• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯

 

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মির্জা আব্বাস দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা করছে দুদক

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ০৬ জানুয়ারী ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

প্রায় ২১ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে বিএনপি থেকে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচন করা আফরোজা আব্বাস এবং তার স্বামী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলা করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সালাউদ্দিন বাদী হয়ে সোমবার (৭ জানুয়ারি) রাজধানীর শাজাহানপুর থানায় মামলাটি দায়ের করবেন। এর আগে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আফরোজা আব্বাস ও মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান করেছিল দুদক। অনুসন্ধান চলাকালে সম্পদ বিবরণীতে সম্পদের তথ্য গোপন করেছিল এ দম্পতি।

দুদক সূত্র জানায়, অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রথম দফায় অনুসন্ধান শেষে অনুসন্ধান কর্মকর্তার বদলি হওয়ায় দ্বিতীয় দফায় অনুসন্ধান শুরু করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সালাহউদ্দিন। অনুসন্ধান শেষে বিএনপির মহিলা দলের সভাপতি ও ঢাকা-৯ আসনে সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়া আফরোজা আব্বাস এবং তার স্বামী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা-৮ আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে ২০ কোটি ৭৬ লাখ ৯২ হাজার ৩৬৩ টাকার সম্পদ অবৈধভাবে অর্জনের প্রমাণ মেলে। অনুসন্ধান কর্মকর্তা প্রতিবেদন দাখিল করে মামলা দায়েরের অনুমতি চান। কমিশনের বৈঠকে অনুসন্ধান সন্তোষজনক হওয়ায় এবং প্রতিবেদন ঠিক থাকায় মামলা দায়েরের অনুমোদন দেন। অনুসন্ধান কর্মকর্তা সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে শাজাহানপুর থানায় মামলাটি দায়ের করবেন।

অনুসন্ধানকালে সংগৃহীত তথ্যাদি ও নথি পর্যালোচনায় দেখা যায়, মির্জা আব্বাস উদ্দিন আহমেদ ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং পরবর্তীকালে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ছিলেন। তার স্ত্রী মিসেস আফরোজা আব্বাসের আয়কর নথি পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, তিনি আয়কর নথিতে নিজেকে একজন হস্তশিল্প ব্যবসায়ী হিসেবে উল্লেখ করলেও তার পাসপোর্ট অনুযায়ী তিনি একজন গৃহিণী ও নিজের আয়ের কোনো বৈধ উৎস নেই। দুদক সূত্র জানায়, অনুসন্ধানকালে দুদকে দাখিলকৃত আফরোজা আব্বাসের সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে তার অস্থাবর সম্পদের মধ্যে ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড-এর শেয়ার ৮ লাখ ৭০ হাজার ৭০৬টি, যার মূল্য ৮ কোটি ৭০ লাখ ৭০ হাজার ৬০০ টাকা, ঢাকা টেলিফোন কোম্পানি লিমিটেডের ১ লাখ শেয়ারের মূল্য ১০ কোটি টাকা, এফডিআর ও ডিপিএস-এ বিনিয়োগ ১৪ লাখ ৯ হাজার ৯৫৮ টাকা, ঢাকা টেলিফোন কোম্পানিকে ঋণ প্রদান এক কোটি টাকা, আত্মীয়স্বজনদের ঋণ প্রদান ৪৫ লাখ টাকা, হাতে নগদ ও ব্যাংক ব্যালেন্স ৫ লাখ টাকা এবং স্বর্ণালঙ্কার ক্রয় ৪২ লাখ ১১ হাজার ৮০৫ টাকাসহ মোট ২০ কোটি ৭৬ লাখ ৯২ হাজার ৩৬৩ টাকার সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। মোট ২০ কোটি ৫২ লাখ ৮০ হাজার ৫৫৮ টাকার সম্পদের ঘোষণা প্রদান করেছেন। দুদক জানায়, মিসেস আফরোজা আব্বাস দুদকে দাখিলকৃত ২০ কোটি ৫২ লাখ ৮০ হাজার ৫৫৮ টাকার সম্পদের উৎস হিসাবে এমএনএইচ বুলুর নিকট হতে দেড় কোটি টাকা ঋণ গ্রহণ এবং মা-বাবা ও বোনের নিকট হতে ১ কোটি ১৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা দান হিসেবে প্রাপ্ত হয়েছেন মর্মে উল্লেখ করেছেন। কিন্তু তার স্বপক্ষে কোনো দালিলিক তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি। এছাড়া বাকি অর্থ অর্জনের স্বপক্ষেও কোনো রেকর্ডপত্র অনুসন্ধানকালে দেখাতে পারেননি। প্রকৃতপক্ষে তিনি নিজের অবৈধভাবে অর্জিত জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ হস্তান্তর, রূপান্তর ও অবস্থান গোপনকরণের অসৎ উদ্দেশ্যে দালিলিক প্রমাণবিহীন ভুয়া ঋণ গ্রহণ দেখিয়েছেন।

