• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০

 

করোনা পরিস্থিতি : নিয়ম ও স্বাস্থ্যবিধি কেউ মানছে না

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০১ জুন ২০২০

সংবাদ :
  • বাকী বিল্লাহ
image

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে নানা নিয়ম মেনে চলার জন্য নির্দেশ দেয়া হলেও কেউ তা মানছে না। যত্রতত্র নিয়ম ভঙ্গ করা হচ্ছে। মুখে মাস্ক না লাগিয়ে থুতনিতে মাস্ক রেখে প্রকাশ্যে ধূমপান করছে। ফুটপাতে চায়ের দোকানে চলছে আড্ডা। এক কাপে সবাই চা খাচ্ছে। ক্ষতির কথা কেউ ভাবছে না। অপর দিকে বিশেষজ্ঞদের মতে, দিন দিন করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হচ্ছে। যাদের বয়স ৫০ থেকে ৬০ ঊর্ধ্বে তারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন। আর ডায়াবেটিস, কিডনি, হার্ট, হাঁপানি, অ্যাজমা, ক্যান্সারসহ অসংক্রমনণ রোগে আক্রান্তদের জন্য করোনাভাইরাস হুমকি। তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হতে পারে। এমনকি মৃত্যুর ঝুঁকিও রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। ১ জুন সোমবার সন্ধ্যায় সর্বশেষ জানা গেছে, করোনা সংক্রমণ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ না করলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে। আর এক হাসপাতালে ও এক ভবনে কোভিড-১৯ ও নন-কোভিড রোগীর চিকিৎসা করলে কিডনি ডায়ালাইসিসের রোগী ও ক্যান্সারের রোগীরা একের পর এক মারা যাবে। ফলে পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে বলে টেকনিক্যাল কমিটির এক বিশেষজ্ঞ মতামত দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা জানান, মানুষ নিয়ম মানছে না। নির্দেশ আছে কাগজে কলমে, বাস্তবে নেই। রাস্তা, অফিস, পরিবহন সবখানে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে। আইন না মানার সংস্কৃতি বাড়ছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে তারা জানান। এছাড়া ডায়াবেটিস, কিডনি, হাঁপানি, অ্যাজমা, ফুসফুসের সমস্যা এবং যাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নেই এসব রোগীদের ঝুঁকি বেশি। বিশেষ করে যাদের বয়স ৫০ থেকে ৬০ ঊর্ধ্বে তাদের জন্য ঝুঁকি বেশি। কিডনি ডায়ালাইসিস ও ক্যান্সার রোগী একের পর এক মারা যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন।

একজন করোনা রোগী মুঠোফোনে জানান, গত ১১ দিন ধরে তার সন্তান অসুস্থ। বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাসায় গিয়ে কেউ খবর নেয়নি। বরং সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের হটলাইনে যোগাযোগ করে চিকিৎসা গাইডলাইন নিয়েছেন। তার মেয়ের গলা ব্যাথা, জ্বর, স্ত্রীও নতুন করে অসুস্থ। তার ভাইকে দেখতে গিয়ে বোনও অসুস্থ। তার মতো বহু পরিবার বাসায় থেকে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা করছেন।

একজন আইসিইউ বিশেষজ্ঞ বলেন, প্রতিদিন যেভাবে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, এখন হাসপাতালগুলোতে ঠাঁই নেই। আইসিইউতে সিট নেই। আইসিইউ চালানোর মতো বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও টেকনোলজিস্টের অভাব রয়েছে। করোনা এখন দেশের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে। কোথাও পালিয়ে গিয়ে থাকার ব্যবস্থা নেই। আক্রান্ত হয়ে বিদেশ গিয়ে চিকিৎমসা করার ব্যবস্থা নেই। সরকারি ও প্রাইভেট হসপিটালগুলোতে কঠিন অবস্থা চলছে। করোনা রোগী এখন দেশের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। মানুষ যারা আক্রান্ত ও তাদের পরিবার দিশেহারা হয়ে পড়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে চিকিৎসা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা কঠিন হয়ে পড়েছে। চিকিৎসা করতে গিয়ে আইসিইউর বহু ডাক্তার এখন আক্রান্ত ।

