতে একজন, অর্থোপেডিক বিভাগে একজন ও কার্ডিওলজি বিভাগে একজন।

বড়ুয়া ভবনের সামনের প্রতিবেশী উত্তম ঘোষ জানান, বিস্ফোরণের পর দেখি ৩টা লাশ পড়ে আছে। ১০ ইঞ্চির দেওয়াল উড়ে গিয়ে রাস্তার ওপর পড়ে আছে।

চট্টগ্রাম বিভাগের স্বাস্থ্য পরিচালক ডা.হাসান শাহরিয়ার কবির বলেন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিভিন্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন সবাইকে সম্পূর্ণ সরকারি খরচে চিকিৎসা দেয়া হবে।

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান নওফেলের পক্ষ থেকে বিস্ফোরণে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। নিহতদের পরিবারকে নওফেলের পক্ষ থেকে শান্ত¡না দিতে আসেন তার ছোট ভাই রোরহান উদ্দীন চৌধুরী সালেহীন। তিনি বলেন, প্রত্যেক পরিবারকে লাশ দাফনের জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তার মা হাসিনা মহিউদ্দিন। নিহত প্রতিটি পরিবারকে দাফন ও যাতায়াত খরচ বাবদ ২০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেছে সিটি করপোরেশন। ওই পরিবারগুলোকে আরও ১ লাখ টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সাংবাদিকদের বলেন, নিহত প্রত্যেক পরিবারকে ১ লক্ষ টাকা করে দেয়া হবে। আহত প্রত্যেকের ওষুধ চসিকের পক্ষ থেকে দেয়া হবে।

এ সময় তিনি ভবন মালিক ও ভাড়াটিয়াদের গ্যাস ও বিদ্যুত লাইন নিয়মিত তদরকি করার পরামর্শ দেন। এ সময় সিটি করপোরেশন থেকে খুব দ্রুত বিভিন্ন বাসা-বাড়ির গ্যাস লাইনসহ বিভিন্ন অবকাঠামোগত অবস্থা ঠিক আছে কিনা তা তদারকি করা হবে বলেও জানান তিনি। মেয়র বলেন, আমাদের শহর অপরিকল্পিত। সিডিএ থেকে নকশা অনুমোদন নিয়েও সে অনুযায়ী ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে না। এছাড়া নজরদারির জন্যও প্রয়োজনীয় জনবল ও সেবা সংস্থা নেই।

বিস্ফোরণে আহতদের উদ্ধার করতে গিয়ে নিজেই জীবন-মরণের সন্ধিক্ষণে আবু তালেব (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। তিনি একটি কসমেটিক দোকানের কর্মচারী। বর্তমানে চমেক হাসপাতালের ১২ নম্বর হৃদরোগ ওয়ার্ডের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আবু তালেব পাথরঘাটার ব্রিকফিল্ড রোড়ের আবদুল জব্বারের ছেলে। তিনি বারমাস নামে এক দোকানে চাকরি করেন বলে জানান তার স্ত্রী আয়েশা বেগম। তিনি বলেন, গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ হয়েছে আমাদের বাড়ি থেকে ৩০ গজের মধ্যে। বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনে আমার স্বামী বাড়ি থেকে বের হন। আমাদের প্রতিবেশী আবদুল হামিদসহ ৭ জনকে উদ্ধার করে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন তিনি। আহতদের উদ্ধার শেষে বাড়িতে গিয়ে কয়েক মিনিটের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন। সারা শরীরে ঘাম দিয়ে অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এরপর তাকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

চমেক হাসপাতালে উপসহকারী পরিচালক ডা. হুমায়ুন কবির বলেন, গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে আহতদের উদ্ধার করার পর আবু তালেব নামে এক ব্যক্তি নিজেও অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি চমেক হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

বিস্ফোরণ হওয়া ৫ তলা বিশিষ্ট বডুয়া ভবন ও তার সামনের ৪ তলা বিশিষ্ট বাদশা মিয়া ভবন নড়বড়ে হয়ে গেছে। সেখানে থাকা ভাড়াটিয়াদের দ্রুত সরিয়ে নেয়া হয়েছে। পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকটি ভবনের জানালা ও দরজাও ভেঙে গেছে। ঘটনাস্থলে দায়িত্ব পালন করা কোতোয়ালি থানার পেট্রোল ইন্সপেক্টর মো. সেলিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঘটনাস্থলে দায়িত্বরত এক পুলিশ সদস্য বলেন, আমরা ঘটনার পর পার্শ্ববর্তী একটি ভবনের সিটি টিভি ফুটেজ চেক করেছি। সেখান থেকেই বিস্ফোরণের বিষয়টি নিশ্চিত হতে পেরেছি। ৩২ সেকেন্ডের ঐ সিসি টিভি ফুটেজে দেখা যায়, বিস্ফোরণের সময় রাস্তা দিয়ে একটি রিকশা পার হচ্ছিল। এছাড়া বিল্ডিংটির অপর পাশে একটি পিকআপও দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এ সময় বিকট শব্দে বিল্ডিংয়ের দেয়াল দুমড়ে-মুচড়ে রাস্তায় এসে পড়ে।

গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। কমিটিকে আগামী ৫ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন।

তিনি বলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সিটি করপোরেশন, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলের সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। চমেক হাসপাতালে আহত রোগীদের দেখতে এসে সিএমপি কমিশনার মাহবুবর রহমান এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আগামী ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট দেয়া হবে। কমিটির আহ্বায়ক দাক্ষিণের ডিসি মেহেদী হাসান। অন্য ২ জন পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তা।

ব্ল্যাক বেঙ্গল ছাগলে বছরে আয় ২ হাজার কোটি টাকা

মাহফুজ উদ্দীন খান, চুয়াডাঙ্গা

image

দেশের মধ্যে বিশ্ববিখ্যাত ব্লাক বেঙ্গল বেশি পালন করায় চুয়াডাঙ্গা জেলাকে ব্র্যান্ড হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। রোগ বালাই কম ও লাভজনক

লক্ষ্যমাত্রা ১০ হাজার হেক্টর ছাপিয়ে যাবে পিয়াজ আবাদ

আব্দুল হান্নান, সদরপুর (ফরিদপুর)

image

চলতি রবি মৌসুমে দেশে পিয়াজ-রসুনের পরিচর্যা করতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা। চলতি মৌসুমে পিয়াজের দাম অস্বাভাবিক বেড়ে

লাল-সবুজের ফেরিওয়ালা ফজলু

প্রতিনিধি, আদমদীঘি (বগুড়া)

image

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের বিজয় দিবস উপলক্ষে ফেরি করে জাতীয় পতাকা বিক্রি শুরু হয়েছে। ডিসেম্বরের শুরু

sangbad ad

এলাকাবাসীর স্বউদ্যোগে কাঠের সেতুতে জীবন ঝুঁকির অবসান

আতাউর রহমান, ভালুকা (ময়মনসিংহ)

image

ভালুকার ঝালপাজা গ্রামে খীরু নদীর ওপর প্রায় দেড়শ ফুট লম্বা একটি কাঠের সেতু নির্মাণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এলাকাবাসী। ভালুকার

আওয়ামী লীগ নেতা ও বন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বন উজাড়ের অভিযোগ

শামসুল ইসলাম সহিদ, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)

image

বনের জায়গা দখল করে অবাদে নির্মিত হচ্ছে ঘর বাড়ি। এতে বনের জায়গা কমে পরিবেশের ভারসাম্য বিনষ্ট হচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ

ব্যাংক থেকে ১১৫ কোটি টাকার ঋণ নিয়ে দম্পতি উধাও

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাউথ ইস্ট ব্যাংকের নওগাঁ শাখা থেকে ব্যবসার জন্য ১১৫ কোটি টাকা ঋণ নেয়ার পর দেশ ছেড়ে পালিয়েছে এক ব্যবসায়ী দম্পতি। ব্যবসায়ী

বাব-দাদার দান বলে স্কুল মাঠের মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক

প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম

image

উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের কুরুষাফেরুষা খন্দকার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান নিজের নিচু

শিবচরে শেখ হাসিনা তাঁতপল্লীতে খুঁজে পাওয়া যায় না ১৯’শ কোটি টাকা!

প্রতিনিধি, শিবচর (মাদারীপুর)

image

শিবচরে শেখ হাসিনা তাঁত পল্লীতে কোটি টাকার দুর্নীতি অভিযোগ উপজেলা প্রশাসনের তদন্তে প্রমাণও মিলেছে। ক্ষতিপূরণের তালিকায় বেশকিছু

নিষেধাজ্ঞা ও স্বাস্থ্য হুমকি উপেক্ষা করে মৎস্য ঘেরে মুরগির খামার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, বরিশাল

image

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছের খাদ্য হিসেবে বরিশালের অধিকাংশ

sangbad ad