সার্বিক পর্যালোচনায় দেখা যায়, মিসেস আফরোজা আব্বাসের নামে অর্জিত ২০ কোটি ৭৬ লাখ ৯২ হাজার ৩৬৩ টাকার সম্পদ প্রকৃতপক্ষে তার স্বামী মির্জা আব্বাস উদ্দিন আহমেদের সহায়তায় অবৈধ উৎস থেকে অর্জিত। তাছাড়া মির্জা আব্বাস ১৯৯১ সালের পূর্বে উল্লেখযোগ্য কোনো আয় ছিল না। তিনি ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী হওয়ার সুবাদে ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত ওই টাকার সম্পদ অর্জন করেন। দুদকের অনুসন্ধানে অবৈধ পন্থায় অর্জিত সম্পদের অবৈধ পন্থায় হন্তান্তর, রূপান্তর, অবস্থান গোপন করায় দুদক আইন ২০০৪ এর ২৭(১) ধারা, দ-বিধির ১০৯ ধারা এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০০২ এর ১৩ ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন বলে প্রমাণিত হয়েছে।

কসবা সীমান্ত : রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের জম্মু-কাশ্মীরের হেলথ ও শরণার্থী কার্ড

মো. সাদেকুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার কাজিয়াতলী এলাকার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২০২৯

ইংরেজী ভাষায় লেখা সাইনবোর্ডের বিরুদ্ধে ডিএনসিসির অভিযান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাইনবোর্ডে বাংলায় লেখা নিশ্চিত করতে অভিযান চালিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের

৫ কোম্পানির পানি মানহীন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আদালতের নির্দেশে বাজারে বোতলজাত ১৫টি কোম্পানির খাবার পানি পরীক্ষা করে পাঁচটি

sangbad ad

চর অঞ্চল উন্নয়নে আলাদা কর্তপক্ষের দাবি : ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশের চর এলাকায় বসবাসরত মানুষের উন্নয়নে আলাদা কর্তৃপক্ষ গঠনের দাবি জানিয়েছে ন্যাশনাল

রাজধানীতে নিরাপত্তাকর্মী খুন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর বারিধারার জে ব্লকে যমুনা ব্যাংকের এটিএম বুথে শামীম (২০) নামে এক নিরাপত্তাকর্মী

ঢাকাসহ ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক অনুপস্থিত ৪০ শতাংশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীসহ দেশের ৮জেলার ১১টি সরকারি হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে হাসপাতালগুলোতে

ঠাকুরগাঁও রামরায় দীঘি অতিথি পাখির স্বর্গরাজ্য

আখতার হোসেন রাজা, ঠাকুরগাঁও

image

রং-বেরঙের অতিথি পাখির কলকাকলীতে মুখরিত হয়ে উঠেছে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল

বিএসএমএমইউতে জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে মাসব্যাপী কর্মসূচি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জরায়ুমুখ স্তন ক্যানসার সংক্রান্ত সেবার পরিধি ও মান উন্নয়ন এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির

হলি আর্টিজান হামলার অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী রিপন গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রায় ৩ বছর আগে রাজধানীর গুলশানে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার অস্ত্র

sangbad ad