অভিযোগ রয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা রোগী টেস্টের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। আর বাংলাদেশে করোনা রোগী টেস্ট নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে। টেস্ট করতে তদবির করতে হয়। এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় ফোন করে আক্রান্ত ব্যক্তি টেস্ট করার চেষ্টা করছেন। সবচেয়ে বেদনা হলো, যে আক্রান্ত তার পাশে কেউ নেই। পরিবারের স্বজনরা সংক্রমণ রোগের কারণে তাকে আলাদা করে রাখেন। যে কারণে সব কিছু তার নিজের করতে হচ্ছে। আর যখন বেশি শ্বাসকষ্ট হয় তখনই তার বিপদ হয়ে পড়েছে। সবাই শুধু কাঁদছে ।

জাতীয় টেকনিক্যাল কমিটি সম্প্রতি এক বৈঠকে করোনা নিয়ে সুপারিশমালা পেশ করেছেন, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে যেসব স্বাস্থ্যবিধি রয়েছে তা সঠিকভাবে প্রয়োগ করার প্রস্তাব করেছেন। তা না হলে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ওপর চাপ সৃষ্টি করতে পারে। কিন্তু তাদের পরামর্শ বাস্তবায়ন ঠিকমত হচ্ছে না, কেউই স্বাস্থ্যবিধি মানছে না।

স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইন নিয়ে একজন সংক্রমণ আইন বিশেষজ্ঞ বলেন, এখন অত্যন্ত ভয়াবহ অবস্থা চলছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে পরিণতি আরও ভয়াবহ হবে। উত্তরে আবার বাধ্যতামূলক লকডাউন ও আইনের কঠোর প্রয়োগের দরকার। না হলে পরিণতি আরও খারাপ হবে বলে জানান তিনি।

সামর্থ্যরে অর্ধেক পরীক্ষা : করোনা সংক্রমণের স্থায়িত্ব বৃদ্ধি

রতন বালো

image

মধ্য গোরানের বাসিন্দা একটি ব্যাংকের পিয়ন আসিফুর রহমান সলিল ৭ জুলাই সংবাদ’কে বলেন, গত ২১ জুন করোনা টেস্ট করিয়েছি

সিলেটে পুলিশের ইন্সপেক্টরসহ ২ জন ক্লোজড

প্রতিনিধি, সিলেট

image

গরু চোরাচালান ও পাথর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ

অনলাইন শপিংয়ে প্রতারিত হলে পুলিশকে জানানোর আহ্বান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

অনলাইন শপিংয়ে প্রতারণা এড়াতে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। এছাড়া প্রতারণার শিকার হলে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে

sangbad ad

ক্রেডিট কার্ড জালিয়াত চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

গ্রাহকের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে অনলাইনে নিয়মিত পণ্য কেনাকাটা করে আসছিল একটি জালিয়াত চক্র। ক্রেডিট কার্ডের পিন নম্বর

পেশা হারিয়ে মানবেতর জীবনে হাওর অঞ্চলের জেলে সম্প্রদায়

দেবপদ চক্রবর্তী, অষ্টগ্রাম (কিশোরগঞ্জ)

হাওর অঞ্চলের ২০ হাজারেরও বেশি জেলে পরিবারে জীবনে আসছে চরম দুর্দিন। পুরুষাক্রমিক মাছ ধরে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে

হিজলায় ১ লাখ ২০ হাজার মি. কারেন্ট জাল বিনষ্ট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, বরিশাল

বরিশাল জেলা হিজলা উপজেলার মেঘনা নদীর বিভিন্নস্থানে কোস্টগার্ড অভিযান পরিচালনা করে ৪২ লাখ টাকা মূল্যের ১ লাখ ২০ হাজার মিটার

সুনামগঞ্জে পাহাড়ি ঢল-বৃষ্টিতে ৩শ’ কিমি. সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত

লতিফুর রহমান রাজু, সুনামগঞ্জ

image

সীমান্তের ওপার থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ও ভারি বৃষ্টি পাতের কারণে সৃষ্ট বন্যায় সুনামগঞ্জ জেলার বিভিন্ন সড়ক বিধ্বস্ত হয়ে

সিলেটে করোনা শনাক্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে

প্রতিনিধি, সিলেট

image

সিলেট বিভাগে করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা সাড়ে পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। বিভাগে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় ১১৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জে আইসিইউতে ভর্তি করোনা রোগীর মৃত্যু

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ:

image

কোভিড ডেডিকেটেড নারায়ণগঞ্জ ৩শ শয্যা হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি এক করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে তিনি মারা যান।

sangbad ad