• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯

 

উত্তরায় পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০৭ জানুয়ারী ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

সরকার ঘোষিত নতুন বেতন কাঠামো বাস্তবায়নের দাবিতে গাজীপুর, আব্দুল্লাহপুর, উত্তরা ও বিমানবন্দর সড়ক অবরোধ করে কয়েক হাজার পোশাক শ্রমিকরা। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বিমানবন্দর সড়কে এনা পরিবহনের একটি বাসে আগুন দেয়। এদিকে, সোমবার (৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকার পর শ্রমিকদের ডাকা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেয়া হলে বিকেল ৩টার দিকে ওই রুটে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। এর আগে রোববার (৬ জানুয়ারি) উত্তরার আজমপুর থেকে জসিমউদ্দিন সড়ক পর্যন্ত অবরোধ করে পোশাক শ্রমিকরা। মালিক পক্ষের আশ্বাসে ওইদিনের মতো অবরোধ তুলে নেয়া হয়। তবে তাদের দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় সোমাবর সকাল থেকে আবারও সড়ক অবরোধ করা হয়। ফলে রাজধানীতে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়।

অন্যদিকে, একই দাবিতে গাজীপুরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেছেন পোশাক শ্রমিকরা। সোমবার সকাল থেকে শ্রমিকরা বিভিন্ন গার্মেন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল করে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে নেমে আসেন। একপর্যায়ে তারা ওই মহাসড়কে বিভিন্ন পরিত্যক্ত বস্তু ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করেন। ফলে ওই সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ, থানা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১৫ শ্রমিক আহত হন। পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দিলে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ফের যান চলাচল শুরু হয়।

বিমানবন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান জানান, শ্রমিকদের বিক্ষোভের সূত্রপাত রোববার থেকে। ওইদিন উত্তরার বিভিন্ন গার্মেন্টসের শত শত শ্রমিক আজমপুর থেকে জসিমউদ্দিন ক্রসিং পর্যন্ত অবস্থান নিলে অচল হয়ে পড়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক। পাঁচ ঘণ্টা পর দুপুর ২টার দিকে তারা রাস্তা থেকে উঠে যাওয়ার আগে সোমবার ফের বিক্ষোভের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই ঘোষণা অনুযায়ীই তারা সোমবার সকালে রাস্তায় নামেন। সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে।

ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর দুপুর সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়। দুপুর ১টার দিকে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে এনা পরিবহনের একটি বাসে শ্রমিকরা আগুন ধরিয়ে দেয়। দুপুর ২টার দিকে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি আলী হোসেন পরিস্থিতি অপরিবর্তিত থাকার কথা জানিয়ে বলেন, প্রায় ১০ জন কারখানা মালিক বিষয়টি নিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনায় বসেছেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এর কিছুক্ষণ পরই শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয় পুলিশ। ২০ মিনিট পর থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করে পরিস্থিতি।

কাওলার টেক্স গ্রুপের শ্রমিক অপারেটর রুবেল বলেন, আমাদের মালিক এখনও কোন আশ্বাস দেননি। সরকারি মজুরি কাঠামো অনুযায়ী ১৬ হাজার টাকা বেতন হওয়ার কথা। কিন্তু মালিক পক্ষ একজন অপারেটরকে ৮ হাজার টাকা বেতন দেয়। সরকার আমাদের বেতন বাড়াইছে। আমরা সেই অনুযায়ী বেতন পেলে আন্দোলন করবো না। চৈতি গ্রুপ লিমিটেডের অপারেটর রফিক বলেন, রোববার আমাদের মালিক মৌখিকভাবে আশ্বাস দিয়েছে। কিন্তু আমরা লিখিত আশ্বাস চাই। ইমপ্রিরিয়াল গ্রুপের শ্রমিক আল আমিন বলেন, আমরা বেশি কিছু চাইনি। আমাদের ন্যায্য পাওনা চাইছি। কিন্তু মালিক পক্ষে সেটাও দেয় না। সরকার বেতন বাড়াইছে এদিকে বাড়িওয়ালারাও ভাড়া বাড়াইছে কিন্তু গার্মেন্ট মালিকরা বেতন বাড়ায় না।

এদিকে, নিপা গ্রুপ লিমিটেডের চেয়ারম্যান কসরু চৌধুরী শ্রমিকদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা কাজে ফিরে যান। সরকারের যে বেতন কাঠামো ঠিক করেছে সে অনুযায়ী আপনাদের বেতন দেয়া হবে। আমি যদি সরকারি নিয়ম অনুয়ায়ী বেতন দিতে না পারি তাহলে আমার ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দেব। যদি ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দেই সেক্ষেত্রে আমার ফ্যাক্টরিতে কর্মরত শ্রমিকদের অগ্রিম এক মাসের বেতনও দেয়া হবে। তাদের আশ্বাসের পর তারা শান্তিপূর্ণভাবে সরে যায়।

পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) নাবিদ কামাল শৈবাল জানান, সরকার শ্রমিকদের জন্য যে বেতন কাঠামো তৈরি করেছে সেটা নজরদারির জন্য আমরা আপনাদের (শ্রমিক) সঙ্গে রয়েছি। ভাঙচুর, জ্বালাও-পোড়াও করলে আমরা আপনাদের সঙ্গে থাকবো না। এ ব্যাপারে যে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করবো। সরকারি মজুরি কাঠামো অনুযায়ী যাতে আপনার বেতন পান সে বিষয়টি নিশ্চিত করতেই আপনাদের গার্মেন্টসের মালিকরা এখানে এসেছেন আপনাদের আশ্বস্ত করতে ও কথা বলতে। তিনি আরও বলেন, যদি আপনাদের বেতন নিয়ে মালিক পক্ষের সঙ্গে কোন ঝামেলা থাকলে তাদের সঙ্গে কথা বলে সমাধান করতে হবে। সেজন্য জনগণকে হয়রানি করা যাবে না। এ সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ৭ জন পুলিশ আহত হয়েছেন। গাড়ি আগুন দেয়ার ব্যাপারে শ্রমিকরা বলেন, গাড়িচালকারা আমাদের আঘাত করে। কিন্তু আগুন কে দিয়েছে তা আমরা জানি না। আগুন কে দিয়েছে তদন্ত করলে তা বের হবে।

বাংলাদেশ পোশাক শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মো. তৌহিদুর রহমান শ্রমিকদের আন্দোলন সম্পর্কে জানান, সরকার ঘোষিত নতুন বেতন কাঠামো বাস্তবায়নের দাবিতে শ্রমিকরা আন্দোলনে নেমেছে। যেহেতু সোমাবর মন্ত্রিসভার শপথ, তাই এ শপথ গ্রহণ শেষ হলে নতুন মন্ত্রীর সঙ্গে আমরা ও গার্মেন্টস মালিকরা বসে এ বিষয়ে আলোচনা করবো।

কসবা সীমান্ত : রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের জম্মু-কাশ্মীরের হেলথ ও শরণার্থী কার্ড

মো. সাদেকুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার কাজিয়াতলী এলাকার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২০২৯

ইংরেজী ভাষায় লেখা সাইনবোর্ডের বিরুদ্ধে ডিএনসিসির অভিযান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাইনবোর্ডে বাংলায় লেখা নিশ্চিত করতে অভিযান চালিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের

৫ কোম্পানির পানি মানহীন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আদালতের নির্দেশে বাজারে বোতলজাত ১৫টি কোম্পানির খাবার পানি পরীক্ষা করে পাঁচটি

sangbad ad

চর অঞ্চল উন্নয়নে আলাদা কর্তপক্ষের দাবি : ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশের চর এলাকায় বসবাসরত মানুষের উন্নয়নে আলাদা কর্তৃপক্ষ গঠনের দাবি জানিয়েছে ন্যাশনাল

রাজধানীতে নিরাপত্তাকর্মী খুন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর বারিধারার জে ব্লকে যমুনা ব্যাংকের এটিএম বুথে শামীম (২০) নামে এক নিরাপত্তাকর্মী

ঢাকাসহ ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক অনুপস্থিত ৪০ শতাংশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীসহ দেশের ৮জেলার ১১টি সরকারি হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে হাসপাতালগুলোতে

ঠাকুরগাঁও রামরায় দীঘি অতিথি পাখির স্বর্গরাজ্য

আখতার হোসেন রাজা, ঠাকুরগাঁও

image

রং-বেরঙের অতিথি পাখির কলকাকলীতে মুখরিত হয়ে উঠেছে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল

বিএসএমএমইউতে জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে মাসব্যাপী কর্মসূচি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার সংক্রান্ত সেবার পরিধি ও মান উন্নয়ন এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির

হলি আর্টিজান হামলার অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী রিপন গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রায় ৩ বছর আগে রাজধানীর গুলশানে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার অস্ত্র

sangbad ad